যে নতুন বাড়িতে উঠছেন ভারতের রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জি

১৭ জুলাই,২০১৭

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আরটিএনএন
দিল্লী: ভারতের রাষ্ট্রপতি হিসেবে প্রণব মুখার্জির মেয়াদ শেষ হচ্ছে আগামী ২৫ জুলাই। এ জন্য তাকে ছেড়ে দিতে হবে দিল্লির রাষ্ট্রপতি ভবন। কিন্তু এই প্রাসাদ ছেড়ে কোথায় যাবেন রাষ্ট্রপতি?

ভারতীয় বিধি অনুযায়ী- অবসরের পর সাবেক রাষ্ট্রপতি ভারতের যেকোনো পছন্দের জায়গায় থাকতে পারেন। তার যাবতীয় খরচ বহন করে কেন্দ্রীয় সরকার। প্রেসিডেন্ট প্রাসাদ রাইসিনার হিলস ছেড়ে দিল্লির ১০ রাজাজি মার্গের সরকারি বাংলোয় অবসরজীবন কাটানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি।

ব্রিটিশ আমলে নির্মিত ১১ হাজার ৭৬৭ বর্গফুটের রাজাজি মার্গের বাড়িটি দোতলা। বাড়িটিতে রয়েছে সুপ্রশস্থ বাগান ও লন। ভেতরে একটি বড় গ্রন্থাগার ও পাশেই একটি বড় পড়ার ঘর। প্রণব মুখার্জি বই পড়তে ভালোবাসেন বলেই তার জন্য এই বাড়িটি ঠিক করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। এখন বাড়িটি সাজানোর কাজ চলছে। সামনের ফাঁকা জায়গায় তৈরি করা হচ্ছে ফুল ও ফলের বাগান। দোতলা বাড়িতে বসানো হচ্ছে লিফট।

এর আগে রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জির জন্য ৩৪ নম্বর এ পি জে আবদুল কালাম রোডের বাড়িটি ঠিক করা হয়েছিল। কিন্তু প্রয়াত সাংসদ পি এ সাংমার নামে বাড়িটি বরাদ্দ থাকায় নতুন করে রাজাজি মার্গের বাংলোটি ঠিক করে সরকার।

প্রেসিডেন্ট পেনশন রুলস-১৯৬২ অনুযায়ী, সাবেক রাষ্ট্রপতি আজীবন দেশের যেকোনো জায়গায় থাকার সিদ্ধান্ত নিতে পারেন। তাঁকে কোনো বাড়িভাড়া দিতে হয় না। বিনা মূল্যে তিনি পান পানি, বিদ্যুৎ, গাড়ি ও গাড়ির চালক। তার দপ্তরে কাজ করার জন্য একজন সচিব, একজন সহকারী ও চিকিৎসক থাকেন। এ ছাড়া আরো তিনজন কর্মী তিনি রাখতে পারেন। তার সব খরচ বহন করে ভারত সরকার। এ ছাড়া তিনি নিয়মিত পেনশনের অর্থও পাবেন।

২০১২ সালের ২৫ জুলাই প্রণব মুখার্জি দেশটির ১৩তম রাষ্ট্রপতি হিসেবে দায়িত্ব নিয়েছিলেন। দীর্ঘ পাঁচ বছর ভারতের রাষ্ট্রপতি হিসেবে দায়িত্ব পালনের পর ৮১ বছর বয়সী এই রাষ্ট্রপতি দিল্লির ১০ রাজাজি মার্গের সরকারি বাংলোয় থাকার সিদ্ধান্ত নেন।

মন্তব্য

মতামত দিন

এশিয়া পাতার আরো খবর

ভারতে পথ নাটক করতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার ৫ নারী

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএননয়াদিল্লি: রোমহর্ষক ঘটনাটি ঘটেছে ঝাড়খণ্ড রাজ্যের এমন একটি জায়গায় যেখান থেকে নারী পাচার হয় ব . . . বিস্তারিত

মাকে তালাবন্দি রেখে শ্বশুরবাড়ি গিয়ে তিন দিনেও খোঁজ নেই ছেলে-পুত্রবধূর!

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএনকলকাতা: জন্মদাত্রী মায়ের অবস্থান বাঙালি সংস্কৃতিতে স্রষ্টার সম্মানের পরেই। মায়ের সন্তুষ্টিতে আল . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com