সর্বশেষ সংবাদ: |
  • গাড়িবহরে হামলার বিষয়ে ড. কামালের সংবাদ সম্মেলন শুক্রবার বিকালে
  • তৃতীয় বেঞ্চে আজ শুনানি হতে পারে খালেদা জিয়ার রিট
  • নির্বাচনী সহিংসতা ‘তৃতীয় শক্তির পাঁয়তারা’ কি না খতিয়ে দেখতে গোয়েন্দা সংস্থাকে নির্দেশ সিইসির

মক্কা মসজিদে হামলায় অভিযুক্তদের খালাস

১৬ এপ্রিল,২০১৮

মক্কা মসজিদে হামলায় অভিযুক্তদের খালাস

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আরটিএনএন
দিল্লি: হায়দারাবাদের মক্কা মসজিদে ১১ বছর আগের বিস্ফোরণ কাণ্ডে অভিযুক্তদের বেকসুর খালাস দিয়ে আদালত। অভিযোগ প্রমাণ করতে না পারায় সোমবার স্থানীয় একটি আদালত তাদের খালাশ দেয়।

২০০৭ সালের ১৮ মে ওই বড়সড় বিস্ফোরণ ঘটেছিল। ঘটনায় ৯ জনের মৃত্যু হয়। জখম হন ৫৮ জন। কিন্তু এনআইএ আদালতে এক জনেরও দোষ প্রমাণ করা যায়নি।

আদালত জানিয়েছে, অভিযুক্তেরা যে বিস্ফোরণে জড়িত ছিল, তা প্রমাণ করতে ব্যর্থ হয়েছে তদন্তকারী সংস্থা ন্যাশনাল ইনভেস্টিগেশন এজেন্সি (এনআইএ)।

ঘটনার দিন শুক্রবারের নামাজ চলাকালীন আচমকাই প্রবল বিস্ফোরণে কেঁপে উঠেছিল হায়দরাবাদের ঐতিহাসিক মক্কা মসজিদ। পুলিশি তদন্তের পর এই বিস্ফোরণ কাণ্ডের তদন্তভার তুলে দেওয়া হয় সিবিআই-এর হাতে। ২০১১ সালে সিবিআই-এর থেকে তদন্ত হাতে নেয় এনআইএ।

জানা যায়, বিস্ফোরণে পাইপ বোমা ব্যবহার করা হয়েছিল। উগ্র হিন্দুত্ববাদী জঙ্গিরা এর পিছনে বলে প্রাথমিক তদন্তে জানা যায়। নাম জড়ায় আরএসএস-এর প্রাক্তন সদস্য অসীমানন্দ ওরফে নবকুমার সরকার-সহ মোট ১০ জনের।

তবে ১০ অভিযুক্তের মধ্যে অবশ্য ধরা পড়েছিলেন মাত্র পাঁচ জন। ধৃতেরা ছিলেন দেবেন্দ্র গুপ্ত, লোকেশ শর্মা, স্বামী অসীমানন্দ ওরফে নবকুমার সরকার, ভরত ভাই এবং রাজেন্দ্র চৌধুরি। অন্যতম অভিযুক্ত সুনীল যোশী ইতিমধ্যে খুন হয়ে যান। নিখোঁজ আরও দু’জন।

বাকি সাত জনের মধ্যে পাঁচ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট জমা দেয় এনআইএ। যাদের প্রত্যেকেই কট্টরপন্থী হিন্দুত্ববাদী সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত। দীর্ঘ ১১ বছর পর পাঁচ জনেই প্রমাণের অভাবে ছাড়া পেয়ে যাওয়ায় নিহতদের পরিবার পরিজনদের এখন একটাই প্রশ্ন— ধৃতেরা যদি দোষী না হয়, তবে বিস্ফোরণ ঘটাল কে?

সূত্র: আনন্দ বাজার

মন্তব্য

মতামত দিন

এশিয়া পাতার আরো খবর

জাপান উপকূলে মার্কিন বিমানের সংঘর্ষ, নিখোঁজ ৫ মেরিন সেনা

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএনটকিও: জাপানের দক্ষিণ-পশ্চিম উপকূলে আমেরিকার দুটি বিমানের সংঘর্ষে অন্তত ৫ মেরিন সেনা নিখোঁজ হয়েছ . . . বিস্তারিত

বাবরি মসজিদ ধ্বংসে তৎকালীন ভারতের প্রধানমন্ত্রী কতটা দায়ী?

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএননয়াদিল্লি: ১৯৯২ সালের ৬ই ডিসেম্বর ছিল রবিবার। রবিবার বলেই একটু দেরী করে সেদিন ঘুম থেকে উঠেছিলে . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com