ব্রাজিলে প্রেসিডেন্টের অভিশংসনের দাবিতে বিক্ষোভ

১৯ মে,২০১৭

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

আরটিএনএন

ব্রাসিলিয়া: ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট মিশেল তেমারের অভিশংসনের দাবিতে রাজধানী ব্রাসিলিয়া এবং বৃহত্তম শহর সাও পাওলোতে হাজার হাজার মানুষ বিক্ষোভ করেছে।


বিক্ষোভকারীদের অভিযোগ, তেমার দুর্নীতি তদন্তে এক সম্ভাব্য সাক্ষীকে চুপ করাতে ঘুষ দেয়ার অনুমোদন দিয়েছিলেন।


ব্রাজিলের প্রভাবশালী সংবাদপত্র ও গ্লোবোতে সাক্ষীর মুখ বন্ধ করার কথিত এ চেষ্টা নিয়ে খবর বের হয়েছে। অনিয়ম-দুর্নীতির জেরে ক্ষমতা হারানো দিলমা রুসেফের পর প্রেসিডেন্টের দায়িত্বে আসা তেমার এই প্রথম এমন চাপে পড়লেন । অবশ্য এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন তিনি।


ও গ্লোবোর প্রতিবেদনে বলা হয়, একজন জ্যেষ্ঠ ব্যবসায়ীর সঙ্গে তেমারের কথোপকথনের রেকর্ড রয়েছে তাদের কাছে। প্রেসিডেন্ট দুর্নীতি মামলার সাক্ষী রাজনীতিবিদ এদুয়ার্দো চুনহার মুখ বন্ধ করতে অর্থ দেওয়ার জন্য ওই ব্যবসায়ীকে বলেছিলেন। দুর্নীতি, অর্থপাচার এবং কর ফাঁকি দেয়ার দায়ে গত মার্চে কারাগারে পাঠানো হয় চুনহাকে।


মিশেল তেমারের মন্ত্রিসভার এক-তৃতীয়াংশ সদস্যের বিরুদ্ধেই দুর্নীতির অভিযোগের তদন্ত হচ্ছে।


পত্রিকায় রেকর্ডিংয়ের বিষয়বস্তু প্রকাশ পাওয়ার পরই সারা দেশে বিক্ষোভ শুরু হয়। ব্রাজিলের আইন পরিষদ কংগ্রেসেও প্রতিবাদ হয়েছে। বিরোধী নেতারা প্রেসিডেন্টের পদত্যাগ এবং আগাম নির্বাচনের দাবি করেছেন। প্রতিবেদনটি প্রকাশের কয়েক ঘণ্টার মধ্যে দুই দফা অভিশংসন প্রস্তাব উত্থাপন করা হয়েছে কংগ্রেসে। এদিকে প্রেসিডেন্ট তেমার পদত্যাগের কথা নাকচ করে দিয়েছেন।


সূত্র: এএফপি

মন্তব্য

মতামত দিন

আমেরিকা পাতার আরো খবর

নতুন আমেরিকান ট্যাঙ্কার্সে লাভবান ব্যবসায়ীরা, ক্ষতির মুখে জাহাজ মালিকরা

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএনওয়াশিংটন: একসময়কার বিরল আমেরিকান-নির্মিত তেল ট্যাঙ্কারগুলোর সংখ্যা এখন অনেক বেশি। এই সংখ্যা মা . . . বিস্তারিত

‘ট্রাম্পকে হত্যা করা হোক’ মন্তব্য করে পদত্যাগ করলেন মার্কিন সিনেটর

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএনওয়াশিংটন: মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের হত্যা চেয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট দিয়ে প . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান, গোলাম রসুল প্লাজা (তৃতীয় তলা), ৪০৪ দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০।
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com