ফিলিস্তিনিদের ভূমিতে আরো ১,১০০টি বসতি নির্মাণ করবে ইসরাইল!

১১ জানুয়ারি,২০১৮

ফিলিস্তিনিদের ভূমিতে আরো ১,১০০টি বসতি নির্মাণ করবে ইসরাইল!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আরটিএনএন
তেল আবিব: অধিকৃত জর্দান নদীর পশ্চিম তীরে আরো ১,১০০ নতুন বসতি স্থাপনের জন্য ইহুদিবাদী ইসরাইলি কর্তৃপক্ষ অনুমোদন দিয়েছে বলে স্থানীয় একটি এনজিও জানিয়েছে।

পশ্চিম তীরে বসতিস্থাপন কার্যক্রম পর্যবেক্ষণে নিয়োজিত ইহুদি বসতি বিরোধী বেসরকারি সংস্থা ‘পিস নাউ’ বৃহস্পতিবার এ তথ্য জানিয়েছে।

বসতি নির্মাণের প্রক্রিয়া অনুমোদনের দায়িত্বে নিয়োজিত একটি ইসরাইলি সামরিক বিষয়ক কমিটি বুধবার এ নির্দেশ দিয়েছে বলে সংস্থাটি জানায়।

পিস নাউ সংস্থাটির পরিচালক হাজিত অফরান বলেছেন, এরইমধ্যে ৩৫২টি বসতি নির্মাণের জন্য চূড়ান্ত অনুমোদন লাভ করেছে এবং বাকিগুলোর বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়ার প্রক্রিয়া প্রাথমিক পর্যায়ে রয়েছে।

তিনি আরো বলেন, বেশিরভাগ বসতি পশ্চিম তীরের গভীরে নির্মাণের জন্য অনুমোদন দেয়া হয়েছে। বসতি নির্মাণের জন্য ইসরাইল প্রয়োজনে বহু ফিলিস্তিনি বাড়িঘর উচ্ছেদ করছে। ইসরাইলের এ আচরণ কথিত দুই-রাষ্ট্রভিত্তিক সমাধানের ভবিষ্যত যে হুমিকর মধ্যে পড়বে তাতে কোনো সন্দেহ নেই।

ফিলিস্তিনের সঙ্গে সংযুক্ত প্রধান সড়ক বন্ধ করে দিয়েছে ইসরাইল
জেরুজালেম নিয়ে ট্রাম্পের ঘোষণার পর থেকে ফিলিস্তিনিদের ওপর দমনপীড়ন অব্যাহত রেখেছে ইহুদিবাদী ইসরাইল। এরই অংশ হিসেবে বুধবার পশ্চিম তীরের নাবলুসের সঙ্গে সংযুক্ত প্রধান একটি সড়ক বন্ধ করে দিয়েছে ইসরাইল।

ফিলিস্তিনের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম ‘ওয়াফা নিউজ এজেন্সি’ জানিয়েছে, মঙ্গলবার রাতে গুলিতে একজন ইসরাইলি সেটেলার নিহত হওয়ার পর ‘হুয়ারা চেকপয়েন্ট’ বন্ধ করে দিয়েছে ইসরাইলি বাহিনী।

গুরুত্বপূর্ণ এই সড়ক বন্ধ করে দেয়ায় পশ্চিম এবং রামাল্লার বিভিন্ন স্থানে পৌঁছানোর জন্য যাত্রীরা দীর্ঘ ও বিকল্প পথ বেছে নিতে বাধ্য হচ্ছে।

এছাড়াও, ক্রিসমাসের প্রাক্কালেও পশ্চিম তীরের শহর রামাল্লা ও আল-বিরেহের প্রবেশপথ অনির্দিষ্ট কালের জন্য বন্ধ করে দেয় ইসরাইল।

এদিকে, মঙ্গলবার রাতের ওই হত্যার প্রতিশোধ নিতে নাবলুস ও এর পাশ্ববর্তী কয়েকটি গ্রামে অভিযান চালিয়েছে ইসরাইলি বাহিনী।

গত বছরের ৬ ডিসেম্বর মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানীর স্বীকৃতির পাশাপাশি তেল আবিব থেকে তার দূতাবাস জেরুজালেমে স্থানান্তরের ঘোষণা দেন। তার এই ঘোষণার পর থেকে পশ্চিম তীর, পূর্ব জেরুজালেম ও গাজা স্ট্রিপে বিক্ষোভ ও সহিংসতা অব্যাহত রয়েছে।

তারপর থেকে এপর্যন্ত ইসরাইলি বাহিনী অন্তত ১৩জন ফিলিস্তিনিকে হত্যা করেছে। তবে, আনঅফিসিয়াল পরিসংখ্যানে নিহতদের সংখ্যা ৩০ থেকে ৪০ এর মধ্যে হতে পারে। এছাড়াও, অন্তত ২,৯০০ জন আহত হয়েছে এবং ৪০০ জনেরও বেশি লোককে আটক করা হয়েছে।

সূত্র: সিয়াসাত ডটকম

জেরুজালেম ‘বিক্রির জন্য নয়’: ফিলিস্তিনি প্রেসিডেন্টের মুখপাত্র
অর্থ সহায়তা বন্ধ করে দেয়ার হুমকি পাওয়ার পর ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসের কার্যালয় বলেছে, জেরুজালেম ‘বিক্রির জন্য নয়'। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এই সহায়তা বন্ধের হুমকি দেন।

এট টুইটে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘আমরা ফিলিস্তিনিদের বছরে শত শত মিলিয়ন ডলার দেই। কিন্তু বিনিময়ে কোনো সম্মান পাই না। ফিলিস্তিনিরা যেহেতু আর আলোচনায় বসতে আগ্রহী নয়, তাহলে কেন আমরা ভবিষ্যতে তাদের এত সহায়তা দেবো?'

এর আগে গতমাসে জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেয়ার ঘোষণা দেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। এর প্রতিক্রিয়ায় ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস তখন বলেছিলেন, মধ্যপ্রাচ্য শান্তি প্রক্রিয়ায় যুক্তরাষ্ট্র আর কোনো ভূমিকা রাখতে পারবে না।

ট্রাম্পের হুমকির প্রতিক্রিয়ায় ফিলিস্তিনি প্রেসিডেন্টের মুখপাত্র নাবিল আবু রুদাইনা এএফপিকে বলেন, ‘ফিলিস্তিন রাষ্ট্রের চিরন্তন রাজধানী হলো জেরুজালেম এবং এটা সোনা কিংবা অর্থের বিনিময়ে বিক্রয়যোগ্য নয়।'

তিনি বলেন, ‘আমরা আলোচনার টেবিলে ফিরে যাবার বিরোধী নই। কিন্তু তা হতে হবে আন্তর্জাতিক আইন ও নীতির ভিত্তিতে, যেখানে স্বাধীন ফিলিস্তিন রাষ্ট্র ও পূর্ব জেরুসালেমকে ঐ রাষ্ট্রের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেয়া হয়েছে।'

উল্লেখ্য, যুক্তরাষ্ট্র সরকারের হিসেব অনুযায়ী, ২০১৬ সালে যুক্তরাষ্ট্র ফিলিস্তিনকে ৩১৯ মিলিয়ন ডলার সহায়তা দিয়েছিল।

মন্তব্য

মতামত দিন

মধ্যপ্রাচ্য পাতার আরো খবর

হামাসের যুদ্ধবিরতির ঘোষণায় ইসরাইলের ‘না’

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএনগাজা: ইসরাইলের সঙ্গে একটি যুদ্ধবিরতির ঘোষণা দিয়েছে অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকার নিয়ন্ত্রণকারী হামাস। গ . . . বিস্তারিত

আফগান যুদ্ধ অবসানে সমন্বিত পদক্ষেপ নেয়ার আহ্বান ইসলামি নেতাদের

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএনরিয়াদ: সৌদিতে অনুষ্ঠেয় বিশ্বের নেতৃস্থানীয় ইসলামি পণ্ডিতদের একটি সম্মেলন থেকে আফগানিস্তানে চলম . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com