নেতাকর্মীদের উপর আ’লীগের হামলার কারণে নির্বাচনী প্রচারণায় একাই কনকচাঁপা

২৩ ডিসেম্বর,২০১৮

নেতাকর্মীদের উপর আ’লীগের হামলার কারণে নির্বাচনী প্রচারণায় একাই কনকচাঁপা

নিজস্ব প্রতিনিধি
আরটিএনএন
সিরাজগঞ্জ: সিরাজগঞ্জ-১ (কাজিপুর-সদরের একাংশ) আসনে দলীয় নেতাকর্মী ছাড়াই স্বামীকে সাথে নিয়ে ভোটের প্রচারণায় নেমেছেন বিএনপি মনোনীত প্রার্থী কণ্ঠশিল্পী রোমানা মোর্শেদ কনকচাঁপা।

দু’দিনের প্রচার-প্রচারণায় সাধারণ মানুষের মধ্যে ব্যাপক সাড়া ফেলেছেন তিনি। কণ্ঠশিল্পী কনকচাঁপাকে এক নজর দেখতেও সাধারণ মানুষ তার চারপাশে ভিড় করছেন। তবে ভয়ভীতির কারণে প্রচারণায় নেতাকর্মীরা তার সাথে অংশ নিতে পারছেন না বলে জানিয়েছেন তিনি। পুলিশ থাকলেও প্রচারণায় নানাভাবে বাধার সম্মুখীন হচ্ছেন বলেও তিনি অভিযোগ তুলেছেন।

কণ্ঠশিল্পী রোমানা মোর্শেদ কনকচাঁপা জানান, জেলা রিটার্নিং অফিসার ও জেলা প্রশাসক কামরুন নাহার সিদ্দিকার সহায়তায় পুলিশি নিরাপত্তা নিয়ে তিনদিন ধরে নির্বাচনী প্রচারণায় মাঠে রয়েছেন তিনি। রিটার্নিং অফিসারকে ধন্যবাদ জানিয়ে এই কণ্ঠশিল্পী বলেন, প্রথমদিনে সোনামুখী ইউনিয়ন ও দ্বিতীয় দিন চালিতাডাঙ্গা ও মাইজবাড়ী ইউনিয়নে গণসংযোগ করেন।

তিনি বলেন, বিএনপি এবং কনকচাঁপার প্রতি জনগণের আলাদা ভালবাসা রয়েছে। সুষ্ঠু নির্বাচন হলে তিনি বিজয়ী হবেন।

তবে কনকচাঁপা অভিযোগ করে বলেন, প্রচারণার কথা জানতে পেরে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা মোড়ে মোড়ে অবস্থান নিয়ে কৌশলে বাধা দিচ্ছেন। রবিবার হরিনাথপুর এলাকায় নির্বাচনী প্রচারণায় গেলে কয়েকজন শিক্ষক তাকে উদ্দেশ্যে করে বলেন, কাজিপুর শুধু নৌকা মার্কার প্রচারণা চলবে, অন্য কোন প্রতীকের প্রচারণা চলবে না। আপনি শিল্পী হিসেবে কাজিপুরে আসবেন, কিন্তু কোনো প্রতীক নিয়ে আসতে পারবেন না।

তিনি বলেন, কাজিপুরের বিএনপির নেতাকর্মীদের বিভিন্নভাবে ভয়ভীতি প্রদর্শন করার কারণে নেতাকর্মীরা আমার সাথে প্রচারণায় অংশ নিতে পারছে না। তিনি আশঙ্কা প্রকাশ করে বলেন, প্রচারণার মাঠের যে পরিবেশ তাতে কেবল শিল্পী কনকচাঁপা হিসেবে নামছি বলেই হামলার শিকার হচ্ছি না। নির্বাচনী এলাকায় পোস্টার লাগাতেও দেয়া হচ্ছে। যাদেরকে পোস্টার লাগাতে দিয়েছিলাম তারা এখন ভয়ে বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে।

কনকচাঁপা অভিযোগ করে আরও বলেন, কাজিপুরে নৌকা তথা স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিমের প্রভাব ও জনপ্রিয়তা রয়েছে। তাই বলে কি অন্য প্রার্থীরা নির্বিঘ্নে প্রচার-প্রচারণা চালাতে পারবে না?

স্বাধীনতার মাসে এটা কোন ধরনের স্বাধীনতা? তিনি অবিলম্বে নেতাকর্মীদের ভয়ভীতি প্রদর্শন থেকে বিরত থাকাসহ নির্বিঘ্নে প্রচার-প্রচারণা চালানোর ব্যবস্থা করার জন্য সিইসির কাছে দাবি জানিয়েছেন।

কাজিপুর উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. রবিউল হাসান জানান, নির্বাচনী মাঠের পরিবেশ ভাল নয়, কনকচাঁপা যেখানেই যাচ্ছে সেখানে চারপাশে ছাত্রলীগ-যুবলীগ মিছিল করছে-পিছনে পিছনে যাচ্ছে। যে কারণে কনকচাঁপার সাথে প্রচারণায় অংশ নিতে পারছি না। তাছাড়া প্রতিনিয়ত নেতাকর্মীদের ভয়ভীতি প্রদর্শন করছেন। কনকচাঁপা নিজেও নেতাকর্মীদের নিরাপত্তার জন্য তার সাথে প্রচারণায় অংশগ্রহণ করতে নিষেধ করেছেন। তবে নিয়মিত তার সাথে যোগাযোগ রয়েছে। কোথায় যাচ্ছেন, কি করছেন সবকিছুই আমরা মনিটরিংয়ে রাখছি।

মন্তব্য

মতামত দিন

বিনোদন পাতার আরো খবর

দুষ্ট লোকের মন্দ কথায় কান দিবেন না, আমি ঋণখেলাপি নই: ফারুক

নিজস্ব প্রতিবেদকআরটিএনএনঢাকা: ঢাকা-১৭ আসনের আওয়ামী লীগের প্রার্থী বাংলা চলচ্চিত্রের অভিনেতা ফারুক বলেছেন, দুষ্ট লোকের মন . . . বিস্তারিত

ভোলায় আ’লীগের পক্ষে ভোট চাইলেন ফেরদৌস-অপু

নিজস্ব প্রতিনিধিআরটিএনএনভোলা: নৌকার প্রচারণা করতে ঢাকা থেকে হেলিকপ্টারযোগে ভোলার লালমোহনে গিয়েছেন চিত্রনায়ক ফেরদৌস ও নায় . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com