ব্রেকিং সংবাদ: |
  • ওসির গুলিতে বিএনপি নেতা মাহাবুব উদ্দিন খোকন গুরুতর আহত

মার্কিন প্রশাসনের শীর্ষ পদে ব্যাপক উলটপালট

১৩ মার্চ,২০১৮

মার্কিন প্রশাসনের শীর্ষ পদে ব্যাপক রদবদল

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আরটিএনএন
ওয়াশিংটন: মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এবার বহিস্কার করেছেন মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রী রেক্স টিলারসনকে। তার স্থলে সিআইএ পরিচালক মাইক পম্পকে নতুন পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগের ঘোষণা দিয়েছেন ট্রাম্প। খবর সিএনবিসির।

মঙ্গলবার পররাষ্ট্র মন্ত্রী রেক্স টিলারসনকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে মার্কিন প্রশাসন। এদিকে মাইক পম্পকে নতুন মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রী নিয়োগের ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে তার স্থলে ঘিনাকে সিআইএ পরিচালক হিসেবে নিয়োগের ঘোষণা দেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

ঘিনাই মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএ এর প্রধান হিসেবে প্রথম নারী।

ট্রিলারসনের অপসারণের মাধ্যমে মার্কিন প্রশাসনের শীর্ষ কূটনীতিকের প্রেসিডেন্টের সঙ্গে দীর্ঘ তিক্ত অভিজ্ঞতার যাত্রার অবসান হলো বলে ধারণা করা হচ্ছে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এক টুইটবার্তায় এই নিয়োগের ঘোষণা দিয়ে সবাইকে অভিনন্দন জানান। সেই সঙ্গে ট্রিলারসনকেও শুভেচ্ছা জানান তার সার্ভিসের জন্য।

রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে বিবাদে জড়িয়ে পদ হারিয়েছেন দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রী রেক্স টিলারসন।

প্রতিবেদনে বলা হয়, গত শুক্রবারই টিলারসনকে দায়িত্ব ছাড়ার জন্য বলেছিলেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। সেজন্য আফ্রিকা সফর সংক্ষেপ করে সোমবার দেশে ফিরে আসেন টিলারসন।

দায়িত্বপালনের জন্য টিলারসনকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন ট্রাম্প। একইসঙ্গে বলেছেন , পম্পেই নতুন দায়িত্বে ভালো কাজ করবেন। সিআইএ’র পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পাচ্ছেন উপ-পরিচালক জিনা হ্যাসপেল।

এক বিবৃতিতে ট্রাম্প বলেন, সিআইএ পরিচালক মাইক পম্পেওকে নতুন পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব দিয়ে আমি গর্বিত। ওয়েস্ট পয়েন্টে প্রথমস্থান নিয়ে স্নাতক শেষ করেছেন। সেনাবাহিনীতে দায়িত্বপালন করেছেন। হার্ভাড থেকে আইনে স্নাতক করেছেন। তিনি বারবার নিজেকে প্রমাণ করেছেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘সিআইএ’র উপ-পরিচালক জিনা হ্যাসপেল পম্পেওর স্থলাভিষিক্ত হতে যাচ্ছেন। ফলে তিনিই হচ্ছেন সিআইএর প্রথম নারী পরিচালক। এটা একটা মাইলফলক। মাইক ও জিনা এক বছরের বেশি সময় ধরে একসঙ্গে কাজ করছেন। তাদের মধ্যে দারুণ বোঝাপড়া রয়েছে।’

মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে টিলারসনের প্রশংসা ট্রাম্প বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্রের প্রধান কূটনীতিক হিসেবে টিলারসনের সঙ্গে গত ১৪ মাসে চমৎকার কাজ সম্পন্ন হয়েছে। আমি তার এবং তার পরিবারের মঙ্গল কামনা করি।’

সম্প্রতি টিলারসনের সরে যাওয়ার গুঞ্জন উঠে। শুরু থেকেই মধ্যপ্রাচ্য, কাতার এবং উত্তর কোরিয়া ইস্যুতে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের নেয়া নীতির সঙ্গে একমত হতে পারছিলেন না পররাষ্ট্রমন্ত্রী টিলারসন।

প্রসঙ্গত, ট্রাম্প দায়িত্ব নেয়ার পর একে একে তার গুরুত্বপূর্ণ কর্মকর্তা সরে গেছেন কিংবা সরিয়ে দেয়া হয়েছে। এমন সময় টিলারসনকে সরিয়ে দেয়া হলো, যখন নির্বাচনে রুশ সহায়তা নেয়ার বিতর্কে চাপে আছেন ট্রাম্প।

মন্তব্য

মতামত দিন

আমেরিকা পাতার আরো খবর

খাসোগি হত্যার জন্য সৌদি যুবরাজকে দায়ী করে মার্কিন সিনেটে প্রস্তাব

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএনওয়াশিংটন: মার্কিন সিনেটে আনা নতুন একটি প্রস্তাবে বলা হয়েছে, সৌদি আরবের প্রখ্যাত সাংবাদিক জামাল . . . বিস্তারিত

‘নেতারা ভুল পথে হাঁটছেন, ইসলামহীন হয়ে পড়লে যুক্তরাষ্ট্রের ধ্বংস অনিবার্য’

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএনওয়াশিংটন: যুক্তরাষ্ট্রের বোস্টন শহরের রক্সবারি এলাকার ‘Mosque Praise Allah’(আল্লাহ . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com