স্বাস্থ্যসেবায় বাংলাদেশ-পাকিস্তানের চেয়ে পিছিয়ে ভারত

১৯ মে,২০১৭

নিউজ ডেস্ক
আরটিএনএন
ঢাকা: স্বাস্থ্যসেবা খাতে বাংলাদেশ-পাকিস্তানের চেয়ে পিছিয়ে রয়েছে ভারত। বিশ্বের ১৯৫টি দেশের মধ্যে স্বাস্থ্যসেবা খাতে ভারতের অবস্থান ১৫৪তম। অথচ বাংলাদেশ ৫২তম অবস্থানে রয়েছে। যুক্তরাজ্যভিত্তিক মেডিকেল জার্নাল ল্যান্সেটে প্রকাশিত এক গবেষণায় এ তথ্য উঠে এসেছে।

গবেষণায় দেখা গেছে, দেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের পরেও স্বাস্থ্যসেবায় লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে ভারত ব্যর্থ হয়েছে। গত ২৫ বছরে আশানুরূপ স্বাস্থ্যসেবা দিতে পারেনি দেশটি। চীন, শ্রীলংকা ও পাকিস্তানের চেয়েও ভারতের অবস্থান নিচের দিকে।

যদিও স্বাস্থ্যসেবা সূচকে ভারতের স্কোর ১৪.১ পয়েন্ট বেড়েছে। ১৯৯০ সালে ৩০.৭ থাকলেও ২০১৫ সালে এসে তা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪৪.৮ পয়েন্টে।

বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশনের অর্থায়নে পরিচালিত ওই গবেষণায়, বিশ্বের ১৯৫টি দেশের ওপর ১৯৯০ সাল থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত মৃত্যুহারের ভিত্তিতে ওই র‌্যাঙ্কিং তৈরি করা হয়।

ডায়াবেটিস, কিডনি রোগ এবং হার্টের সমস্যার ক্ষেত্রে যথাক্রমে ৩৮, ২০ এবং ৪৫ নং অবস্থানে রয়েছে দেশটি। তবে নবজাতকের মৃত্যুতে ১৪, যক্ষ্মার জন্য ২৬, হৃদরোগে ২৫ এবং উচ্চ রক্তচাপের মৃত্যুর ক্ষেত্রে ৩৩ নং সূচকে রয়েছে দেশটি।

তবে দেশগুলোর মধ্যে রোগভেদে চিকিৎসার মান ভিন্ন হিসেবে উল্লেখ করেছেন গবেষকরা। এছাড়া গবেষকরা দেখিয়েছেন, উন্নয়নশীল দেশগুলোর মধ্যেও স্বাস্থ্যসেবা সুবিধা এবং গুণগত মানের পার্থক্য রয়েছে।

ভারতের তুলনায় চীনের চিকিৎসা মান অনেক ভালো। র‌্যাঙ্কিংয়ে ভারতের চেয়ে ৮০ সূচক উপরে চীনের অবস্থান ৭৪ এ। শ্রীলংকা ৭৩, ব্রাজিল ৬৫ এবং পাকিস্তান ৪৩ নম্বরে রয়েছে।

টাইমস ইন্ডিয়া অবলম্বনে

মন্তব্য

মতামত দিন

এশিয়া পাতার আরো খবর

রোহিঙ্গাদের গ্রাম নিশ্চিহ্ন করে দেয়া হয়েছে: এইচআরডাব্লিউ

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএননাইপেদো: রোহিঙ্গাদের কমপক্ষে ৫৫টি গ্রাম বুলডোজার দিয়ে একেবারে নিশ্চিহ্ন করে দেয়া হয়েছে বলে জানি . . . বিস্তারিত

চার বন্ধুর আপত্তিতে রক্ষা পাকিস্তানের

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএনইসলামাবাদ: রাশিয়া, চীন, সৌদি আরব ও তুরস্ক। মূলত এই চার বন্ধুর আপত্তিতে ‘সন্ত্রাসে আর্থিক . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com