ট্রাম্প নৈতিকভাবে প্রেসিডেন্ট থাকার যোগ্য নন: সিআইএ’র সাবেক পরিচালক

১৬ এপ্রিল,২০১৮

ট্রাম্প নৈতিকভাবে প্রেসিডেন্ট থাকার যোগ্য নন: সিআইএ’র সাবেক পরিচালক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আরটিএনএন
ওয়াশিংটন: মার্কিন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা -সিআইএ’র সাবেক পরিচালক জেমস কোমি বলেছেন, ডোনাল্ড ট্রাম্প নৈতিকভাবে আমেরিকার প্রেসিডেন্ট থাকার যোগ্য নন।

কোমি অভিযোগ করেন, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প নারীদেরকে ‘মাংশের টুকরো’ বলে মনে করেন।

মার্কিন এবিসি টেলিভিশনের ২০/২০ অনুষ্ঠানে জেমস কোমি এসব কথা বলেছেন। সিআইএ’র পরিচালক পদ থেকে বরখাস্ত হওয়ার এক বছর পর এই প্রথম তিনি কোনো টেলিভিশনকে সাক্ষাৎকার দিলেন। মঙ্গলবার ‘অ্যা হাইয়ার লয়্যালটি’ নামে কোমির একটি বই প্রকাশের কথা রয়েছে। তার আগে এবিসি টেলিভিশন চ্যানেল কোমিকে ২০/২০ অনুষ্ঠানের অতিথি করল।

কোমি সুস্পষ্ট করে বলেছেন, তিনি মনে করেন না ট্রাম্প শারীরিকভাবে প্রেসিডেন্ট হওয়ার অনুপযুক্ত, কিন্তু নৈতিকভাবে তিনি প্রেসিডেন্ট থাকার উপযুক্ত নন।

কোমি আরো বলেন, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প চ্যারলোত্তেসভিলের মতো নারীদেরকে গোশতের টুকরো মনে করেন, যিনি ছোট বড় যেকোনো বিষয়ে লাগাতার মিথ্যা কথা বলেন এবং পীড়িপীড়ি করেন যে, আমেরিকার লোকজন তা বিশ্বাস করে- সেই ব্যক্তি নৈতিকতার জায়গা থেকে আমেরিকার প্রেসিডেন্ট থাকার যোগ্য নন।

সূত্র: পার্স টুডে

আরো পড়ুন…
ট্রাম্প আমেরিকার জন্য বিপজ্জনক: সাবেক মার্কিন রাষ্ট্রদূত
ইরাকে নিযুক্ত মার্কিন সাবেক রাষ্ট্রদূত জোসেফ উইলসন বলেছেন, প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প হচ্ছেন আমেরিকার জন্য বিপজ্জনক এক ব্যক্তি।

তিনি বলেন, এটা এখন একেবারেই পরিষ্কার যে, ইরাক যুদ্ধের বিষয়ে তৎকালীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জর্জ ডাব্লিউ বুশের বিরুদ্ধে ট্রাম্পের প্রচারণা চালানোর কারণ ছিল শুধুমাত্র আমেরিকার প্রেসিডেন্টের পদ দখল করা।

ট্রাম্পের উপদেষ্টারা তার মন পাল্টে দিতে পারেন কিনা কিংবা প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প তার উপদেষ্টাদের মন বদলে দিতে পারেন কিনা- এমন এক প্রশ্নের জবাবে জোসেফ উইলসন বলেন, আমি মনে করি প্রকৃতপক্ষে তার কোনো মন নেই, মূলত তিনি একজন অর্থলোলুপ ব্যক্তি। তিনি প্রতিটি দিন শুধু এই চিন্তার মধ্যদিয়ে পার করেন যে, তিনি কত বেশি ডলার তার ব্যাংক অ্যাকাউন্টে জমা করতে পারলেন।

সাবেক এ রাষ্ট্রদূত আরো বলেন, আমি মনে করি এই লোকটা আমেরিকার জন্য খুবই বিপজ্জনক ব্যক্তি।

রাসায়নিক হামলার অভিযোগ তুলে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প শনিবার সিরিয়ার বিভিন্ন সামরিক ও বেসামরিক লক্ষ্যবস্তুতে ক্ষেপণাস্ত্র হামলার নির্দেশ দেন। কিন্তু যে অভিযোগে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা করা হয়েছে সে বিষয়ে সঠিক কোনো তথ্য-প্রমাণ তুলে ধরতে পারেন নি ট্রাম্প।

মন্তব্য

মতামত দিন

আমেরিকা পাতার আরো খবর

নিরাপত্তা পরিষদের ৫ সদস্য মানেই গোটা বিশ্ব নয়: এরদোগান

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএননিউইয়র্ক: তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোগান বলেছেন, জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের পাঁচ সদ . . . বিস্তারিত

স্কুলের খরচ জোগাতে নিজের চুল বিক্রি সেলুনে চুল কাটা, অতঃপর হালিমার বিশ্বজয়

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএনওয়াশিংটন: কেন্ডাল জেনার এবং গিগি হাদিদ এমন একটি যুগে জন্ম নিয়েছেন যখন ফ্যাশন শিল্পে কাজ করার জন . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com