নির্বাচনে নিরঙ্কুশ ফলাফল বাংলাদেশের গণতন্ত্রের জন্য হুমকি: ওয়াশিংটন পোস্ট

০১ জানুয়ারি,২০১৯

নির্বাচনের নিরঙ্কুশ ফলাফল বাংলাদেশের গণতন্ত্রের জন্য হুমকি: ওয়াশিংটন পোস্ট

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আরটিএনএন
ওয়াশিংটন: প্রভাবশালী মার্কিন পত্রিকা ওয়াশিংটন পোস্ট বাংলাদেশের জাতীয় নির্বাচন নিয়ে সোমবার একটি বিশ্লেষণমূলক সম্পাদকীয় প্রকাশ করেছে। এতে নির্বাচনের ফলাফলের বিভিন্ন দিক বিশ্লেষণ করেন ওয়াশিংটন পোস্টের ইন্ডিয়া ব্যুরো চিফ জোয়ানা স্লেটার।

স্লেটার বলেন, রোববার (৩০ ডিসেম্বর) বিশ্বের অষ্টম সবচেয়ে জনবহুল দেশ বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত নির্বাচনটিকে এক দশকের মধ্যে প্রথম প্রতিযোগিতামূলক হিসেবে আখ্যায়িত করা হয়।

কিন্তু ফলাফল আর যাই হোক প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হয়নি। ক্ষমতাসীন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তার জোট অংশীদারেরা সংসদের ৩০০ আসনের মধ্যে ২৮৮তে জয়ী হয়েছে।

এত ব্যবধানে জয় (৯৮ শতাংশ)-সংবলিত ফলাফল উত্তর কোরিয়ার মতো দেশে প্রত্যাশিত হলেও বাংলাদেশের মতো গণতান্ত্রিক দেশে প্রত্যাশিত নয়।

আর ঠিক এটিই সমস্যা: ফলাফল বাংলাদেশের ক্রমবর্ধমান হারে হয়ে ওঠা স্বৈরাচারী নেতা হাসিনা ক্ষমতার মুঠো সুসংহত করলেও এ জন্য তাকে নিজের নির্বাচনী বৈধতার মূল্য দিতে হয়েছে, মন্তব্য করেন স্লেটার।

বিরোধী দল ভারসাম্যহীন ফলাফল প্রত্যাখ্যান করেছে। বিরোধী জোটের নেতা শ্রদ্ধাভাজন আইনজীবী ও হাসিনার আওয়ামী লীগের সাবেক সদস্য ড. কামাল হোসেন বলেছেন, জালিয়াতির এই নির্বাচন বাতিল করার জন্য আমরা নির্বাচন কমিশনের কাছে যাব, নতুন নির্বাচন দাবি করব।

তবে প্রধান নির্বাচন কমিশনার সোমবার নতুন নির্বাচনের দাবি প্রত্যাখ্যান করেছেন। অর্থাৎ নির্বাচনটি হাসিনাকে তার ক্ষমতা ধরে রাখার ফরমুলা বহাল রাখার ব্যবস্থা করবে: শক্তিশালী অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির সাথে রাজনৈতিক বিরোধী ও তার সরকারের সমালোচকদের প্রতি দমনপীড়ন অব্যাহত থাকা।

বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা রাষ্ট্রপতির মেয়ে হাসিনা (৭১)। ১৯৯১ সাল থেকে দেশটিতে গণতান্ত্রিক নির্বাচন হচ্ছে। এতে হাসিনার আওয়ামী লীগ ও বিএনপি পালাক্রমে ক্ষমতায় রয়েছে।

বাংলাদেশের নির্বাচন শান্তিপূর্ণ বিষয় নয়। প্রধান দুটি দলের সমর্থকেরা সাধারণভাবে রাজপথে সহিংসতায় মেতে ওঠে। পুলিশের এক মুখপাত্রের মতে, রোববার অন্তত ১৭ জন নিহত হয়েছে।

বেশির ভাগ বিশেষজ্ঞ নির্বাচনে হাসিনার জয়ের ভবিষ্যদ্বাণী করলেও এ ধরনের মাত্রায় ভূমিধস বিজয়ের প্রত্যাশা করেছে খুব কম লোকই। ২০১৪ সালে বিরোধী দলের বয়কটে ও অনেক আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতাহীনভাবে অনুষ্ঠিত আগের জাতীয় নির্বাচনের চেয়েও এবার হাসিনার আওয়ামী লীগ অনেক ভালো করেছে।

ভোটকেন্দ্রগুলোতে অনিয়মের অনেক খবর পাওয়া গেছে। কিন্তু পর্যবেক্ষকেরা বলছেন, রোববারের আগেই মাঠ নিজের অনুকূলে নিয়ে নিতে হাসিনা অন্যান্য উপায় অবলম্বন করেছে।

বিরোধী প্রার্থীরা বলছেন, নির্বাচনী প্রচারণা চালানোর সময় তারা সহিংসতা, হুমকি ও হয়রানির মুখে পড়েছেন। বিএনপি জানিয়েছে, বানোয়াট অভিযোগে তাদের বেশ কয়েজন প্রার্থীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। রাজধানী ঢাকায় বিরোধী প্রার্থীদের পোস্টার দেখা ছিল দুর্লভ ঘটনা।

হাসিনা সোমবার ভোট জালিয়াতির অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করে সাংবাদিকদের বলেছেন যে তিনি অবাধ নির্বাচন নিশ্চিত করার চেষ্টা করেছেন, বিরোধী দল আরো সক্রিয়ভাবে নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ না নেয়ায় তিনি অবাক হয়েন বলে রয়টার্স খবর পরিবেশন করেছে।

এদিকে বাংলাদেশের ভোটারেরা কঠিন বিকল্পের মুখে পড়েছেন। হাসিনা ভিন্নমতের প্রতি ক্রমবর্ধমান হারে অসহিষ্ণু হয়ে পড়েছেন, ক্ষমতা ত্যাগ করার কোনো আগ্রহ দেখাচ্ছেন না। তবে তিনি অর্থনীতিতে তেজিভাব সৃষ্টি করতে পেরেছেন, দারিদ্র হ্রাসে তাৎপর্যপূর্ণ অগ্রগতি হাসিল করেছেন। মিয়ানমারের নির্যাতন থেকে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গা উদ্বাস্তুদের জন্য দরজা খুলে তিনি প্রশংসা অর্জন করেছেন।

প্রতিবেশী ভারতসহ অনেকে হাসিনাকে বাংলাদেশে ইসলামি চরমপন্থীদের সম্ভাব্য বিস্তারের বিরুদ্ধে মিত্র মনে করে।

প্রধান বিরোধী দল বিএনপি বিশৃঙ্খল অবস্থায় পড়েছে। হাসিনার সাবেক প্রতিদ্বন্দ্বী খালেদা জিয়া দুর্নীতির অভিযোগে কারাবন্দি রয়েছেন। অক্টোবরে তার ছেলেকে, তিনি ব্রিটেনে থাকেন, অপর ১৯ জনের সাথে হাসিনাকে হত্যাচেষ্টার অভিযোগে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

রোববারের নির্বাচনের পর বাংলাদেশ একদলীয় গণতান্ত্রিক দেশে পরিণত হয়েছে বলে নয়া দিল্লির প্রখ্যাত রাজনৈতিক ভাষ্যকার কাঞ্চন গুপ্ত লিখেছেন। হাসিনার সামনে উল্লেখযোগ্য কোনো প্রতিদ্বন্দ্বী নেই।

বাংলাদেশ রাষ্ট্রবিজ্ঞান সমিতির সভাপতি আতাউর রহমানের মতে, হাসিনার বিপুল বিজয় নির্বাচনের নিরপেক্ষতা নিয়ে ‘মারাত্মক সন্দেহের’ সৃষ্টি করেছে। তিনি বলেন, বিরোধী দলের অতি নগন্য আসনের অর্থও রাজনৈতিক জবাবদিহিতার ব্যবস্থা না থাকা।

অ্যাক্টিভিস্ট ও সাংবাদিকেরা ভয়ের পরিবেশের কথা বলেছেন। অর্থাৎ সরকারের সমালোচকরা মারাত্মক পরিণতির মুখে পড়তে পারেন সেপ্টেম্বরে সরকার নতুন ‘ডিজিটাল সিকিউরিটি’ অ্যাক্ট পাস করে। এতে কিছু ধরনের ‘প্রপাগান্ডা’য় কারাদণ্ডের বিধান রয়েছে। সম্পাদকেরা বলছেন, এটি সংবাদপত্রের স্বাধীনতা খর্ব করবে।

দীর্ঘ দিন ধরে বাংলাদেশে নির্বাচনী পর্যবেক্ষক হিসেবে দায়িত্ব পালনকারী এক পর্যবেক্ষক বলেন, বাংলাদেশে উন্নয়ন কাহিনী একটি ঊর্ধ্বমুখী রেখা, আর গণতন্ত্র কাহিনী নিম্নমুখী রেখা। বাংলাদেশের রাজনৈতিক পরিবেশের কারণে তিনি তার পরিচয় প্রকাশ করতে রাজি হননি।

প্রখ্যাত ফটোগ্রাফার শহিদুল আলম আগস্টে গ্রেফতার হয়ে তিন মাসের বেশি কারাগারে ছিলেন গত গ্রীষ্মে সারা বাংলাদেশে ছড়িয়ে পড়া নিরাপদ সড়ক আন্দোলন সম্পর্কে ‘উস্কানিমূলক’ বক্তব্য প্রদান করার অভিযোগে।

সম্প্রতি এক টেলিভিশন সাক্ষাতকারে আলম বলেন, যদি কারো স্বাধীনতা কেড়ে নেয়াকে সর্বোচ্চ শাস্তি প্রদান বলে বিবেচনা করা হয়, তবে পুরো জাতি সার্বক্ষণিক এই শাস্তি পেয়ে যাচ্ছে। তা কোনোভাবেই উন্নয়নের মূল্যে হতে পারে না, বলেন তিনি।

মন্তব্য

মতামত দিন

আমেরিকা পাতার আরো খবর

যুক্তরাষ্ট্রের মুসলিম অভিবাসীদের এক বিজয়গাঁথা রোমাঞ্চকর গল্প

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএনওয়াশিংটন: বছর দুয়েক আগে এক শীতের মধ্যেই স্থানীয় উদ্বাস্তুদের সম্পর্কে নির্বাচিত গণ-প্রতিনিধি এব . . . বিস্তারিত

ইসলাম বর্তমান বিশ্বের সবচেয়ে দ্রুত বর্ধনশীল আদর্শ, কেন এমনটি হচ্ছে?

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএনসান ফ্রান্সিস্কো: ইসলাম হচ্ছে বর্তমান বিশ্বের সবচেয়ে দ্রুত বর্ধনশীল একটি ধর্ম বা আদর্শ। কেন এমন . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com