‘প্রকাণ্ড শব্দ হলো, বিমানের জানালা ভেঙে বের হই’

১২ মার্চ,২০১৮

‘প্রকাণ্ড শব্দ হলো, বিমানের জানালা ভেঙে বের হই’

নিজস্ব প্রতিবেদক
আরটিএনএন
কাঠমান্ডু: ‘বিমানটি ভয়ঙ্করভাবে কাঁপছিল। প্রকাণ্ড একটা শব্দও হয়েছে। বিমানের জানালা ভেঙে বের হই।’ নেপালি যুবক বসন্ত বহরা এভাবেই বর্ণনা করছিলেন।

সোমবার নেপালের কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণের সময় বিধ্বস্ত হয় ইউএস বাংলা এয়ারলাইনসের বিমান।

নেপালের গণমাধ্যম কাঠমান্ডু পোস্ট জানিয়েছে, বসন্ত বহরা ওই বিমানের যাত্রী ছিলেন। বিমানের জানালা ভেঙে বের হন বহরা। আহত বসন্ত বহরা বর্তমানে কাঠমান্ডুর নর্ভিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

বসন্ত বহরা নেপালের একটি ট্রাভেল এজেন্সিতে চাকরি করেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে প্রশিক্ষণ নেওয়ার জন্য তিনি বাংলাদেশে এসেছিলেন। তিনি জানান, তারই মতো ১৬ জন ওই বিমানে ছিলেন, যারা বিভিন্ন ট্রাভেল এজেন্সিতে চাকরি করেন।

বসন্ত বহরা বলেন, ‘আমরা বাংলাদেশে প্রশিক্ষণ নেওয়ার জন্য যাই্।’ তিনি জানান, ঢাকা থেকে স্বাভাবিকভাবেই রওনা দেয় বিমানটি। কিন্তু কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নামার আগেই বিমানটি ‘অস্বাভাবিক আচরণ’ করতে থাকে।

বসন্ত বলেন, ‘হঠাৎ করেই বিমানটি ভয়ঙ্করভাবে কাঁপতে থাকে। প্রকাণ্ড শব্দও হয়।’ তিনি বলেন, ‘জানালার পাশেই আমার সিট ছিল। এ সময় জানালার কাঁচ ভেঙে বের হই আমি।’

বসন্ত বলেন, ‘জানালা থেকে বের হওয়ার পর আর কিছু মনে নেই। কেউ একজন আমাকে সিনামঙ্গল হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখান থেকে আমার বন্ধুরা নরভিক হাসপাতালে নিয়ে আসে।’ তিনি আরো বলেন, ‘আমি মাথায় এবং পায়ে আঘাত পেয়েছি। কিন্তু আমি ভাগ্যবান, কারণ আমি বেঁচে এসেছি।’

কাঠমান্ডু পোস্ট জানিয়েছে, ৭১ জন আরোহী নিয়ে ঢাকা থেকে রওনা দেয় বাংলাদেশের বেসরকারি এয়ারলাইনস ইউএস বাংলার বিমানটি।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, দুর্ঘটনায় ৫০ জন নিহত হয়েছে। ত্রিভুবন বিমানবন্দরের মুখপাত্র প্রেম নাথ ঠাকুরের বরাত দিয়ে কাঠমান্ডু পোস্ট জানিয়েছে, বিমানবন্দরের রানওয়েতে অবতরণের সময় বিমানটির এক পাশে আগুন ধরে যায়। এতে পাশের একটি ফুটবল মাঠে গিয়ে বিধ্বস্ত হয় বিমানটি।

প্রসঙ্গত, ঢাকা থেকে নেপালের কাঠমান্ডুর উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাওয়া ইউএস বাংলার একটি বিমানে কাঠমান্ডু আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে আগুন লাগার ঘটনা ঘটেছে। ইউএস-বাংলার একটি প্লেন বিধ্বস্ত হয়েছে। এতে ৭৮ আসনের প্লেনটির বেশিরভাগ যাত্রীরই প্রাণহানির আশঙ্কা করা হচ্ছে। ঢাকায় ইউএস বাংলার কর্মকর্তারা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

সোমবার দুপুর ১২টা ৫১মিনিটে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে ৬৭জন যাত্রী নিয়ে এটি ছেড়ে যায়। তবে প্রাথমিকভাবে আগুন লাগার কারণ জানাতে পারেননি কর্মকর্তারা। সামাজিক মাধ্যমের বিভিন্ন পোস্টে দেখা যাচ্ছে কাঠমুন্ডু বিমানবন্দর থেকে ধোঁয়ার কুণ্ডুলী উঠছে। স্থানীয় সময় দুপুর ২টা ২০ মিনিটে পার্বত্য শহর কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণকালে এ দুর্ঘটনার কবলে পড়ে।

মন্তব্য

মতামত দিন

এশিয়া পাতার আরো খবর

ভারতে পথ নাটক করতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার ৫ নারী

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএননয়াদিল্লি: রোমহর্ষক ঘটনাটি ঘটেছে ঝাড়খণ্ড রাজ্যের এমন একটি জায়গায় যেখান থেকে নারী পাচার হয় ব . . . বিস্তারিত

মাকে তালাবন্দি রেখে শ্বশুরবাড়ি গিয়ে তিন দিনেও খোঁজ নেই ছেলে-পুত্রবধূর!

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএনকলকাতা: জন্মদাত্রী মায়ের অবস্থান বাঙালি সংস্কৃতিতে স্রষ্টার সম্মানের পরেই। মায়ের সন্তুষ্টিতে আল . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com