পোশাক শ্রমিকদের জন্যে মজুরি বোর্ড গঠন

০৬ জুন,২০১৩

নিজস্ব প্রতিবেদক
আরটিএনএন
ঢাকা: পোশাক কারখানার শ্রমিকদের জন্যে ৬ সদস্যের মজুরি বোর্ড গঠন করেছে সরকার। সাবেক জেলা জজ এ কে রায়কে চেয়ারম্যান করে এই বোর্ড গঠন করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রী রাজিউদ্দীন আহমেদ রাজু সচিবালয়ে সাংবাদিকদের এ কথা জানান।

বোর্ডে একজন নিরপেক্ষ সদস্য, পোশাক কারখানার মালিক পক্ষ থেকে একজন স্থায়ী সদস্য, শ্রমিকদের পক্ষ থেকে একজন স্থায়ী সদস্য এবং পোশাক মালিক পক্ষের দু’জন প্রতিনিধি রাখা হয়েছে বলে জানান মন্ত্রী।

মন্ত্রী আরো জানান, আগামী ছয় মাসের মধ্যে এই বোর্ড পোশাক শ্রমিকদের বেতন-ভাতার একটি কাঠামো সরকারের কাছে পেশ করবে।

পোশাক শ্রমিকদের বেতন-ভাতা ও কারখানার কর্মপরিবেশ নিয়ে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বিরূপ আলোচনার প্রেক্ষাপটে পোশাক শ্রমিকদের ন্যূনতম মজুরি কাঠামো পুনর্নির্ধারণে সরকার মজুরি বোর্ড গঠনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।

এর আগে গত ১২ মে সংসদীয় কমিটি, সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন মন্ত্রণালয় এবং পোশাক খাতের বিভিন্ন সংগঠনের প্রতিনিধিদের সঙ্গে এক বৈঠকের পর বস্ত্রমন্ত্রী আবদুল লতিফ সিদ্দিকীর নেতৃত্বে উচ্চক্ষমতাসম্পন্ন একটি কমিটি গঠন করা হয়। এবং জানানো হয়, পয়লা মে থেকে নতুন মজুরি বোর্ড কার্যকর করা হবে।

সে সময় শ্রমিক প্রতিনিধিরা তাৎক্ষণিকভাবে সরকারের এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানালেও গার্মেন্ট মালিকরা বোর্ড কার্যকরের তারিখ নিয়ে আপত্তি তুলেছিলেন।

নিয়ম অনুযায়ী, বোর্ড যখনই নতুন মজুরি কাঠোমো সুপারিশ করুক না কেন, নতুন সেই কাঠামোতে বেতন পরিশোধ করতে হবে  ১ মে থেকে।

এর আগে সর্বশেষ ২০১০ সালের  ২৭ জুলাই পোশাক শ্রমিকদের ন্যূনতম মজুরি তিন হাজার টাকা নির্ধারণ করা হয়।
বিগত তিন বছরে মূল্যস্ফীতির কারণে ওই কাঠামো পর্যালোচনা করার দাবি জানিয়ে আসছিলো শ্রমিক সংগঠনগুলো।
প্রায় ২০ বিলিয়ন ডলারের এই শিল্পে ৩৬ লাখের বেশি শ্রমিক জড়িত।

বাংলাদেশ বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম পোশাক রপ্তানিকারক দেশ হলেও আগের মজুরি কাঠামোই সব কারখানায় ঠিকমতো অনুসরণ করা হয় না বলেও অভিযোগ রয়েছে।

গত বছরের নভেম্বরে তাজরীন ফ্যাশনসে আগুন এবং গত ২৪ এপ্রিল সাভারে পাঁচটি পোশাক কারখানা সম্বলিত রানা প্লাজা ধসের প্রেক্ষিতে বিশ্বব্যাপী গণমাধ্যমে বাংলাদেশের এ শিল্পে কর্মপরিবেশ ও শ্রমিকদের স্বল্প মজুরির বিষয়টি নতুন করে আলোচিত হয়।

যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপের বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে বাংলাদেশি পোশাক বর্জনেরও হুমকি দেয়া হয়।

অর্থনীতি পাতার আরো খবর

বাংলাদেশে শ্রমিকদের নিরাপত্তা চায় যুক্তরাষ্ট্র

নিজস্ব সংবাদদাতাআরটিএনএননিউ ইয়র্ক: নিউ ইয়র্ক থেকে নির্বাচিত কংগ্রেসওম্যান গ্রেস ম্যাং বলেছেন, সাভার ট্র্যাজেডি শুধু বাংল . . . বিস্তারিত

ক্ষতিপূরণের জন্য এখনো অপেক্ষায় থাকা লজ্জাজনক

নিজস্ব প্রতিবেদকআরটিএনএনঢাকা: রানা প্লাজা ধসের এক বছর পরও ক্ষতিপূরণের জন্য দুর্ঘটনার শিকার ব্যক্তি ও তাঁদের পরিবারের অপে . . . বিস্তারিত

ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: ০১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: [email protected]