সৌদি সিনেমায় বৃহৎ কোম্পানিগুলোর দৌড়ঝাপ

০৫ জানুয়ারি,২০১৮

সৌদি সিনেমায়

বিনোদন ডেস্ক
আরটিএনএন
ঢাকা: প্রায় ৩৫ বছর পর সৌদি আরবে চলচ্চিত্র নির্মাণ ও প্রদর্শনের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের পর এই খাতে বিনিয়োগে প্রতিযোগিতা শুরু করেছে বিশ্বের বড় বড় ফিল্ম কোম্পানিগুলো। এরইমধ্যে ব্রিটেনের ভুই এন্টারটেইনমেন্ট, যুক্তরাষ্ট্রের এএমসি এবং কানাডার আইম্যাক্স’র মতো দুনিয়াখ্যাত প্রতিষ্ঠানগুলো প্রতিযোগিতায় নেমে পড়েছে।

চলতি বছরের মার্চ মাস থেকে সিনেমা উন্মুক্ত হতে যাচ্ছে সৌদি আরবে। বিশ্বের অনেক চলচ্চিত্র কোম্পানিরই বাজার ভালো যাচ্ছে না উত্তর আমেরিকা ও ইউরোপের দেশগুলোতে। সৌদি তাদের জন্য সম্ভবনা হয়ে দেখা দিয়েছে। দীর্ঘদিন বন্ধ থাকায় সিনেমার জন্য মুখিয়ে আছে সৌদিরাও।

এই খাতে বিনিয়োগকারীদের সব ধরনের সহযোগিতার প্রস্তাব দিয়েছে রিয়াদ। পরিসংখ্যান মতে, ২০৩০ সালের মধ্যে সৌদি আরবে চালু হবে ৩০০ সিনেমা হল। এতে কর্মসংস্থান হবে ৩০ হাজার মানুষের। ২৪ বিলিয়ন ডলারের ইন্ডাস্ট্রি হবে সৌদি আরবের সিনেমা।

চলচ্চিত্র কোম্পানিগুলোর মধ্যে প্রতিযোগিতায় সবচেয়ে এগিয়ে আছে ভুই এন্টারটেইনমেন্ট। ইতিমধ্যে তারা ২০০ বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগের ব্যাপারে কথা বলছে সৌদি সরকারের সঙ্গে। দেশটিতে ২০ থেকে ৩০টি সিনেমা হল নির্মাণ করবে তারা। গত বছরের অক্টোবরে এক বাণিজ্যিক সম্মেলনে সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের কাছ থেকে আমন্ত্রণও পেয়েছেন প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্বাহী টিম রিচার্ডস।

গত মাসে সৌদি সরকারের সঙ্গে চলচ্চিত্র নির্মাণে একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করে বিশ্বের বৃহত্তম ফিল্ম কোম্পানি এএমসি। তবে এ ব্যাপারে বিস্তারিত কিছু জানায়নি তারা। ধারণা করা হচ্ছে, এক বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করবে তারা।

এদিকে কানাডার কোম্পানি আইম্যাক্স’র প্রধান নির্বাহী রিচার্ড গেলফন্ড জানান, তারা ইতিমধ্যে সৌদি আরবের একমাত্র সিনেমা হল সুলতান বিন আবদুল আজিজ সেন্টার ফর সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি চালাচ্ছেন। ২০০৫ সালে এটি উদ্বোধন করা হয়।

আশির দশকে সৌদি আরবে চলচ্চিত্র প্রদর্শন নিষিদ্ধ করা হয়। কিন্তু বর্তমান যুবরাজ তার দেশের ‘আধুনিকায়নে’ চলচ্চিত্র উন্মুক্ত করার ঘোষণা দেন। এছাড়া পর্যটকদের জন্যও সৌদি আরবকে ‘আদর্শ স্থান’ হিসেবে গড়ে তোলার ঘোষণা দেন তিনি।

মন্তব্য

মতামত দিন

বিনোদন পাতার আরো খবর

আগে একটু খেয়ে নিই, অনেক ক্ষুধা পেয়েছে…

নিউজ ডেস্কআরটিএনএনঢাকা: তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি (আইসিটি) আইনে করা মামলায় গত ১১ জুন জামিন পেয়েছেন কণ্ঠশিল্পী আসিফ আকবর। গ . . . বিস্তারিত

প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার পর মুসলিম লেখককে আক্রমণ

বিনোদন ডেস্কআরটিএনএননয়াদিল্লি: মার্কিন টিভি সিরিজ কোয়ান্টিকোর একটি বিতর্কিত পর্বকে ঘিরে হিন্দু জাতীয়তাবাদীরা সোশাল মিড . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com