তুষারঝড়ে লন্ডভন্ড আমেরিকা, স্নো এমার্জেন্সি জারি মিনেসোটায়

১৫ এপ্রিল,২০১৮

তুষারঝড়ে লন্ডভন্ড আমেরিকা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আরটিএনএন
ওয়াশিংটন: প্রাকৃতিক দুর্যোগে নাকাল আমেরিকার একটি বড় অংশ। টর্নেডো, বসন্ত ঝড়, বজ্রবিদ্যুৎ সহ তুমুল বৃষ্টিপাত আর তুষার ঝড়ে ওলটপালট হয়ে গিয়েছে মিনেসোটা, নেব্রাস্কা, আইওয়া, দক্ষিণ ডাকোটা, মিসিসিপি থেকে শুরু করে টেক্সাস থেকে আলাবামার মধ্যাঞ্চল পর্যন্ত।

মিনেসোটার সেন্ট পল শহরে জারি করা হয়েছে ‘স্নো এমার্জেন্সি’। তুষার পড়ছে ঘণ্টায় ১ থেকে ২ ইঞ্চি (২ থেকে ৫ সেন্টিমিটার) করে।

যে হারে তুষারপাত হচ্ছে, তাতে আবহাওয়াবিদরা মনে করছেন, মিনেসোটা, মিশিগান ও উইসকনসিনে এ বার ১ ফুট পুরু তুষার জমবে।

ন্যাশনাল ওয়েদার সার্ভিস (এনডব্লিউএস) জানিয়েছে, ডুলুথ ও মিনেসোটায় ঝড় বইবে ঘণ্টায় ৫০ মাইল বা ৮০ কিলোমিটার গতিবেগে।

এনডব্লিউএসের খবর, মিসিসিপির জ্যাকসনের কাছাকাছি এলাকায় ঘণ্টায় ৯০ মাইল বা ১৪৫ কিলোমিটার গতিবেগে ঝড় হয়েছে। উত্তর প্রান্তের নিউ ইংল্যান্ডেও সোমবার তুষার বৃষ্টি ও তুষার ঝড় হতে পারে বলে আবহাওয়াবিদদের পূর্বাভাস।

গত শুক্রবার ছোটখাটো ১৭টি টর্নেডো হয়েছে আরকানসাস, লুইজিয়ানা, মিসৌরি ও টেক্সাসে। তাতে উত্তর-পশ্চিম আরকানসাসে ১৬০টি বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। জখম হয়েছেন ৪ জন।

তার আগের দিনই তুমুল ঝড়ে গাছ পড়ে লুইজিয়ানায় একটি ১ বছরের মেয়ের মৃত্যু হয়েছে। মিনেসোটা ও টরন্টো বিমানবন্দরে ৭৫০টি বিমান বাতিল করতে হয়েছে।

আরো পড়ুন…
ট্রাম্প আমেরিকার জন্য বিপজ্জনক: সাবেক মার্কিন রাষ্ট্রদূত
ইরাকে নিযুক্ত মার্কিন সাবেক রাষ্ট্রদূত জোসেফ উইলসন বলেছেন, প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প হচ্ছেন আমেরিকার জন্য বিপজ্জনক এক ব্যক্তি।

তিনি বলেন, এটা এখন একেবারেই পরিষ্কার যে, ইরাক যুদ্ধের বিষয়ে তৎকালীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জর্জ ডাব্লিউ বুশের বিরুদ্ধে ট্রাম্পের প্রচারণা চালানোর কারণ ছিল শুধুমাত্র আমেরিকার প্রেসিডেন্টের পদ দখল করা।

ট্রাম্পের উপদেষ্টারা তার মন পাল্টে দিতে পারেন কিনা কিংবা প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প তার উপদেষ্টাদের মন বদলে দিতে পারেন কিনা- এমন এক প্রশ্নের জবাবে জোসেফ উইলসন বলেন, আমি মনে করি প্রকৃতপক্ষে তার কোনো মন নেই, মূলত তিনি একজন অর্থলোলুপ ব্যক্তি। তিনি প্রতিটি দিন শুধু এই চিন্তার মধ্যদিয়ে পার করেন যে, তিনি কত বেশি ডলার তার ব্যাংক অ্যাকাউন্টে জমা করতে পারলেন।

সাবেক এ রাষ্ট্রদূত আরো বলেন, আমি মনে করি এই লোকটা আমেরিকার জন্য খুবই বিপজ্জনক ব্যক্তি।

রাসায়নিক হামলার অভিযোগ তুলে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প শনিবার সিরিয়ার বিভিন্ন সামরিক ও বেসামরিক লক্ষ্যবস্তুতে ক্ষেপণাস্ত্র হামলার নির্দেশ দেন। কিন্তু যে অভিযোগে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা করা হয়েছে সে বিষয়ে সঠিক কোনো তথ্য-প্রমাণ তুলে ধরতে পারেন নি ট্রাম্প।

মন্তব্য

মতামত দিন

আমেরিকা পাতার আরো খবর

ধূমপান নয়, ক্যান্সারের প্রধান কারণ হবে অতিরিক্ত ওজন

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএনমার্কিন: যুক্তরাজ্যের ক্যান্সার গবেষণা প্রতিষ্ঠানের এক প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২০৪৩ সালের মধ্যে নার . . . বিস্তারিত

ইরানকে আয়নায় মুখ দেখতে যুক্তরাষ্ট্রের আহ্বান

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএনওয়াশিংটন: ইরানে সামরিক কুচকাওয়াজে বন্দুকধারীদের হামলার ঘটনায় সরকারের নিপীড়নমূলক আচরণই কারণ বলে . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com