আদালতের জারি করা বিশ্বের অদ্ভুত ধরণের কিছু সাজা

২১ ডিসেম্বর,২০১৮

আদালতের জারি করা বিশ্বের অদ্ভুত ধরণের কিছু সাজা

নিউজ ডেস্ক
আরটিএনএন
ঢাকা: অবৈধভাবে কয়েকশো হরিণ শিকারের অভিযোগে কয়েকদিন আগে কারাদণ্ডের সাজা দেয়া হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের মিসৌরি অঙ্গরাজ্যের বাসিন্দা ডেভিড বেরি জুনিয়রকে।

সেই সঙ্গে তাকে আদেশ দেয়া হয়েছে যে অন্তত একমাস তাকে ডিজনির পশুদের নিয়ে কার্টুন ‘ব্যাম্বি’ দেখতে হবে। খবর বিবিসির।

এটা পরিষ্কার নয় যে, এই জনপ্রিয় কার্টুন তার ভেতর পশুদের জন্য ভালোবাসা তৈরি করতে পারবে কিনা- তবে ভিন্ন ধরণের এরকম সাজার ঘটনা এটাই প্রথম নয়।

গাধার সাথে হাটতে হবে
২০০৩ সালে শিকাগোর দুই কিশোরকে ৪৫দিনের সাজার পাশাপাশি তাদের শহরের কেন্দ্রস্থলে একটি গাধার সঙ্গে হাটার আদেশ দেয়া হয়।

গাধার সঙ্গে হাটার সময় দুজনকে একটি সাইনবোর্ড বহন করতে হবে, যেখানে লেখা থাকবে ‘এ ধরণের বোকার মতো অপরাধ করার জন্য দুঃখিত’।

একটি চার্চের ক্রিসমাসের আগের দিন শিশু যিশু খৃস্টের একটি মূর্তি চুরি ও নষ্ট করার অভিযোগে তাদের ওই সাজা দেয়া হয়েছিল।

জেসিকা ল্যাঞ্জ এবং ব্রায়ান প্যাট্রিকের সে সময় বয়স ছিল ১৭ বছর। গাধার সঙ্গে হাটার সময় তাদের একটি সাইনবোর্ড বহন করতে হবে, যেখানে লেখা থাকবে ‘এ ধরণের বোকার মতো অপরাধ করার জন্য দুঃখিত’।

চার্চে দশ বছর
গাড়ি চালিয়ে মানুষ হত্যার অভিযোগে ওকলাহোমার একটি হাইস্কুলের ছাত্রকে কারাগারের বাইরে আটকাদেশের নির্দেশ দেয়া হয়েছিল। ১৭ বছরের টেইলর আলফ্রেড মদ্যপান করে গাড়ি চালানোর সময় দুর্ঘটনায় তার একজন বন্ধু নিহত হয়।

তার সাজার মধ্যে অন্তর্ভুক্ত করা হয় যে, তাকে অবশ্যই স্কুল থেকে ডিগ্রি নিতে হবে, কারিগরি শিক্ষার ডিগ্রি নিতে হবে, একবছর মাদক, মদ বা নিকোটিনের নিয়মিত পরীক্ষা দিতে হবে, হাতে মাদক ও নিকোটিনের ব্রেসলেট পড়তে হবে, ক্ষতিগ্রস্তদের সভায় যেতে হবে আর অবশ্যই আগামী দশ বছর নিয়মিত চার্চে অংশ নিতে হবে।

চাকরি খুঁজে নাও
স্পেনের আন্দালুসিয়ায় একজন ব্যক্তি তার বাবা-মাকে আদালতে হাজির করেছিল, কারণ তারা তার হাতখরচ দেয়া বন্ধ করে দিয়েছিল। ২৫ বছরের ওই যুবক তার বাবা-মায়ের কাছে হাতখরচ হিসাবে ৩৫৫ পাউন্ড দাবি করে।

তবে পারিবারিক আদালতের বিচারক আদেশ দেন যে, পরবর্তী ৩০ দিনের মধ্যে তাকে বাবা-মায়ের বাসা ছাড়তে হবে এবং নিজের পায়ে দাঁড়াতে শিখতে হবে।

ক্লাসিক্যাল সঙ্গীত শোনা
গাড়িতে জোরে গান বাজানোর অভিযোগে ২০০৮ সালে অ্যান্ড্রু ভিক্টরকে ১২০ পাউন্ড জরিমানা করা হয়। সে সময় তিনি র্যািপ সঙ্গীত শুনছিলেন।

তবে বিচারক তাকে প্রস্তাব দেন, যদি তিনি বিশ ঘণ্টা বিটোভেন, বাচ এবং চোপিনের ক্লাসিক্যাল সঙ্গীত শুনে কাটাতে পারেন, তাহলে তার জরিমানা ৩০ পাউন্ড করে দেয়া হবে।

বিচারক চাইছিলেন, ভিক্টর বুঝতে পারুক যে ধরণের সঙ্গীত সে পছন্দ করে না, তা জোর করে শুনতে কেমন লাগে?

ভিক্টর অবশ্য মাত্র ১৫ মিনিট সেই সঙ্গীত শুনতে পেরেছিল। যদিও তার দাবি, সে বেরিয়ে এসেছিল এই কারণে যে, বাস্কেটবল প্র্যাকটিসে সে অনুপস্থিত থাকতে চায়নি।

মন্তব্য

মতামত দিন

বিনোদন পাতার আরো খবর

দুষ্ট লোকের মন্দ কথায় কান দিবেন না, আমি ঋণখেলাপি নই: ফারুক

নিজস্ব প্রতিবেদকআরটিএনএনঢাকা: ঢাকা-১৭ আসনের আওয়ামী লীগের প্রার্থী বাংলা চলচ্চিত্রের অভিনেতা ফারুক বলেছেন, দুষ্ট লোকের মন . . . বিস্তারিত

নেতাকর্মীদের উপর আ’লীগের হামলার কারণে নির্বাচনী প্রচারণায় একাই কনকচাঁপা

নিজস্ব প্রতিনিধিআরটিএনএনসিরাজগঞ্জ: সিরাজগঞ্জ-১ (কাজিপুর-সদরের একাংশ) আসনে দলীয় নেতাকর্মী ছাড়াই স্বামীকে সাথে নিয়ে ভোটের . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com