যুক্তরাজ্যের পার্লামেন্টে মিসেস পিপার

১৮ অক্টোবর,২০১৮

যুক্তরাজ্যের পার্লামেন্টে মিসেস পিপার

প্রযুক্তি ডেস্ক
আরটিএনএন
লন্ডন: প্রথমবারের মতো যুক্তরাজ্যের পার্লামেন্টে রোবটের পা পড়েছে। হেঁটে-চলে বেড়ানো পিপার নামের ওই রোবটকে গত মঙ্গলবার আমন্ত্রণ জানিয়েছিল ব্রিটিশ পার্লামেন্টের শিক্ষাবিষয়ক কমিটি।

নারীর আদলে তৈরি রোবটটির বুকে একটি ট্যাবলেট কম্পিউটার রয়েছে। শিক্ষাবিষয়ক কমিটির কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা (এআই) এবং ‘চতুর্থ শিল্পবিপ্লব’ বিষয়ক শুনানিতে সাধারণ কিছু প্রশ্নের উত্তর দিতে রোবটটিকে আমন্ত্রণ জানানো হয়।

শুনানির সময় কমিটির সদস্যরা পিপারকে জিজ্ঞেস করেন, যখন বিশ্বে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার রাজত্ব চলবে, তখন কি মানুষের জন্য কোনো জায়গা থাকবে? জবাবে পিপার কমিটির সদস্যদের আশ্বস্ত করে বলেছে, রোবট গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে ঠিকই।

কিন্তু আমাদের সব সময়ই সূক্ষ্ম কিছু দক্ষতার প্রয়োজন পড়বে, যা কেবল মানুষেরই থাকে। এসব দক্ষতার মধ্যে রয়েছে বোধশক্তি এবং প্রযুক্তি তৈরি ও পরিচালনা।

পিপারের সঙ্গে অলিখিত কিছু বিষয় নিয়েও আলোচনা হয় কমিটির সদস্যদের। তারা এ সময় নৈতিকতা ও সামাজিক ন্যায়বিচার নিয়ে কথা বলেন। পিপার সেসব কথা শোনার পাশাপাশি বার কয়েক মাথাও নাড়ে।

ব্রিটিশ পার্লামেন্টে রোবটের উপস্থিতি যুক্তরাজ্যের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বেশ আলোচনার সৃষ্টি করেছে। টুইটারে অনেকেই মজা করে প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মের সঙ্গে মিলিয়ে পিপারের নাম দিয়েছেন ‘মেবট’।

সংবাদ-বিষয়ক জনপ্রিয় ওয়েবসাইট পলিটিকস হোমও মজা করতে ছাড়েনি। তারা সংবাদের শিরোনাম করেছে, ‘নতুন: হাউস অব কমন্স কমিটির সামনে দক্ষতা দেখাল রোবট কিন্তু তিনি থেরেসা মে নন।’

মন্তব্য

মতামত দিন

প্রযুক্তি পাতার আরো খবর

মুসলিমদের জন্য ‘সালামওয়েব’ নতুন ইন্টারনেট ব্রাউজার নিয়ে বিশ্বে ব্যাপক আলোচনা

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএনকুয়ালালামপুর: মালয়েশিয়ার প্রযুক্তিবিদদের নেয়া একটি নতুন উদ্যোগ নিয়ে ইন্টারনেটে ব্যাপক আলোচনা হচ . . . বিস্তারিত

গুগল সার্চে বাংলাদেশের কোন জায়গা থেকে কারা কি খোঁজেন, জানিয়ে দিল গুগল

নিউজ ডেস্কআরটিএনএনঢাকা: ব্যক্তিগত মোবাইল বা কম্পিউটার, যা ইচ্ছা তাইতো খুঁজতে পারি। আছে স্বাধীনতা, আছে গোপনীয়তা। কিন্তু . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com