একে পার্টি’র মেয়র প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করেছেন এরদোগান

১৩ জানুয়ারি,২০১৯

একে পার্টি’র মেয়র প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করেছেন এরদোগান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আরটিএনএন
আঙ্কারা: তুরস্কের রাষ্ট্রপতি রেসেপ তাইয়েপ এরদোগান দেশটির আসন্ন স্থানীয় মেয়র নির্বাচনে তার দল ক্ষমতাসীন একে পার্টি’র পশ্চিমাঞ্চল কোচেইলির মেয়র প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করেছেন। স্থানীয় নির্বাচনের দিনক্ষণ গণনা শুরু হয়ে যাওয়ার মধ্যে এরদোগান তার দলের প্রার্থীদের চূড়ান্ত নাম ঘোষণা করেন।

এরদোগান বলেন, আমাদের পার্টি এবারের নির্বাচনে আরও কঠোর পরিশ্রম করবে এবং আল্লাহ চাহেতু এই নির্বাচনে আমরা কোচেইলির সব জেলাতেই জয় পাবো। শনিবার প্রার্থীদের নাম ঘোষণা অনুষ্ঠানের বক্তৃতায় এ কথা বলেন এরদোগান।

অনুষ্ঠানে আগামী ৩১শে মার্চ অনুষ্ঠিতব্য স্থানীয় নির্বাচনে কোচেইলি অঞ্চলের সব জেলাসমূহে ক্ষমতাসীন একে পার্টি’র মেয়র প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করা হয়। মেট্রোপলিটনে বর্তমান মেয়র ইব্রাহিম কারাওসমানোগলু এর স্থলে নতুন মেয়র প্রার্থী হিসেবে তাহির বুয়ুকাকুনের নাম ঘোষণা হয়েছিল আগেই।

এরদোগান তার বক্তৃতায় রিপাবলিকান পিপলস পার্টির (সিএইচপি) বিরুদ্ধে কথা বলার আগে নিজ দলের সংস্থাকে সকল ভোটারের নিবন্ধন করার জন্য জোর দেন।

একে পার্টি এবং জাতীয়তাবাদী মুভমেন্ট পার্টি (এমএইপি) তুরস্কের কিছু জেলা এবং প্রদেশে একে অপরের প্রার্থীদের সহযোগিতা করার ঘোষণা দিয়েছে। অন্যদিকে, সিএইচপি এবং দ্য গুড (আইওয়াইআই) পার্টি একই পদক্ষেপ নেবে বলে মনে করা হচ্ছে।

আসন্ন এই নির্বাচনে রাজধানী আঙ্কারায় মেহমেত ওজহাসেকি’কে মেয়র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দিয়েছে একে পার্টি। মেহমেত ওজহাসেকি একে পার্টির বর্তমান ডেপুটি চেয়ারম্যান এবং সাবেক পরিবেশ ও নগরায়ন মন্ত্রী ছিলেন।

এছাড়া সংসদের বর্তমান স্পিকার ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বিনালি ইলদিরিম একে পার্টি’র প্রার্থী হিসেবে ইস্তাম্বুলের মেয়র পদে লড়বেন।

অন্যদিকে, সিএইচপি ইস্তাম্বুলের মেয়র প্রার্থী হিসেবে একরেম ইমামোগলু এবং আঙ্কারার মেয়র প্রার্থী হিসেবে মানসুর ইয়াবাসকে মনোনয়ন দিয়েছে।

৩০ মহানগর পৌরসভা এবং ৫১ প্রাদেশিক পৌরসভার মেয়র নির্বাচনের জন্য প্রতি পাঁচ বছর পরপর তুরস্কে স্থানীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

মহানগর, প্রাদেশিক ও জেলার মেয়র নির্বাচনের পাশাপাশি এই নির্বাচনে ভোটাররা শহরে পৌর কাউন্সিলের সদস্যদেরও নির্বাচিত করবে এবং গ্রামীণ এলাকায় ‘মুখতারা’ এবং মুরব্বী কাউন্সিলের সদস্য নির্বাচন করবে।

সর্বশেষ ৩০শে মার্চ ২০১৪ সালে তুরস্কের স্থানীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছিল, যেখানে একে পার্টি এককভাবে ৪৫.৫ শতাংশ ভোট পেয়েছিল।

[হুর‌্যিয়াত ডেইলি নিউজ থেকে অনুবাদ করেছেন মুহাম্মদ তানজীমুদ্দীন]

মন্তব্য

মতামত দিন

ইউরোপ পাতার আরো খবর

খেলাধুলায় মুসলিম শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণ বাড়াতে ব্রুনেল বিশ্ববিদ্যালয়ে স্পোর্টস হিজাব চালু

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএনলন্ডন: চলতি মাসের ১১ তারিখ সোমবার বার্তা সংস্থা বিবিসি এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে যে, লন্ডন ভিত্তিক . . . বিস্তারিত

মানুষের স্মৃতি চুরি করবে হ্যাকাররা

ডেস্ক নিউজআরটিএনএনলন্ডন: কল্পনা করুন যে, আপনি ইন্সটাগ্রামের ফিডের মতো আপনার স্মৃতিগুলো স্ক্রল করে দেখছেন। বিশদভাবে দেখছে . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com