খাসোগি হত্যাকাণ্ড: অডিও বার্তায় বিন সালমানের জড়িত থাকার প্রমাণ পেয়েছে সিআইএ

১৫ নভেম্বর,২০১৮

খাসোগি হত্যাকাণ্ড: অডিও বার্তায় বিন সালমানের জড়িত থাকার প্রমাণ পেয়েছে সিআইএ

খাসোগি হত্যাকাণ্ড: অডিও বার্তায় বিন সালমানের জড়িত থাকার প্রমাণ পেয়েছে সিআইএ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আরটিএনএন
রিয়াদ: সৌদি সাংবাদিক জামাল খাসোগি হত্যাকাণ্ডের সময় ধারণ করা একটি অডিও বার্তা বিশ্লেষণ করে এটি বিশ্বাস করা হচ্ছে যে, খাসোগি হত্যাকাণ্ডের নির্দেশ ক্রাউন প্রিন্স বিন সালমানের কাছ থেকেই এসেছে। বার্তা সংস্থা ওয়াশিংটন পোস্টের একজন সাংবাদিক তেমনটিই মনে করেন।

এর পূর্বে তুরস্ক থেকে জানানো হয়েছে যে, অডিও বার্তাটি বিভিন্ন পশ্চিমা মিত্রদের কাছে পৌঁছানো হয়েছে এবং সে অডিও বার্তায় ‘তোমার বসকে বল’ এমন একটি বার্তা ছিল। আর এই শব্দগুলোকেই খাসোগি হত্যাকাণ্ডের সাথে বিন সালমানের জড়িত থাকার বিষয়ে শক্তিশালী প্রমাণ রয়েছে বলে তুরস্কের দাবী

যদিও বিন সালমানের নাম সরাসরি উল্লেখ করা হয়নি, কিন্তু বার্তা সংস্থা নিউইয়র্ক টাইমসের বরাত দিয়ে জানা যাচ্ছে যে, যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা কর্মকর্তারা ‘তোমার বস’ এই শব্দ দ্বারা বিন সালমানকেই বোঝানো হয়েছে বলে মনে করছেন।

ইস্তাম্বুলের সৌদি কনস্যুলেটে খাসোগিকে হত্যাকারী ১৫ সদস্যের ঘাতক দলের একজন মাহের আবদুল আজিজ মুতরেব, যিনি সে সময় একটি ফোন কল করেছিলেন এবং আরবীতে ‘তোমার বস’ এই শব্দটি উল্লেখ করে খাসোগি হত্যাকাণ্ড সফল হয়েছে বলে অপর প্রান্তের একজনকে আশ্বস্ত করেন।

যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএ’র সাবেক একজন গোয়েন্দা কর্মকর্তা শব্দগুলো বিশ্লেষণ করে খাসোগি হত্যাকাণ্ডের সাথে বিন সালমানের জড়িত থাকার কথা মোটামুটি নিশ্চিত বলে নিউইয়র্ক টাইমসকে জানিয়েছেন।

ব্রুস রিদেল নামের সাবেক এই গোয়েন্দা কর্মকর্তা বলেন, ‘এটি অভিযুক্ত করার মত একটি শক্ত প্রমাণ।’

ফোন কলটি যিনি করেছেন তিনি সৌদির একজন কূটনৈতিক এবং বিন সালমানের অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ মাহের আবদুল আজিজ মুতরেব বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। যদিও আরবি ভাষার থেকে ভাষান্তর করার সময় শব্দের হেরফের হতে পারে কিন্তু মুতরেব স্পষ্টতই বলতে চেয়েছেন যে, ‘কাজটি সম্পন্ন হয়েছে।’

এদিকে চলতি মাসের ১০ তারিখে তুর্কি প্রেসিডেন্ট এরদোগান এ অডিও বার্তার অস্তিত্ব স্বীকার করেছেন এবং তা যুক্তরাষ্ট্র, সৌদি আরব, জার্মানি, ফ্রান্স এবং যুক্তরাজ্যের নিকটে হস্তান্তর করা হয়েছে বলেও তিনি জানান।

এরদোগান বলেন, ‘তারা এই অডিও বার্তাটি শুনেছেন এবং তারা ঘটনাটি সম্পর্কে জানেন।’

১৩ নভেম্বর কানাডার প্রধানমন্ত্রী সরকারিভাবেই স্বীকার করেছেন যে, তার দেশের গোয়েন্দারা অডিও বার্তাটি শুনেছেন। তবে তিনি অডিওটি নিজে শুনে দেখেননি বরং তাকে এ সম্পর্কে বিস্তারিত জানানো হয়েছে।

এর পূর্বে সৌদি কনস্যুলেটে ১৫ জনের একটি ঘাতক দল কর্তৃক খাসোগি হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়েছেন বলে ব্যাপকভাবে প্রচার করা হলেও এই প্রথম তুর্কি গোয়েন্দারা বিন সালমানের দপ্তরের সাথে ঘাতকদের যোগাযোগের কোনো অডিও বার্তা প্রকাশ করল।

খাসোগি নিহত হওয়ার ওই ঘণ্টার মধ্যেই ইস্তাম্বুলের সৌদি কনস্যুলেট থেকে বিন সালমানের দপ্তরে অন্তত চারটি ফোন কল করা হয়েছে বলেও তুর্কি কর্মকর্তারা জানিয়েছেন এবং তা বিন সালমানের জড়িত থাকার দিকে ইঙ্গিত করে বলেও তাদের বিশ্বাস।

যদিও বিভিন্ন দেশের গোয়েন্দাদের ভিন্ন ভিন্ন মত রয়েছে কিন্তু যুক্তরাজ্যের জাতীয় নিরাপত্তা সংস্থার উপদেষ্টা জন বোল্টন চলতি মাসের ১৪ তারিখে বলেছেন, অডিও বার্তাটি সৌদি কনস্যুলেট থেকে ধারণ করা হলেও তা বিন সালমানের সাথে ঘাতকদের যোগাযোগের সূত্রের সাথে গাঁথা নয়।

অনেকেই ধারণা করেন যে, যেমনটি ইয়েমেনের যুদ্ধ বিন সালমানের অগোচরে হচ্ছে না ঠিক তেমন করেই সৌদি কনস্যুলেটে খাসোগি হত্যাকাণ্ডটি বিন সালমানের অগোচরে ঘটা অসম্ভব একটি ব্যাপার।

যদিও বিন সালমানের নাম অডিও বার্তাটিতে সরাসরি ব্যবহার করা হয়নি কিন্তু খাসোগি হত্যাকাণ্ডের সময়কার পরিস্থিতির সাথে মেলালে তাতে বিন সালমানের জড়িত থাকার বিষয়টি স্পষ্ট হয়ে যায়।

বিন সালমান একজনকে তার ঘনিষ্ঠতা দিয়েছেন এবং তিনি খাসোগি হত্যাকাণ্ডের পরে টেলিফোন বার্তায় বলছেন –‘তোমার বসকে জানাও’ এর মাধ্যমে হত্যাকারী সম্পর্কে বিন সালমান ছাড়া আর কারো দিকে আঙ্গুল তোলা অসম্ভব হয়ে দাঁড়িয়েছে।

সূত্রঃ মিডেলইস্ট মনিটর ডট কম।

মন্তব্য

মতামত দিন

মধ্যপ্রাচ্য পাতার আরো খবর

বিষ প্রয়োগে কারাবন্দি সৌদি আলেম আল-আমারির মৃত্যু

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএনরিয়াদ: সৌদি আরবের কারাবন্দি প্রখ্যাত আলেম আহমেদ আল-আমরি বিষ প্রয়োগের ফলে মারা গেছেন। বিষ প্রয়োগ . . . বিস্তারিত

মধ্যপ্রাচ্যে উত্তেজনা চরমে, যেকোনো সময় ইসরাইল-ইরানের মধ্যে ভয়াবহ যুদ্ধ লেগে যেতে পারে

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএনতেলআবিব: এক সময় বিশ্লেষকরা মনে করতেন যে সিরিয়া বা লেবাননের পরিস্থিতিকে কেন্দ্র করে ইসরাইল আর . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com