কঙ্গোতে সংঘর্ষে নিহত ২৬

১২ জানুয়ারি,২০১৭

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আরটিএনএন
ঢাকা: কঙ্গোতে এক উপজাতীয় প্রধানকে হত্যার জেরে তার সমর্থক ও নিরাপত্তা বাহিনীর মধ্যে নতুন বছরের শুরু থেকে দফায় দফায় সংঘর্ষে অন্তত ২৬ জন নিহত হয়েছেন।

স্থানীয় এক গভর্নরের বিবৃতিতে এ খবর জানিয়েছে।

কেন্দ্রীয় কাসাই প্রদেশের গভর্নর আলেক্স কান্দে এক বিবৃতিতে বলেন, ‘২০১৭ সালের শুরু থেকে এ পর্যন্ত ৪ বেসামরিক নাগরিক, নিরাপত্তা বাহিনীর ৯ সদস্য ও ১২ মিলিশিয়া যোদ্ধাসহ ২৬ জন নিহত হয়েছে’।

কান্দে বলেন, নিহতদের মধ্যে এক মিলিশিয়া নেতার স্ত্রীও রয়েছেন।

জাতিসংঘের হিসেব মতে, গত বছরের মধ্য আগস্টে উপজাতীয় নেতা কামউইনা সাঁপুর মৃত্যুর পর থেকে এ পর্যন্ত অন্তত ১৪০ জন লোক বিভিন্ন সংঘর্ষে নিহত হয়েছে।

এক বিবৃতিতে জাতিসংঘ জানিয়েছে, কঙ্গোর পরিস্থিতি দিন দিন অবনতি হচ্ছে।

গভর্নর কান্দের বিবৃতিতে আরো বলা হয়, কামউইনা সাঁপুর আন্দোলন সম্পূর্ণ অরাজতকা থেকে ভয়াবহ গেরিলা বাহিনীতে রূপ নিয়েছে।

গভর্নর অভিযোগ করেন, কামউইনা সাঁপুর সমর্থকরা তাদের সরকার বিরোধী লড়াইয়ে জোর করে অপ্রাপ্ত বয়স্কদের সম্পৃক্ত করছে এবং নারী ও শিশুদের মানবঢাল হিসেবে ব্যবহার করছে।

কামউইনা সাঁপু অনলাইনে এক অডিও বার্তায় প্রথমবারের মতো কঙ্গো মুক্ত করার আহ্বান জানানোর পর পরই গত বছর ১২ আগস্ট এক পুলিশী অভিযানে নিহত হন।

প্রেসিডেন্ট জোসেফ কাবিলা পদত্যাগ করতে অস্বীকৃতি জানানোর পর থেকে ডিআর কঙ্গোর বেশ কয়েক মাস ধরে রাজনৈতিক সংকটে পড়েছে। তবে দেশটির বিশাল জনগোষ্ঠী কাবিলার শাসনের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট নয় এমন অসন্তোষের কারণে দুর্ভোগ পোহাচ্ছে। দেশটি কয়েকটি অংশে জাতিগত ও ধর্মীয় সংঘাত চলছে।

সূত্র: এএফপি

মন্তব্য

মতামত দিন

আফ্রিকা পাতার আরো খবর

দক্ষিণ আফ্রিকায় মসজিদে ছুরি হামলা, নিহত ২

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএনজোহান্সবার্গ: দক্ষিণ আফ্রিকার একটি মসজিদে ছুরি হাতে হামলা চালিয়েছে এক ব্যক্তি। ওই হামলায় অন্তত . . . বিস্তারিত

আফ্রিকার প্রাচীন গাছগুলো মরে যাওয়ায় চিন্তিত বিজ্ঞানীরা

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএনসাহেল: আফ্রিকার সাভানাহ তৃণভূমিতে দাড়িয়ে থাকা হাজার প্রাচীন গাছ হঠাৎ করে মরে যেতে শুরু করায় . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com