চীন-ভারত উত্তেজনা চরমে, অরুণাচলের ৬ এলাকার নতুন নাম ঘোষণা

১৯ এপ্রিল,২০১৭

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

আরটিএনএন

নয়া দিল্লি: অরুণাচল প্রদেশ নিয়ে ভারতের সঙ্গে চীনের উত্তেজনা বেড়েছে।উত্তর-পূর্ব ভারতের রাজ্যটিকে ফের ‘দক্ষিণ তিব্বত’ আখ্যা দিয়েছে বেজিং। চীনের সিভিল অ্যাফেয়ার্স মন্ত্রণালয় অরুণাচল প্রদেশের ছয়টি অঞ্চলের নতুন নামকরণ করেছে। ১৪ এপ্রিল এই নতুন নামগুলি ঘোষিত হয়েছে বলে চীনের শাসক নিয়ন্ত্রিত সংবাদপত্র গ্লোবাল টাইমস জানিয়েছে।


দলাই লামার অরুণাচল সফর নিয়ে ঘোর আপত্তি জানিয়েছিল চীন। তিব্বতি ধর্মগুরুকে ‘বিপজ্জনক’ এবং ‘চক্রান্তকারী’ আখ্যা দিয়ে বেজিং হুঁশিয়ারি দিয়েছিল, দালাই লামাকে ভারত অরুণাচলে যেতে দিলে ফল খারাপ হবে। চাপের কাছে অবশ্য ভারত মাথা নত করেনি।


বেজিংয়ের এই হুঁশিয়ারিকে ‘অনধিকার চর্চা’ আখ্যা দিয়েছিল নয়াদিল্লি। নির্ধারিত সূচি অনুযায়ীই অরুণাচল সফরে যান দালাই লামা। তার পরই চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অত্যন্ত কড়া বিবৃতি দিয়ে জানায়, চীন-ভারত দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের মারাত্মক ক্ষতি করে দিয়েছে নয়া দিল্লি। ভারতের বিরুদ্ধে চীন পদক্ষেপ গ্রহণ করবে বলেও বেজিং হুমকি দেয়। সেই পথে হাঁটা যে শুরু হয়ে গেল, তা চীনের এই সাম্প্রতিকতম পদক্ষেপ থেকে স্পষ্ট।


গ্লোবাল টাইমসে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে বুধবার জানানো হয়েছে, চীনের সিভিল অ্যাফেয়ার্স মন্ত্রক ১৪ এপ্রিল দক্ষিণ তিব্বতের ছয়টি অঞ্চলের নতুন চীনা নামকে স্বীকৃতি দিয়েছে। চীনা ভাষার নামগুলিকে তিব্বতি এবং রোমান বর্ণমালায় কী ভাবে লিখতে হবে, তাও মন্ত্রণালয় নির্দিষ্ট করে দিয়েছে। যে ছ’টি নতুন চীনা নামকে স্বীকৃতি দেওয়া হয়েছে, সেগুলি হল— ও’গিয়াইনলিং, মিলা রি, কোইড গারবো রি, মাইনকুকা, বি মোলা, নামকাপুব রি।


অরুণাচল প্রদেশকে দীর্ঘ দিন ধরেই ‘দক্ষিণ তিব্বত’নামে ডাকে চীন। ১৯৬২-র যুদ্ধে চীনা সেনা অরুণাচলের ভিতরে ঢুকেও পড়েছিল, পরে তারা ফিরে যায়। গোড়া থেকেই ভারতের শাসনে রয়েছে অরুণাচল প্রদেশ। কিন্তু চীন অরুণাচলকে ভারতের অংশ বলে স্বীকৃতি দিতে রাজি নয়। চীনের দাবি, অরুণাচল দু’দেশের মধ্যে একটি বিতর্কিত এলাকা।


ভারতের পাল্টা দাবি, ১৯৬২-র যুদ্ধে জম্মু-কাশ্মীরের যে এলাকা (আকসাই চীন) দখল করেছিল চীন, সেই এলাকা ভারতকে ফেরত দেওয়া হোক। কিন্তু চীন তাতেও নারাজ। ফলে জম্মু-কাশ্মীর থেকে শুরু করে অরুণাচল পর্যন্ত বিস্তৃত সুদীর্ঘ চীন-ভারত সীমান্ত বহু বছর ধরেই দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের উন্নতির পথে কাঁটা হয়ে রয়েছে। সেই কাঁটাকে আরো তীক্ষ্ণ করে তুলল চীন। শান্তি এবং স্থিতিশীলতার সম্পূর্ণ উল্টো দিকে হেঁটে অরুণাচলের ছ’টি এলাকার নতুন নামকরণ করল তারা।এ নিয়ে নয়া দিল্লি সরকারের মধ্যেও তীব্র প্রতিক্রিয়া হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে। তারাও এর বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপের প্রস্তুতি নিচ্ছে।

মন্তব্য

মতামত দিন

এশিয়া পাতার আরো খবর

পদত্যাগ করলেন নেপালের মাওবাদী প্রধানমন্ত্রী প্রচন্ড, স্থলাভিষিক্ত হচ্ছেন দেউবা

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএনকাঠমান্ডু: নেপালের মাওবাদী প্রধানমন্ত্রী পুষ্প কমল দহল পদত্যাগ করেছেন। সাবেক গেরিলা নেতা পুষ্প . . . বিস্তারিত

বেইজিংকে চ্যালেঞ্জ, চীনের বিতর্কিত দ্বীপের কাছ দিয়ে গেল মার্কিন যুদ্ধজাহাজ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক আরটিএনএনবেইজিং: মার্কিন একটি যুদ্ধজাহাজ দক্ষিণ চীন সাগরে চীনের নির্মিত একটি কৃত্রিম দ্বীপের খুব কাছ দি . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান, গোলাম রসুল প্লাজা (তৃতীয় তলা), ৪০৪ দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০।
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com