মেক্সিকো সীমান্তে দেয়াল নির্মাণে অর্থ না পেলে জরুরি অবস্থা জারির হুমকি ট্রাম্পের

১১ জানুয়ারি,২০১৯

মেক্সিকো সীমান্তে দেয়াল নির্মাণে অর্থ না পেলে জরুরি অবস্থা জারির হুমকি ট্রাম্পের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আরটিএনএন
নিউইয়র্ক: মেক্সিকো সীমান্তে দেয়াল নির্মাণে কংগ্রেস পর্যাপ্ত অর্থ বরাদ্দ না দিলে জাতীয় জরুরি অবস্থা ঘোষণার হুমকি পুনর্ব্যক্ত করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় সরকারের আংশিক অচলাবস্থার ২০তম দিনে বৃহস্পতিবার ডোনাল্ড ট্রাম্প টেক্সাস সীমান্ত পরিদর্শন করেন। টেক্সাসের ম্যাকআলানের উদ্দেশে হোয়াইট হাউস থেকে বের হওয়ার পর সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।

ট্রাম্প বলেন, অচলাবস্থার সুরাহা করতে একটি চুক্তির জন্য কংগ্রেসের সঙ্গে কাজ করতে তিনি পছন্দ করেন। তিনি মূলত দেয়ালের জন্য অর্থ বরাদ্দ পেতেই নাছোড়বান্দা হয়ে আছেন।

কিন্তু ডেমোক্র্যাটরা কোনো চুক্তিতে আসতে না চাইলে কংগ্রেসকে পাশ কাটিয়ে জরুরি অবস্থার ক্ষমতা ব্যবহারের হুমকি দেন ট্রাম্প।

রিপাবলিকান ও ডেমোক্র্যাটদের মধ্যে পাল্টাপাল্টিতে ২২ ডিসেম্বর থেকে মার্কিন কেন্দ্রীয় সরকারের অসংখ্য বিভাগ ও সংস্থা অচল হয়ে আছে। জরুরি অবস্থা জারি করেই এ অবস্থা থেকে নিষ্কৃতি চান ট্রাম্প।

ডেমোক্র্যাটদের সঙ্গে আলোচনা ভেঙে যাওয়ার পর দীর্ঘ প্রতিশ্রুত দেয়াল নির্মাণের অর্থ পেতে গণপ্রচারের চেষ্টা করছেন ট্রাম্প। এ কারণেই টেক্সাস সীমান্তে গেছেন তিনি।

ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, একটি জাতীয় জরুরি অবস্থা জারির সম্পূর্ণ অধিকার আমার রয়েছে।

যদিও এ ঘ্টনায় এমন পদক্ষেপ নেয়ার অধিকার ট্রাম্পের রয়েছে কিনা, তা নিয়ে সন্দেহ পোষণ করছেন আইন বিশেষজ্ঞরা।

জরুরি অবস্থা জারি হলে কংগ্রেসের ডেমোক্র্যাট সদস্যরা এর বিরুদ্ধে আইনি লড়াইয়ে নামতে পারবেন। যে লড়াইয়ে সহজেই জিতে যাবেন বলেও ধারণা রিপাবলিকান প্রেসিডেন্টের।

ট্রাম্প বলেন, আমি এমনটি করিনি। কিন্তু করতে পারি। যদি এভাবে কোনো কাজ না হয়, সম্ভবত আমি জরুরি অবস্থা জারি করব। আমি অনেকটা নিশ্চিতভাবেই কথাটা বলেছি।

এর আগে বুধবার মার্কিন সরকারের আংশিক অচলাবস্থা নিরসনে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে ডেমোক্র্যাট নেতাদের বৈঠক শুরুর কিছু সময়ের মধ্যেই ভণ্ডুল হয়ে গেছে।

দেয়াল নির্মাণে অর্থ বরাদ্দ পেতে প্রতিনিধি পরিষদের ডেমোক্র্যাট নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে বসেছিলেন ট্রাম্প। কিন্তু প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি ও সিনেটের সংখ্যালঘু অংশের নেতা চাক শুমার এ অর্থ দিতে অস্বীকৃতি জানান।

এর পর পরই ডোনাল্ড ট্রাম্প ওই বৈঠক থেকে বেরিয়ে আসেন। তিনি পরে শীর্ষ দুই ডেমোক্র্যাট নেতার সঙ্গে বৈঠককে সময় নষ্ট হিসেবেও অভিহিত করেন।

অর্থ বিল নিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্টের সঙ্গে ডেমোক্র্যাটদের সমঝোতা না হওয়ায় চলতি সপ্তাহে প্রায় আট লাখ সরকারি কর্মী বেতনহীন অবস্থায় থাকতে যাচ্ছেন।

ট্রাম্প পরে টুইটারে জানান, বৈঠক থেকে বেরিয়ে আসার সময় তিনি ডেমোক্র্যাটদের বাই বাই বলেছেন।

মন্তব্য

মতামত দিন

আমেরিকা পাতার আরো খবর

যুক্তরাষ্ট্রের মুসলিম অভিবাসীদের এক বিজয়গাঁথা রোমাঞ্চকর গল্প

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএনওয়াশিংটন: বছর দুয়েক আগে এক শীতের মধ্যেই স্থানীয় উদ্বাস্তুদের সম্পর্কে নির্বাচিত গণ-প্রতিনিধি এব . . . বিস্তারিত

ইসলাম বর্তমান বিশ্বের সবচেয়ে দ্রুত বর্ধনশীল আদর্শ, কেন এমনটি হচ্ছে?

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএনসান ফ্রান্সিস্কো: ইসলাম হচ্ছে বর্তমান বিশ্বের সবচেয়ে দ্রুত বর্ধনশীল একটি ধর্ম বা আদর্শ। কেন এমন . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com