সর্বশেষ সংবাদ: |
  • ব্রিটিশ হাইকমিশনারকে আমাদের উদ্বেগের বিষয়গুলো জানিয়েছি: ড. কামাল
  • দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন নিয়ে সুজনের সংশয়, বিতর্কিত নির্বাচন হলে দেশের তরুণরাই বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হবে : বদিউল আলম মজুমদার
  • জিয়া অরফানেজ মামলায় রায়ের বিরুদ্ধে খালেদা জিয়ার আপিল, সাজা স্থগিত ও জামিন চাওয়া হয়েছে, নির্বাচনে বাধা নেই : ব্যারিস্টার কায়সার কামাল
  • বিকল্পধারার চেয়ারম্যান ডা. বদরুদ্দোজা চৌধুরীর সঙ্গে ভারতীয় হাইকমিশনার হর্ষবর্ধন শ্রিংলার বৈঠক চলছে
  • তারেক রহমানের ভিডিও কনফারেন্স বিএনপির অভ্যন্তরীণ বিষয়

হাড্ডাহাড্ডি লড়াই

যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যবর্তী নির্বাচনে নিম্নকক্ষে ডেমোক্র্যাটরা, সিনেটে রিপাবলিকানরা এগিয়ে

০৭ নভেম্বর,২০১৮

যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যবর্তী নির্বাচনে নিম্নকক্ষে ডেমোক্র্যাটরা, সিনেটে রিপাবলিকানরা এগিয়ে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আরটিএনএন
ওয়াশিটন: যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যবর্তী নির্বাচনে ভোটগ্রহণ শেষে গণনা চলছে। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত রিপাবলিকান ও ডেমোক্র্যাটদের হাড্ডাহাড্ডি লড়াই চলছে।

বিবিসি এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রেসিডেন্সি বিষয়ে গণভোট হিসেবে দেখা হচ্ছে এই মধ্যবর্তী নির্বাচনকে। এতে ৫০টি অঙ্গরাজ্যে ভোট গ্রহণ হয় । অন্যবারের চেয়ে এবার ভোটারের উপস্থিতি অনেক বেশি।

এই নির্বাচনের মাধ্যমে নিম্নকক্ষ বা হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভসের ৪৩৫ জন প্রার্থী নির্বাচিত হচ্ছেন এবং উচ্চ কক্ষের ১০০ আসনের মধ্যে ৩৫ জন নির্বাচিত হচ্ছেন। পাশাপাশি ৫০টি অঙ্গরাজ্যের মধ্যে ৩৬টির গভর্নরও এতে নির্বাচিত হচ্ছেন।

সর্বশেষ খবর দ্যা গার্ডিয়ান ও সিবিএস নিউজের খবরে ভোট গণনায় নিম্নকক্ষ বা হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভসে ডেমোক্র্যাটরা এবং সিনেটে রিপাবলিকানরা এগিয়ে রয়েছে। হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভসে ২১৯টিতে ডেমোক্র্যাটরা ও ১৯৩টিতে রিপাবলিকানরা এগিয়ে রয়েছে। অন্যদিকে সিনেটে রিপাবলিকানরা ৫১টিতে এবং ডেমোক্র্যাটরা ৪৫টিতে এগিয়ে। ভোট গণনা এখনো চলছে।

এর ফলে যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যবর্তী নির্বাচনে প্রতিনিধি পরিষদ বা ‘হাউজ অব রিপ্রেজেন্টেটিভস’-এর নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে ডেমোক্র্যাটরা।

আট বছরে প্রথমবারের মত কংগ্রেসের নিম্নকক্ষের নিয়ন্ত্রণ নেয়ার ফলে ডেমোক্র্যাটরা প্রেসিডেন্টের প্রস্তাবে বাঁধা দেয়ার ক্ষমতা অর্জন করলো।

তবে মার্কিন সিনেটের নিয়ন্ত্রণ দখলে রেখেছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের রিপাবলিকান দল।

আর হাউজের আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছেন নারী প্রার্থীরা।

কী হচ্ছে হাউজ নির্বাচনে?
যুক্তরাষ্ট্রে বিবিসি’র সহযোগী নেটওয়ার্ক সিবিএস'এর হিসাব অনুযায়ী, কংগ্রেসের নিম্নতর কক্ষের নিয়ন্ত্রণ নেয়ার জন্য প্রয়োজনীয় ২৩টি আসনে জয় পাবে ডেমোক্র্যাটরা।

হাউজের ৪৩৫ টি আসনের সবকটিতেই অনুষ্ঠিত হয়েছে ভোট।

এখন ডেমোক্র্যাটরা ট্রাম্পের প্রশাসন এবং ব্যবসায়িক কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে তদন্ত পরিচালনা করতে পারবে।

প্রেসিডেন্টের আইন প্রণয়ন সংক্রান্ত পরিকল্পনাতেও বাঁধা দিতে পারবে ডেমোক্র্যাটরা।

নিউ ইয়র্কের ডেমোক্র্যাট আলেক্সান্দ্রিয়া ওকাসিও-কর্তেজ কংগ্রেসে সর্বকনিষ্ঠ নারী হিসেবে যোগদান করে ইতিহাস তৈরি করতে পারেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

মিনেসাটা এবং মিশিগান রাজ্যের দুই ডেমোক্র্যাট রাজনীতিবিদও হতে যাচ্ছেন ইতিহাসের অংশ। ইলহান ওইমার এবং রাশিদা ত্লাইব মার্কিন কংগ্রেসে প্রথম মুসলিম নারী হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন।

প্রথম স্থানীয় অ্যামেরিকান নাগরিক হিসেবে কংগ্রেসে নির্বাচিত হয়েছেন ক্যানসাস রাজ্যের শারিস ডেভিডস এবং নিউ মেক্সিকো রাজ্যের ডেব্রা হালান্ড।

ক্যানসাস থেকে নির্বাচিত হওয়া প্রথম সমকামী কংগ্রেস প্রতিনিধিও মিজ ডেভিডস।

সিনেট নির্বাচনে কী হচ্ছে?
কংগ্রেসের ঊর্ধ্বতন কক্ষে রিপাবলিকানরা সংখ্যাগরিষ্ঠতা ধরে রাখলেও সেখানে তাদের অবস্থান খুব একটা শক্ত নয়।

সিনেটে তাদের আসন ৫১টি আর ডেমোক্র্যাটদের আসন ৪৯টি।

যদিও সিনেট নির্বাচনে কিছুটা সুবিধাজনক অবস্থানে ছিল রিপাবলিকানরা।

এবারের সিনেট নির্বাচনে ডেমোক্র্যাটদের লড়াই করতে হয়েছে ২৬টি আসনের জন্য।

সেখানে রিপাবলিকানরা লড়াই করেছে মাত্র ৯টি আসনে।

বিবিসি’র প্রতিবেদক অ্যান্থনি যুরখারের বিশ্লেষণ অনুযায়ী, সিনেটে রিপাবলিকানদের সংখ্যাগরিষ্ঠতা থাকায় প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তার নির্বাহী এবং বিচারিক ক্ষমতা ব্যবহারের যথেষ্ট সুযোগ পাবেন।

তবে হাউজ অব রিপ্রেজেন্টেটিভসে ডেমোক্র্যাট সংখ্যাগরিষ্ঠতা থাকায় প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের আইন প্রণয়ন বিষয়ক যে কোনো প্রস্তাবে বাধা দেয়ার ক্ষমতা থাকবে তাদের হাতে।

মন্তব্য

মতামত দিন

আমেরিকা পাতার আরো খবর

দাবানলে যুক্তরাষ্ট্রে নিখোঁজের সংখ্যা বেড়ে ১৩০০, নিহত ৭৬

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএনক্যালিফোর্নিয়া: মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার উত্তরাঞ্চলে মার্কিন ইতিহাসের সবচেয়ে ভয়াব . . . বিস্তারিত

খাসোগি হত্যার নির্দেশ দিয়েছিলেন স্বয়ং সৌদি যুবরাজ: সিআইএ’র রিপোর্ট

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএনওয়াশিংটন: মার্কিন গুপ্তচর সংস্থা সিআইএ বিশ্বাস করে সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানই আসলে সাংবাদ . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com