‘চূড়ান্ত রায়ের আগে গুপ্তচর কুলভূষণের ফাঁসি নয়’

১৮ মে,২০১৭

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আরটিএনএন
হেগ: আন্তর্জাতিক আদালতে চূড়ান্ত রায়ের আগে ভারতীয় গুপ্তচর কুলভূষণ যাদবকে ফাঁসি দিতে পারবে না পাকিস্তান। এ মামলার নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত ফাঁসির আদেশ আপাতত স্থগিত রাখতে হবে।

আদালত জানায়, ভারতের করা আবেদন আন্তর্জাতিক আদালতের এক্তিয়ারে আসে। দুই দেশের মধ্যে কুলভূষণের গ্রেপ্তার ও বিচার নিয়ে একটি বিবাদ রয়েছে। ভিয়েনা কনভেনশনের প্রোটোকল মেনেই কুলভূষণের সঙ্গে ভারতীয় দূতাবাসের কর্মীদের দেখা করতে দেয়া উচিত ছিল।

ভারতীয় নৌবাহিনীর সাবেক কর্মকর্তা ও গোয়েন্দা সংস্থা ‘র’-এর চর কুলভূষণ যাদবকে নাশকতা চালানোর অভিযোগে ফাঁসির আদেশ দেয় পাকিস্তানের সেনা আদালত। এর বিরুদ্ধে স্থগিতাদেশ চেয়ে আন্তর্জাতিক আদালতে যায় ভারত।

বৃহস্পতিবার নেদারল্যান্ডসের হেগে স্থানীয় সময় দুপুর ১২টায় এই রায় ঘোষণা করে ১১ সদস্যের আন্তর্জাতিক আদালত।

ভারতের অভিযোগ, কুলভূষণকে গ্রেপ্তার করার পরে তার সঙ্গে ভারতীয় দূতাবাসের কোনো কর্মীকে দেখা করতে দেয়নি পাকিস্তান। এটি ভিয়েনা কনভেনশনের পরিপন্থী। পাকিস্তান সরকারের কাছে অন্তত ১৬টি আবেদন পাঠিয়েছিল ভারত। একটিও গ্রাহ্য করেনি নওয়াজ শরিফ সরকার।

এ বিষয়ে পাকিস্তানের দাবি, কুলভূষণকে গ্রেপ্তারের সঙ্গে পাকিস্তানের জাতীয় সুরক্ষার প্রশ্ন জড়িত। ফলে এখানে কনভেনশনের প্রোটোকল খাটে না। কুলভূষণকে বেলুচিস্তান থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। সেখানে পাকিস্তানের মাটিতে তিনি গুপ্তচর হিসেবে কাজ করছিলেন।

এছাড়াও পাকিস্তানের দাবি ছিল তারা একটি ঘোযণাপত্রে জাতীয় সুরক্ষার প্রশ্নটি ভিয়েনা কনভেনশনের বাইরে রেখেছিল। তাই এই মামলা দাঁড়ায় না।

আন্তর্জাতিক আদালত অবশ্য এই পাকিস্তানের এই যুক্তি খারিজ করে দেয়।

মন্তব্য

মতামত দিন

ইউরোপ পাতার আরো খবর

বিশ্বকাপে হামলায় অন্যরকম ছক আইএসের

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএনমস্কো: বিশ্ব মাতানো আয়োজন ফুটবল বিশ্বের সবচেয়ে আসর ‘ফুটবল বিশ্বকাপ ২০১৮’ অনুষ্ঠানে . . . বিস্তারিত

একটি ফ্রিজের আগুন যেভাবে সারা বিশ্বের ট্র্যাজেডি

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএনলন্ডন: ঠিক এক বছর আগে এই দিনে লন্ডনের এক বহুতল ভবনে আগুনে পুড়ে মারা গিয়েছিলেন ৭২ জন মানুষ। এই . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com