সর্বশেষ সংবাদ: |
  • আজ যারা মনোনয়নপত্র ফিরে পেয়েছেন- নঈম জাহাঙ্গীর (জামালপুর-৩); আব্দুল কাঈয়ুম খান (নেত্রকোনা-১); এ কে এম লুৎফর রহমান (ময়মনসিংহ-১); চৌধুরী মোহাম্মদ ইসহাক (ময়মনসিংহ-৬); জেড খান মোহাম্মদ রিয়াজ উদ্দিন (চাঁদপুর-৪); মো. মহিউদ্দিন মোল্লা (ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২); মো. নাসির উদ্দিন (চট্টগ্রাম-৫); মামা চিং (বান্দরবান); সৈয়দ মাহামুদুল হক (ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৩); এম মোরশেদ খান (চট্টগ্রাম-৮); মো. আবু বকর সিদ্দিক (রাজশাহী-৫), মো. আবু সহিদ চাঁদ (রাজশাহী-৬); আলেয়া বেগম (জয়পুরহাট-১); মো. মজিবুর রহমান (রাজশাহী-১); মো. ইবাদুল খালাসী (যশোর-৫); মো. তছির উদ্দিন (কুষ্টিয়া-৪); আবু তালেব সেলিম (ঝিনাইদহ-২); মো. সাজেদুর রহমান (যশোর-১); লিটন মোল্লাহ (যশোর-৪); রবিউল ইসলাম (যশোর-৫); মোছা. মেরিনা আক্তার (চুয়াডাঙ্গা-১)।
  • ইতালির একটি নৈশক্লাবে আতঙ্কিত জনতার হুড়োহুড়িতে ছয় জনের প্রাণহানি, আহত ১০০
  • ২০৬ আসনে বিএনপির একক প্রার্থী চূড়ান্ত, শরিকদের জন্য ছেড়ে দেওয়া হয়েছে ৯৪টি আসন

জ্যাকেট নিয়ে মুখ খুললেন যুক্তরাষ্ট্রের ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্প

১৪ অক্টোবর,২০১৮

জ্যাকেট নিয়ে মুখ খুললেন যুক্তরাষ্ট্রের ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্প

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আরটিএনএন
মার্কিন: কয়েক মাস আগে যুক্তরাষ্ট্রের ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্প এমন একটি জ্যাকেট পরেছিলেন যেটা নিয়ে ব্যাপক আলোচনা হয়েছিল। ওই জ্যাকেটটি আহামরি ধরনের কিছু ছিল না। দাম মাত্র ৩৯ ডলার।

কিন্তু এর পেছনে এমন একটা কথা লেখা ছিল যা নিয়ে প্রচুর কথাবার্তা হয়। জ্যাকেটের পেছনে লেখা ছিল, “আই রিয়েলি ডোন্ট কেয়ার, ডু ইয়ু?” যার অর্থ “আমি আসলেই কিছু তোয়াক্কা করি না। তুমি কি করো?” খবর বিবিসির।

যুক্তরাষ্ট্রে অভিবাসী শিশুদের একটি কেন্দ্র, যেখানে তাদেরকে আটকে রাখা হয়েছিল, সেটি পরিদর্শনে যাওয়ার সময় প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের স্ত্রী এই জ্যাকেটটি পরেছিলেন।

জুন মাসের ঘটনা এটি। তখন এটা নিয়ে কথাবার্তা শুরু হলে ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছিলেন, যেসব সংবাদ মাধ্যম ‘ফেইক নিউজ’ বা ভুয়া খবর ছড়ায় জ্যাকেটের ওই বার্তাটি ছিল তাদের জন্যে।

মেলানিয়া ট্রাম্পের কমিউনিকেশন্স বিভাগের প্রধান তখন বলেছিলেন, এটা নিয়ে এতো কথার কি আছে, এটা শুধুই একটা জ্যাকেট!

কিন্তু এখন এসব কথাবার্তার একটা জবাব পাওয়া গেছে এবং সেটা এসেছে খোদ মেলানিয়া ট্রাম্পের মুখ থেকেই। তিনি জানিয়েছেন, ওই জ্যাকেট পরার মধ্য দিয়ে তিনি আসলে একটি বার্তাই দিতে চেয়েছিলেন।

মেলানিয়া ২১শে জুন টেক্সাসের ম্যাকঅ্যালেনে নিউ হোপ চিলড্রেন্স শেল্টারে অভিবাসী শিশুদের দেখতে গিয়েছিলেন।

তখন সেখানে ৫৫টি শিশু ছিল। তাদের মধ্যে কয়েকজনকে আবার তাদের পিতামাতার কাছ থেকে আলাদা করে ওই কেন্দ্রে এনে আটকে রাখা হয়।

অবৈধ অভিবাসনের বিরুদ্ধে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প প্রশাসনের ‘জিরো টলারেন্স’ নীতির অংশ হিসেবেই শিশুদেরকে তাদের বাবা মায়ের কাছ থেকে আলাদা করে ওই কেন্দ্রে রাখা হয়েছিল

ওই কেন্দ্রটিতে যাওয়া এবং সেখান থেকে ফিরে আসার সময় এরকম একটি লেখার জ্যাকেট পরার কারণে বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছিল। অনেকেই বলেছিলেন এরকম একটি সফরে যাওয়ার সময় তার এটি পরা ঠিক হয়নি।

অবশ্য মেলানিয়া ট্রাম্প ওই কেন্দ্রে প্রবেশের আগে জ্যাকেটটি খুলে ফেলেছিলেন।

এই জ্যাকেট পরে তিনি কী ধরনের বার্তা দিতে চেয়েছেন সেটা নিয়ে তখন প্রচুর জল্পনা-কল্পনা হয়েছে। কিন্তু এসবের জবাবে তার মুখপাত্র তখন বলেছিলেন, “এর পেছনে আসলে কোন বার্তা লুকানো ছিল না।”

ঘটনার চার মাস পরে এসে মুখ খুলেছেন মেলানিয়া ট্রাম্প। এবিসি নিউজ মিডিয়াকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন, “আমি বাচ্চাদের জন্যে এই জ্যাকেট পরিনি। অবশ্যই আমি একটা বার্তা দিতে চেয়েছিলাম।”

তাহলে কাদের জন্যে ছিল এই বার্তা?

তিনি বলেন, “এটা ছিল তাদের জন্যে এবং সেসব মিডিয়ার জন্যে যারা আমার সমালোচনা করছিল। আমি তাদেরকে দেখাতে চেয়েছি যে আমি তোয়াক্কা করি না।”

“আপনি সমালোচনা করে আমাকে যা ইচ্ছা বলতে পারেন। কিন্তু আমি যেটা সঠিক বলে মনে করি - এসব সমালোচনা আমাকে সেটা করা থেকে বিরত রাখতে পারবে না।”

যেসব সংবাদ মাধ্যম তার পোশাক আশাক নিয়ে নিউজ করেন তাদেরও তিনি সমালোচনা করেছেন।

“আমি প্রায়শই নিজেকে জিজ্ঞেস করি, আমি যদি ওই জ্যাকেটটা না পরতাম, আমাকে নিয়ে কি মিডিয়া এতো কভারেজ দিতো? আমি চাই আমি কি পরে আছি তার পরিবর্তে আমি কি করছি - তারা যেন সেদিকে বেশি দৃষ্টি দেয়।

তবে সাংবাদিকরা বলছেন, তার স্বামী ডোনাল্ড ট্রাম্প যতদিন হোয়াইট হাউজে আছেন, ততদিন ফাস্ট লেডি কি কাপড় পরছেন সেটা নিয়ে কথাবার্তা থামবে না।

আর এসব পোশাকে যদি কোন কথা লেখা থাকে তাহলে তার প্রকাশ্য বা অপ্রকাশ্য কী বার্তা সেটা তারা খুঁজে বের করার চেষ্টা চালিয়েই যাবেন।

মন্তব্য

মতামত দিন

আমেরিকা পাতার আরো খবর

খাসোগি হত্যার জন্য সৌদি যুবরাজকে দায়ী করে মার্কিন সিনেটে প্রস্তাব

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএনওয়াশিংটন: মার্কিন সিনেটে আনা নতুন একটি প্রস্তাবে বলা হয়েছে, সৌদি আরবের প্রখ্যাত সাংবাদিক জামাল . . . বিস্তারিত

‘নেতারা ভুল পথে হাঁটছেন, ইসলামহীন হয়ে পড়লে যুক্তরাষ্ট্রের ধ্বংস অনিবার্য’

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএনওয়াশিংটন: যুক্তরাষ্ট্রের বোস্টন শহরের রক্সবারি এলাকার ‘Mosque Praise Allah’(আল্লাহ . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com