‘গাজার সংকট সমাধানে হামাসের পাশে থাকবে মিশর’

২৩ নভেম্বর,২০১৮

Leading Hamas member Mousa Abu Marzook

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আরটিএনএন
গাজা সিটি: ইসরাইল-ফিলিস্তিন সমস্যার সাম্প্রতিক অগ্রগতি নিয়ে বৃহস্পতিবার তুরস্কের ‘আনাদোলু নিউজ এজেন্সি’র সাথে কথা বলার সময় হামাসের শীর্ষ সদস্য মূসা আবু মারজূক বলেন, হামাস ফিলিস্তিনিদের ঐক্য চায়, বিভক্তি নয়।

আবু মারজূক জানান, ফিলিস্তিনির জাতীয় সমস্যাগুলো বিশ্বব্যাপী তুলে ধরার জন্য হামাসের প্রভাবশালী রাজনৈতিক ব্যুরোর প্রধান ইসমাইল হানিয়াহ একটি আন্তর্জাতিক সফরের প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

তিনি বলেন, আরব ও মুসলিম দেশসমূহ এবং আরও কিছু রাষ্ট্র ইসমাইল হানিয়াহ ও তার সফরসঙ্গীদেরকে অভ্যর্থনা জানাতে প্রস্তুত বলে জানিয়েছে।

সম্প্রতি হামাস এবং বিরোধী ফাতাহ’র মধ্যকার চুক্তির দ্রুত বাস্তবায়নের উদ্দেশ্যে মিশরীয় কর্মকর্তাদের সাথে সংলাপের ব্যাপারে আবু মারজূক পরিস্কার করেন যে, কায়রোর সংলাপে লিখিত চুক্তির চেয়ে মানবতাবাদী বিষয়গুলো প্রাধান্য পেয়েছে।

আবু মারজূক বলেন, সংলাপের লক্ষ্য ছিল কোন প্রকার রাজনৈতিক ছাড় দেওয়া ছাড়াই অবরুদ্ধ গাজার মানবিক দুভোর্গের পরিসমাপ্তি।

আবু মারজূক এটাও উল্লেখ করেন যে, গাজার অবস্থার উন্নতি সাধন এবং ভয়াবহ মানবিক দুর্ভোগ লাঘবের জন্য নরওয়ের নেতৃত্বে ইউরোপীয় সহযোগিতা অব্যাহত আছে।

তিনি সাম্প্রতিক মধ্যস্ততার ভূমিকার জন্য জাতিসংঘের শান্তি প্রতিনিধি নিকোলাই ম্লাদেনভসহ মিশর এবং কাতারের প্রশংসা করেন।

উপনেতা সালেহ আল অরোরি এর নেতৃত্বে বুধবার হামাসের একটি প্রতিনিধিদল অধিকতর সংলাপের জন্য কায়রোতে পৌছে।

উল্লেখ্য, যুক্তরাষ্ট্র প্রশাসন ইতিমধ্যে আল অরোরিকে গ্রেফতারে তথ্য দানের জন্য ৫ মিলিয়ন ডলার পুরস্কার ঘোষণা করেছে।

এই বিষয়ে আবু মারজূক বলেন, এই ঘোষণা আল অরোরির চলফেরা বন্ধ করতে পারবে না এবং তার কোন ক্ষতিও করতে পারবে না।

‘মিশরের সাথে আমাদের সংলাপ ফলপ্রসু হয়েছে। তারা বাণিজ্যিক সীমানা উন্মুক্ত করে দিতে এবং গাজায় তেল সরবরাহ করতে রাজী হয়েছে, যেটা গাজার অতীব জরুরী বিদ্যুৎ উৎপাদনে ব্যবহৃত হবে’।

‘নতুন ফান্ড গঠন করা হয়েছে যেটা গাজার ৫০,০০০ দরিদ্র পরিবারের নিকট পৌছবে এবং হাজারো তরুন জনগোষ্ঠীর কর্মসংস্থানের ব্যাবস্থা করব’, আবু মারজূক যোগ করেন।

গাজা এবং ইসরাইলের মাঝে ৩০০ মিটার ‘বাফার জোন’ হওয়ার বের হওয়া সংবাদকে উড়িয়ে দিয়েছেন আবূ মারজূক। তিনি বলেন, হামাস এটা গ্রহণ করে নি এবং করবে না।

২০১৪ সালে হামাস কর্তৃক গ্রেফতার হওয়া ইসরাইলি সেনাদের মুক্তির জন্য জার্মানী কর্তৃপক্ষ তার দল এবং ইসরাইলের মধ্যে পরোক্ষ সংলাপের মধ্যস্থতা করছে বলে ছড়ানো সংবাদকেও অস্বীকার করেন তিনি।

‘আনাদোলু নিউজ এজেন্সি’ থেকে ভাষান্তর: মুহাম্মদ তানজীমুদ্দীন।

মন্তব্য

মতামত দিন

মধ্যপ্রাচ্য পাতার আরো খবর

বিষ প্রয়োগে কারাবন্দি সৌদি আলেম আল-আমারির মৃত্যু

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএনরিয়াদ: সৌদি আরবের কারাবন্দি প্রখ্যাত আলেম আহমেদ আল-আমরি বিষ প্রয়োগের ফলে মারা গেছেন। বিষ প্রয়োগ . . . বিস্তারিত

মধ্যপ্রাচ্যে উত্তেজনা চরমে, যেকোনো সময় ইসরাইল-ইরানের মধ্যে ভয়াবহ যুদ্ধ লেগে যেতে পারে

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএনতেলআবিব: এক সময় বিশ্লেষকরা মনে করতেন যে সিরিয়া বা লেবাননের পরিস্থিতিকে কেন্দ্র করে ইসরাইল আর . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com