নোবিপ্রবির প্রক্টরের পদত্যাগ, দাবি মেনে নেয়ার আশ্বাস

২৮ মে,২০১৩

নিজস্ব প্রতিবেদক
আরটিএনএন
নোয়াখালী: নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. জাহাঙ্গীর সরকার শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মুখে পদত্যাগ করেছেন। তার বিরুদ্ধে ছাত্রী লাঞ্ছিত করার অভিযোগ উঠলে তিনি পদত্যাগে বাধ্য হন।

মঙ্গলবার বিকেলে ফলিত রসায়ন ও কেমিকৌশল বিভাগের ছাত্রীদের প্রতি অশোভন আচরণের অভিযোগে পদত্যাগ করেন তিনি।

এদিকে, আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা প্রশাসনিক ভবনে তালা লাগিয়ে দিলে শতাধিক শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারি ভবনের ভেতরে বিকাল পাঁচটা পর্যন্ত আটকা পড়ে।

ফলিত রসায়ন বিভাগের শিক্ষার্থীরা তিন দফা দাবিতে বিগত ২ মে থেকে বিক্ষোভ মিছিল, সমাবেশ ও মানববন্ধন করে আসছে। তাদের দাবি না মানায় গত ১৯ মে থেকে টানা ধর্মঘট শুরু হয়।

পরে সোমবার সকালে একাডেমিক ভবনে তালা ও ক্লাস বর্জন করে শিক্ষার্থীরা। তারা প্রশাসনকে মঙ্গলবার বেলা ১১টা পর্যন্ত দাবি মেনে নেয়ার সময়সীমা বেধে দেয়।

এর পরও দাবি না মানলে মঙ্গলবার সকাল সোয়া ১১টার দিকে প্রশাসনকি ভবন ও তিনটি একাডেমিক ভবনসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকে তালা ঝুলিয়ে দেয় শিক্ষার্থীরা।

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করে বলেন, সকালে প্রক্টর ড. জাহাঙ্গীর সরকারসহ কয়েকজন শিক্ষক ছোট হাতুড়ি ও দুই/তিনটি চাপাতি নিয়ে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ওপর চড়াও হয়।

শিক্ষার্থীরা জানায়, প্রক্টর নিজে হাতুড়ি দিয়ে ছাত্রীর মাথায় আঘাত করে এবং অশোভন আচরণ করে। অন্য শিক্ষকরা চাপাতি হাতে নিয়ে শিক্ষার্থীদের ভয়-ভীতি দেখিয়ে আন্দোলন থেকে সরে আসতে বলে।

কিন্তু শিক্ষার্থীরা তাদের দাবি আদায়ে আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। একপর্যায়ে পুরো বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থীরা ঐক্যবদ্ধ হলে তোপের মুখে শিক্ষক ও প্রক্টর প্রশাসনিক ভবনে চলে যায়।

তখনই শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল ভবনে তালা ঝুলিয়ে দেয়। এরপর অন্যান্য দাবির সঙ্গে যোগ হয় প্রক্টরের পদত্যাগ।

পরে মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে পাঁচটার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিন ড. আবুল হোসেনসহ কয়েকজন শিক্ষক শিক্ষার্থীদের সকল দাবি আগামী এক মাসের মধ্যে মেনে নেয়ার অঙ্গীকার করে। শিক্ষার্থীরা আশ্বস্ত হয়ে ক্লাসরুমের তালা খুলে দেয়।
আবুল হোসেন প্রক্টরের পদত্যাগের বিষয়টিও নিশ্চিত করেন।

তবে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা দাবি করেন প্রক্টর পদ থেকে শুধু পদত্যাগ করলে হবে না, তাকে লাঞ্ছিত ছাত্রীদের কাছে ক্ষমা চাইতে হবে।

শিক্ষাঙ্গন পাতার আরো খবর

ঢাবির ২ ছাত্রলীগ নেত্রীকে জুতাপেটা, হল থেকে বিতাড়িত

নিজস্ব প্রতিবেদকআরটিএনএনঢাকা: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কুয়েত-মৈত্রী হল শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি আজমিরা বিনতে জামান নীলা ও সাধা . . . বিস্তারিত

চবিতে ছাত্রলীগের দুগ্রুপে দফায় দফায় সংঘর্ষ, পুলিশসহ আহত ২৫

নিজস্ব প্রতিনিধিআরটিএনএনচট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়: ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ . . . বিস্তারিত

ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: ০১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: [email protected]