মধ্যপ্রাচ্য নিয়ে ট্রাম্প ও আব্বাসের সঙ্গে পুতিনের আলোচনা

১৩ ফেব্রুয়ারি,২০১৮

পুতিন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আরটিএনএন
মস্কো: মধ্যপ্রাচ্য নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ও ফিলিস্তিনি নেতা আব্বাসের সঙ্গে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিনের আলোচনা হয়েছে বলে জানা গেছে।

মস্কো সফররত ফিলিস্তিনি নেতা মাহমুদ আব্বাসের সঙ্গে আলোচনার শুরুতে সোমবার রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেছেন, তিনি মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে মধ্যপ্রাচ্য সংঘাত নিয়ে কথা বলেছেন। খবর এএফপি’র।

রুদ্ধদ্বার বৈঠক শুরুর আগে পুতিন আব্বাসকে বলেন, মধ্যপ্রাচ্য সংঘাত নিয়ে ‘আমি আমেরিকান প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সঙ্গে কথা বলেছি। আমরা সুস্পষ্টভাবে ইসরাইল-ফিলিস্তিন সংঘাতের ব্যাপারে কথা বলেছি।’

ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে জেরুজালেমকে ট্রাম্প স্বীকৃতি দেয়ায় ফিলিস্তিনি নাগরিক ও তাদের মিত্ররা ক্ষুব্ধ হওয়ায় পুতিনের সমর্থন আদায়ের লক্ষে ফিলিস্তিনি নেতা মস্কো সফর করছেন।

পুতিন বলেন, ‘এ সংঘাত নিরসনের ক্ষেত্রে আমরা যেটা দেখতে চাই সেখান থেকে পরিস্থিতি অনেক দূরে রয়েছে।’ তিনি আরো বলেন, ‘ফিলিস্তিনি জনগণের প্রতি তার সমর্থন সবসময়ই রয়েছে।’

হোয়াইট হাউসের এক বিবৃতিতে বলা হয়, ট্রাম্প পুতিনকে বলেছেন যে ‘একটি স্থায়ী শান্তি চুক্তি করার এখনি সময়।’

এদিকে গত বছরের শেষের দিকে ওয়াশিংটনের এমন সিদ্ধান্তের পর থেকেই ট্রাম্পের প্রশাসনের সাথে এ ব্যাপারে কোন ধরণের যোগাযোগ করতে আব্বাস অস্বীকৃতি জানান। তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের এমন পদক্ষেপের ফলে বর্তমানে যে ধরণের পরিবেশের সৃষ্টি হয়েছে তাতে আমরা মধ্যস্থতাকারি দেশ হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রকে আর কোন ভাবেই মেনে নিতে পারি না।

এমনকি যে কোন আন্তর্জাতিক বৈঠকে আমরা বলতে চাই যে এ সংঘাত নিরসনের ক্ষেত্রে যুক্তরাষ্ট্র একক মধ্যস্থতাকারি দেশ হতে পারবে না। তবে তারা মধ্যস্থতাকারি দেশের একটি হতে পারে। ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহুর মস্কো সফরের দুই সপ্তাহ পর পুতিনের সঙ্গে আব্বাসের এ বৈঠক হলো। বাসস।

এর আগে সিরিয়ার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় শহর আফরিনে তুরস্কের চলমান অভিযানের বিষয়টি নিয়ে প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ এরাদোগান টেলিফোনে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে আলোচনা করেছেন।

বুধবার তুরস্কের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম ‘আনাদুলো এজেন্সি’ এই তথ্য জানিয়েছে।

এর আগে, অভিযানে চতুর্থ দিন মঙ্গলবার বিষয়টি নিয়ে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাঁক্রোর সঙ্গেও কথা বলেন এরদোগান।

গত শনিবার তুর্কি সরকার নিজের সীমান্তবর্তী এলাকাগুলোয় নিরাপত্তা ও স্থিতি প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে পার্শ্ববর্তী আফরিন প্রদেশে তাদের ভাষায় সন্ত্রাসী পিকেকে, পিওয়াইডি ও আইএস নির্মূলে স্থল অভিযান শুরু করে। তুরস্ক তাদের এই অভিযানের নাম দিয়েছে অপারেশন ‘অলিভ ব্রাঞ্চ’।

কুর্দি অধ্যুষিত সিরিয়ার আফরিনে তুরস্কের এই সামরিক অভিযানে উদ্বেগ প্রকাশ করেছিল রাশিয়া। মস্কো দুই পক্ষকেই সংযম দেখানোর আহ্বান জানিয়েছিল।

গত শনিবার রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে বলেছিল, হামলার খবরে মস্কো উদ্বিগ্ন। আমরা দুই পক্ষকেই সংযম দেখানোর আহ্বান জানাচ্ছি।

রুশ মন্ত্রণালয় আরো জানিয়েছিল, সম্ভাব্য উসকানি ঠেকাতে এবং জীবনের ঝুঁকি বিবেচনা করে আফরিন এলাকা থেকে রাশিয়ার সেনাদেরকে সরিয়ে নেয়া হয়েছে। সিরিয়ার সার্বভৌমত্বের প্রতি সম্মান দেখানো ও দেশটির ভৌগোলিক অখণ্ডতা রক্ষার নীতি মেনেই রাশিয়া চলমান সংকট সমাধানের নীতিতে অটল রয়েছে।

চলমান এই অভিযান নিয়ে রাশিয়ার সঙ্গে আলোচনায় তুরস্ক পিছ পা হবে না বলে জানিয়েছিলেন প্রেসিডেন্ট এরদোগান।

সোমবার সরাসরি সম্প্রচারিত একটি টেলিভিশন সাক্ষাতকারে এরদোগান বলেছিলেন, ‘আফরিনকে সন্ত্রাসী মুক্ত করতে আমরা দৃঢ় প্রতিজ্ঞ।’

তিনি আরো বলেছিলেন, ‘আমরা পিছ পা হব না। বিষয়টি নিয়ে আমরা আমাদের রাশিয়ার বন্ধুদের সঙ্গে কথা বলব। এ নিয়ে আমাদের একটি চুক্তি রয়েছে।’

এদিকে, তুরস্ক জানিয়েছে, তারা আন্তর্জাতিক আইন ও জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের সিদ্ধান্ত মাফিক সন্ত্রাস মোকাবেলা ও আত্মরক্ষার অধিকার থেকেই এ আক্রমণ চালাচ্ছে। নাগরিকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে যেকোনো পদক্ষেপ নেবে বলেও জানায় তুরস্ক প্রশাসন।

মন্তব্য

মতামত দিন

মধ্যপ্রাচ্য পাতার আরো খবর

তিন বছরেই সৌদিকে ছাড়িয়ে যাবে ইরানের অর্থনীতি: আইএমএফ

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএনতেহরান: আন্তর্জাতিক অর্থ তহবিল বা আইএমএফ এক পূর্বাভাসে বলেছে, আগামী তিন বছর পর অর্থাৎ ২০২১ সালে . . . বিস্তারিত

সিরিয়ায় অস্ত্রের কারখানায় বিস্ফোরণে নিহত ৩৯

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএনদামেস্ক: বহুজাতিক আক্রমণে বিধ্বস্ত সিরিয়ার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের ইদলিব শহরে এক বিস্ফোরণে ১২ শিশুস . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com