ছত্তীসগঢ়ে মাওবাদী হামলায় উড়ে গেছে সিআরপির মাইনরোধী গাড়ি, নিহত ৯

১৪ মার্চ,২০১৮

ছত্তীসগঢ়ে মাওবাদী হামলায় উড়ে গেছে সিআরপির মাইনরোধী গাড়ি, নিহত ৯

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আরটিএনএন
রায়পুর: দিন দশেকের ব্যবধানে মধ্য ভারতের রাজ্য ছত্তীসগঢ়ের সুকমায় এ বার পাল্টা আঘাত হানল মাওবাদীরা। প্রায় ৫০ কেজির আইইডি বিস্ফোরক ব্যবহার করে সিআরপি-র একটি মাইনরোধী গাড়ি উড়িয়ে দিয়েছে তারা। বিস্ফোরণ এতটাই তীব্র ছিল যে গাড়িটি মাটি থেকে দশ ফুট উপরে উঠে যায়। তার পর ভেঙেচুরে উল্টে পড়ে। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয়েছে নয় জন সিআরপি জওয়ানের। আহত দুই জওয়ানকে আনা হয়েছে রায়পুরে। খবর আনন্দবাজারের

দুপুর সাড়ে বারোটা নাগাদ দু’টি মাইনরোধী গাড়িতে কিস্টারাম থেকে পালদার দিকে যাচ্ছিলেন সিআরপি জওয়ানরা। সেই সময়েই বিস্ফোরণে উড়ে যায় দ্বিতীয় গাড়িটি। যাতে ছিলেন ১১ জন সিআরপি জওয়ান। মাওবাদীদের বিরুদ্ধে অভিযান ও এলাকার দখল নিতে বেরিয়েছিলেন ২১২ নম্বর ব্যাটেলিয়নের ওই জওয়ানরা। কারণ ওই এলাকায় আজ সকাল আটটা নাগাদ মাওবাদীদের সঙ্গে সিআরপি-র কোবরা বাহিনীর গুলি বিনিময় হয়েছে। কিন্তু সিআরপির সামনে পড়ে পিছু হটে মাওবাদীরা। এর পরেই দুপুরে সিআরপির গাড়িটিকে নিশানা করে তারা। রাস্তায় বিপুল পরিমাণে আইইডি বিস্ফোরক পুঁতে রাখা হয়েছিল। সেখানে সিআরপির গাড়ি পৌঁছতেই বিরাট বিস্ফোরণ।

গত ২ মার্চ মাওবাদী বিরোধী অভিযানে বড়সড় সাফল্য পেয়েছিল তেলঙ্গানা ও ছত্তীসগঢ়ের পুলিশ। খবর মিলেছিল, ছত্তীসগঢ়ের বিজাপুর জেলা ও তেলঙ্গানার ভাদাদরি কোঠাগুদাম জেলায় গভীর জঙ্গলে মাওবাদীদের একটা বড় দল লুকিয়ে রয়েছে। তার পরেই অভিযান চালায় যৌথবাহিনী। যাতে ১০ জন মাওবাদী ও এক জন পুলিশকর্মী নিহত হন। ওই ঘটনার দশ দিন কাটতে না কাটতেই মাওবাদীরা পাল্টা আঘাত হানল। গত বছর ১১ মার্চে এই সুকমাতেই মাওবাদী হামলায় মৃত্যু হয়েছিল ২৫ জন সিআরপি জওয়ানের। ঠিক এক বছর আগের সেই দিন যে ভাবে আইইডি বিস্ফোরণ ঘটিয়ে হামলা চালিয়েছিল মাওবাদীরা, আজকের ঘটনার সঙ্গে তার মিল রয়েছে।

সুকমাতে ক’দিন আগেই গিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী রমন সিংহ। তার পরেই এই ঘটনা। দিল্লিতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংহ সিআরপির ডিজি রাজীব ভাটনগরকে দ্রুত সুকমায় যাওয়ার নির্দেশ দেন। ঘটনায় গভীর শোক জানিয়েছেন তিনি। শোক জানিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও। আর মাওবাদী হামলা নিয়ে নরেন্দ্র মোদীকে নিশানা করেছে কংগ্রেস। রাহুল গাঁধী টুইট করে বলেন, ‘মাওবাদী হামলায় জওয়ানদের নিহত হওয়া আসলে মোদী সরকারের ভ্রান্ত নীতিরই ফল।’ কংগ্রেসের বক্তব্য, নোট বাতিলে সন্ত্রাস কমবে বলে দাবি করেছিলেন মোদী। কিন্তু আদতে তা হয়নি।

মন্তব্য

মতামত দিন

এশিয়া পাতার আরো খবর

ভারতে পথ নাটক করতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার ৫ নারী

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএননয়াদিল্লি: রোমহর্ষক ঘটনাটি ঘটেছে ঝাড়খণ্ড রাজ্যের এমন একটি জায়গায় যেখান থেকে নারী পাচার হয় ব . . . বিস্তারিত

মাকে তালাবন্দি রেখে শ্বশুরবাড়ি গিয়ে তিন দিনেও খোঁজ নেই ছেলে-পুত্রবধূর!

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএনকলকাতা: জন্মদাত্রী মায়ের অবস্থান বাঙালি সংস্কৃতিতে স্রষ্টার সম্মানের পরেই। মায়ের সন্তুষ্টিতে আল . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com