বিচারের কাঠগড়ায় অস্ট্রেলিয়ার মুসলিম বিরোধী চরমপন্থী

০৭ ফেব্রুয়ারি,২০১৮

বিচারের কাঠগড়ায় অস্ট্রেলিয়ার মুসলিম বিরোধী চরমপন্থী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আরটিএনএন
ক্যানবেরা: বোমা হামলার পরিকল্পনার অভিযোগে ফিলিপ গালিয়া নামে একজন মুসলিম বিরোধী চরমপন্থীকে অস্ট্রেলিয়ার একটি আদালতে বিচারের মুখোমুখি করা হয়েছে।

বিচারের জন্য মঙ্গলবার ভিক্টোরিয়ান সুপ্রিম কোর্টে তাকে হাজির করা হয়।

তার বিরুদ্ধে ২০১৫ সাল থেকে ২০১৬ সালের মধ্যে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের প্রস্তুতি নেয়া এবং বিভিন্ন ডকুমেন্ট সংগ্রহ করার অভিযোগ আনা হয়েছে।

বোমা সম্পর্কে জানতে গালিয়া মেলবোর্নের অরাজহকতাকারীদের সঙ্গে যোগযোগ করেছে বলে পুলিশের অভিযোগে বলা হয়েছে।

গালিয়াকে বর্তমানে আইনি সহায়তা দিচ্ছেন ‘লিগাল এইড’ নামে একটি আইনি প্রতিষ্ঠান। তিনি বিচারের সম্মুখীন হওয়ার যোগ্য কিনা তা নিয়ে প্রশ্ন তোলা হয়েছে।

তবে, ব্যারিস্টার টিম মার্শ মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্টকে জানান, দুটি ধারাবাহিক মানসিক রিপোর্ট অনুযায়ী তার ক্লায়েন্ট বিচারক ও জুরির ভূমিকা এবং মামলার মধ্যে পার্থক্য ব্যাখ্যা করতে সক্ষম।

জাস্টিস এলিজাবেথ হোলিংওয়ার্থ বলেন যে, যদিও প্রথম প্রতিবেদনে গালিয়ার ধর্ম বিশ্বাস এবং তারা ‘মৌলবাদী’ ছিল কিনা নির্ধারণ করার চেষ্টা করা হয়েছিল বলেই মনে হচ্ছে।

ইসলাম বিরোধী গোষ্ঠীগুলোর সঙ্গে গালিয়ার সম্পর্কের বিষয়ে এর আগে ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টে শুনানি অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার সকালে মার্শ বলেন, গালিয়া ট্রায়ালে অংশগ্রহণে সক্ষম কিনা তা অতিরিক্ত রিপোর্টে বলা হয়েছে এবং তিনি ও কমনওয়েলথের প্রসিকিউশন একমত হয়েছেন যে গালিয়া বিচারের জন্য দাঁড়াতে সক্ষম।

পরে জাস্টিস হোলিংওয়ার্থ মামলাটি ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টে ফেরত পাঠান। গত এপ্রিল মাসে মামলাটি শুনানির জন্য ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টে তালিকাভুক্ত করা হয়েছিল।

সূত্র: দ্য অস্ট্রেলিয়ান

ক্যানবেরায় অস্ট্রেলিয়া বিএনপির বিক্ষোভ
জিয়া এতিমখানা দুর্নীতি মামলায় বিএনপির চেয়ারর্পাসন খালেদা জিয়ার রায়কে সামনে রেখে অস্ট্রেলিয়ায় বিক্ষোভ করেছে সেখানে বসবাসরত বিএনপি নেতা-কর্মীরা।

স্থানীয় সময় সোমবার দুপুরে ক্যানবেরায় বাংলাদেশ দূতাবাস এবং অস্ট্রেলিয়ার ফেডারেল পার্লামেন্টের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ ও স্মারকলিপি জমা দেয় বিএনপির নেতাকর্মীরা।

এসময় তাদের হাতে ‘আমার নেত্রী, আমার মা, বন্দি হতে দিবোনা’, ‘বাঁচাও বাংলাদেশ, বাঁচাও গণতন্ত্র’ ইত্যাদি স্লোগান লেখা ফেস্টুন দেখা যায়।

বিএনপি অস্ট্রেলিয়ার অন্যতম জ্যেষ্ঠ নেতা হুমায়ের চৌধুরী বলেন, “স্মারক লিপিতে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর নিকট আমরা জোরালো দাবি জানিয়েছি যে ৮ ফেব্রুয়ারির এই মিথ্যা মামলায় কোনও হস্তক্ষেপ না করে এবং শিগগিরই এর থেকে বেগম জিয়াকে মুক্তি দিয়ে দ্রুত বাংলাদেশের গণতন্ত্র মানুষের ভোটাধিকার ফিরিয়ে দেওয়া হোক। এছাড়া বাংলাদেশে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠার জন্য অস্ট্রেলিয়া সরকারের দ্রুত হস্তক্ষেপ কামনা করেছি।”

মন্তব্য

মতামত দিন

অন্যান্য পাতার আরো খবর

‘জাতীয় লজ্জা’র জন্য ক্ষমা চাইলেন অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএনক্যানবেরা: রাষ্ট্রের দিক থেকে গাফিলতি রয়েছে স্বীকার করে যৌন হেনস্থার শিকার শিশু এবং তাদের অভিভা . . . বিস্তারিত

প্রশান্ত মহাসাগরীয় তিন দ্বীপে সুনামি সতর্কতা জারি

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএনসিডনি: প্রশান্ত মহাসাগরে ভয়াবহ ভূমিকম্পের পর তিনটি দ্বীপ নিউ ক্যালিডনিয়া, ফিজি ও ভানুয়াতুতে সুন . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com