ধর্ষণের অভিযোগে মিঠুনপুত্রের বিয়ে পন্ড

০৮ জুলাই,২০১৮

 ধর্ষণের অভিযোগে মিঠুনপুত্রের বিয়ে পন্ড

বিনোদন ডেস্ক
আরটিএনএন
ঢাকা: ধর্ষণের মামলায় জামিন পেলেও শেষ মুহূর্তে বাতিল হয়ে গেল অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তীর ছেলে মহাক্ষয় চক্রবর্তী ওরফে মিমোর বিয়ে।

রবিবার ভারতের তামিলনাড়ুর নীলগিরি জেলার উধগমন্ডলমের একটি হোটেলে বিয়ের আয়োজন করা হয়েছিল। বিলাসবহুল এই হোটেলটি মিঠুনেরই। হোটেলেটিতে তদন্তকারীরা উপস্থিত হওয়ার পরেই বিয়ে বাতিল করে দিয়ে ফিরে গেছে কনেপক্ষ।

জানা যায়, কিছু দিন আগে এক নারীকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ধর্ষণ ও প্রতারণার অভিযোগ ওঠে মিমোর বিরুদ্ধে।

কিন্তু তা সত্ত্বেও বিয়ে বাতিল করেননি কনে মদালসা শর্মার পরিবার। পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী আজই তাদের বিয়ে হওয়ার কথা ছিল।

মিমোর বিরুদ্ধে অভিযোগ, বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে চার বছর ধরে এক নারীর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক রেখেছিলেন তিনি।

অভিযোগকারী ওই নারী ভোজপুরি অভিনেত্রী। তার অভিযোগ, ধর্ষণের পর তিনি অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়লে তাকে ওষুধ খাইয়ে গর্ভপাত করান মিঠুনের স্ত্রী যোগিতা বালি।

ছেলের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করার হুমকিও দেন যোগিতা। ওই অভিনেত্রী জানিয়েছেন, এর পরই ভয়ে মুম্বাই থেকে দিল্লি চলে যান তিনি, পরে রোহিণী থানায় মিমোদের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন।

এই সপ্তাহের শুরুতে দিল্লির এক আদালত জানায়, মিমো ও যোগিতার বিরুদ্ধে এফআইআর করার মতো যথেষ্ট প্রমাণ আছে।

বৃহস্পতিবার গ্রেপ্তারি এড়াতে মুম্বাই হাইকোর্টের আবেদন করেছিলেন মিমো ও তার মা। সেই আবেদন খারিজ করে বিচারপতি তাদেরকে দিল্লির সংশ্লিষ্ট আদালতে গিয়ে আবেদন জানাতে বলেন।

এরপর আজ দিল্লির আদালত এক লাখ টাকার ব্যক্তিগত বন্ডে মা-ছেলের জামিন দেন।

সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা

মন্তব্য

মতামত দিন

বিনোদন পাতার আরো খবর

আমি চাই দর্শক ভালো সিনেমা উপভোগ করুক: শাকিব খান

বিনোদন ডেস্কআরটিএনএনবিনোদন: দ্রুতই সেন্সর বোর্ডে জমা পড়তে যাচ্ছে বাংলাদেশের সুপার স্টার শাকিব খান অভিনীত কলকাতার চলচ্চিত . . . বিস্তারিত

সালমানের ‘রেস’ থেকে সরে গেলেন পরিচালক রেমো ডি সুজা

বিনোদন ডেস্কআরটিএনএনমুম্বাই: বলিউড সুপারস্টার সালমান খান ও পরিচালক রেমো ডি সুজা একসঙ্গে কাজ করেছিলেন অ্যাকশন ধামাকা &lsq . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com