মেলা প্রাঙ্গণ ঘুরে গেছে সোফিয়া

০৬ ডিসেম্বর,২০১৭

মেলা প্রাঙ্গণ ঘুরে গেছে সোফিয়া

প্রযুক্তি ডেস্ক
আরটিএনএন
ঢাকা: বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের উৎসব প্রাঙ্গণ ঘুরে গেছে সোফিয়া। হলুদ-সাদা স্কার্ট ও টপ পরে সোফিয়া উৎসব প্রাঙ্গণ ঘুরেন। যেখানে একদিন বাদেই সবাইকে দর্শন দেবেন তিনি।

মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের উৎসব প্রাঙ্গণ ঘুরতে আসেন।তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা বিষয়টি নিশ্চিত করেন।বুধবার সকাল ৯টার দিকে ‘ডিজিটাল ওয়ার্ল্ডে’ যাবে যন্ত্রমানবী সোফিয়া।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা বলেন, ‘ইন্সটল হওয়ার পর সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের হল অব ফেমে মহড়া দিয়ে গেছে সোফিয়া।প্রায় দেড় ঘণ্টা মহড়া শেষে হোটেলে ফিরিয়ে নেওয়া হয় সোফিয়াকে।’

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এসময় সোফিয়ার সঙ্গে কথা বলেন বলেও জানান ওই কর্মকর্তা।

এর আগে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার নারী রোবট সোফিয়া সৌদি নাগরিক পেয়ে ভিসা পাসপোর্ট ছাড়াই বাংলাদেশে চলে এসেছে। বাংলাদেশে এসেই পেয়েছে বাংলাদেশ বিমানের ‘গোল্ড মেম্বারশিপ’।

তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয় সূত্র এ খবর নিশ্চিত করেছে।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস সূত্রে জানা গেছে, রোবট সোফিয়াকে সৌজন্যমূলক (কমপ্লিমেন্টারি) ‘গোল্ড মেম্বারশিপ’ দেওয়া হয়েছে।

সরকারি বিমান সংস্থাটির ওয়েবসাইটের তথ্য অনুযায়ী, কোনো যাত্রী প্রতিবছর ৭৫ হাজার মাইল আকাশপথ ভ্রমণ করলে গোল্ড মেম্বারশিপ পেতে পারেন। তিনি ব্যক্তিগত গোল্ড কার্ড, ব্যাগেজ কার্ড ও সিইওর কাছ থেকে সম্ভাষণ চিঠিসহ বিশেষ উপহার পান। দুই বছরের ওই কার্ডে বিশেষ অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণসহ নানা সুবিধা পান যাত্রী।

তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয় সূত্র জানিয়েছে, মঙ্গলবার ঢাকায় এসেছে সোফিয়া। থাই এয়ারলাইনসের একটি ফ্লাইটে বিমানবন্দরে আসে সোফিয়া। তার সঙ্গে বাংলাদেশে এসেছেন একজন অপারেটর। নির্মাতা ডেভিড হ্যানসনের আজ রাতে আসার কথা রয়েছে। সোফিয়ার দেহের বিভিন্ন যন্ত্রাংশ খুলে খণ্ড-খণ্ডভাবে বাক্সবন্দী করে ঢাকায় আনা হয়েছে। বর্তমানে রাজধানীর একটি পাঁচতারকা হোটেলে অবস্থান করছে সোফিয়া।

বুধবার থেকে শুরু হতে যাওয়া দেশের সবচেয়ে বড় তথ্যপ্রযুক্তি উৎসব ডিজিটাল ওয়ার্ল্ডের উদ্বোধনী দিনে সোফিয়া উপস্থিত থাকবে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে। সঙ্গে থাকবেন তার নির্মাতা ডেভিড হ্যানসন।

জানা গেছে, বুধবার সকাল থেকেই বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে থাকবে সোফিয়া। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের সবচেয়ে বড় এই তথ্যপ্রযুক্তি প্রদর্শনী উদ্বোধন করবেন। সেই উদ্বোধনী অনুষ্ঠানেও থাকবে সোফিয়া। তবে সে সময় সোফিয়ার সঙ্গে কেউ কথা বলার সুযোগ পাবেন না।

বেলা আড়াইটায় হল অব ফেমে ‘টেক টক উইথ সোফিয়া’ নামের একটি বিশেষ অনুষ্ঠান থাকছে। তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, সোফিয়াকে যে প্রশ্ন করা হবে, জ্যেষ্ঠ সাংবাদিকদের কাছ থেকে তা সংগ্রহ করা হয়েছে। সোফিয়ার যে বৈশিষ্ট্য, তাতে আনুষ্ঠানিক ঘরানার সাক্ষাৎকার নেওয়া ঠিক হবে না। তার সঙ্গে মজার ও বুদ্ধিদীপ্ত কথোপকথন চলবে। আগে নিবন্ধন করা ব্যক্তিরা অংশ নিতে পারবেন।

এ অনুষ্ঠানের একপর্যায়ে আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন এবং শেষে আসবেন ডেভিড হ্যানসন। শেষ পর্বে ডেভিড হ্যানসন বক্তব্য দেবেন। তিনি সোফিয়ার কারিগরি দিক ও কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা নিয়ে কথা বলবেন। এ অনুষ্ঠানে দেশের বিভিন্ন রোবটিক এবং কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ক্লাবের সদস্যরা অংশ নেবেন। তাঁরাও সোফিয়ার সঙ্গে প্রশ্নোত্তর পর্বে অংশ নিতে পারবেন।

সোফিয়া ইংরেজিতে কথা বলে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে কৃত্রিম বুদ্ধিমান সোফিয়ার কণ্ঠে বাংলা শুনলেও অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না! তবে বিষয়টি নিশ্চিত নয়।

এর আগে বাংলাদেশকে শুভেচ্ছা জানিয়ে একটি বার্তা পাঠায় সোফিয়া। তাতে ভাঙা বাংলায় বলে ‘ধন্যবাদ’।

সোফিয়া দেখতে হলিউড অভিনেত্রী অড্রে হেপবার্নের মতো। কোনো প্রশ্ন করলে সে স্মিত হেসে গুছিয়ে উত্তর দিতে পারে। তবে এখনো পরিপূর্ণ নয় সে। মাথার পেছনের দিকটি চিপ আর যন্ত্রপাতিতে ঠাসা। গত অক্টোবরের শেষ সপ্তাহে সৌদি আরব সোফিয়াকে নাগরিকের মর্যাদা দেয়। এরপরই আলোচনায় আসে সে। পরে এক সাক্ষাৎকারে নিজের পরিবার গঠন ও সন্তান ধারণের ইচ্ছা প্রকাশ করে এ রোবট। সোফিয়ার ভাষ্য, পরিবার খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি ব্যাপার। একটি মেয়েসন্তানের খুব শখ তার। নিজের নামের সঙ্গে মিলিয়ে মেয়ের নাম রাখতে চায় সে।

মূলত মানুষের সঙ্গে কথাবার্তা চালানোর উদ্দেশ্যে প্রোগ্রাম করা হয়েছে সোফিয়াকে। কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাসম্পন্ন সোফিয়া বিভিন্ন মুখভঙ্গি ফুটিয়ে তোলার পাশাপাশি কৌতুকও করতে পারে। কোনো প্রশ্নের উত্তর জানতে চাওয়া হলে ওয়াই-ফাই নেটওয়ার্কের সাহায্যে বিশাল তথ্যভান্ডার থেকে ‘মেশিন লার্নিং’ পদ্ধতিতে প্রশ্নের জবাব দেয়। ২০১৫ সালের ১৯ এপ্রিল সোফিয়াকে প্রথম সক্রিয় করা হয়।

সোফিয়ার রূপকার ডেভিড হ্যানসনের ভাষ্য, এতে ফেসিয়াল রিকগনিশন ব্যবহার করা হয়েছে। আছে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা, ভিজুয়াল ডেটা প্রসেস করার ক্ষমতা। এটি মানুষের মুখের অঙ্গভঙ্গি নকল করতে ও মুখভঙ্গি দেখাতে পারে। নির্দিষ্ট কিছু প্রশ্নের উত্তর দিয়ে সাধারণ কথোপকথন, বিশেষ করে কোনো বিশেষ বিষয়ের ওপর আলোচনা চালাতে পারে। এখন গুগলের মূল প্রতিষ্ঠান অ্যালফাবেটের ভয়েস রিকগনিশন প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়। কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ব্যবহৃত হওয়ায় ভবিষ্যতে এর কথোপকথন আরও উন্নত হবে। বাড়িতে বয়স্ক মানুষের সঙ্গী হিসেবে ও ঘরবাড়ি দেখাশোনা করতে, অনুষ্ঠান ও পার্কে মানুষের সাহায্যে কাজে লাগবে সোফিয়া। সামাজিক দক্ষতা মানুষের পর্যায়ে নিয়ে মানুষের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারবে সোফিয়া।

বুধবার অনুষ্ঠান শেষেই দেশে ফিরে যাবে সোফিয়া। রোবট সোফিয়াকে ঘিরে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে অনেকেই উচ্ছ্বাস প্রকাশ করছেন। সোফিয়াকে দেখতে হলে নিবন্ধন করতে হবে ডিজিটাল ওয়ার্ল্ডের ওয়েবসাইট থেকে। ওয়েবসাইটের ঠিকানা

মন্তব্য

মতামত দিন

প্রযুক্তি পাতার আরো খবর

এবার খোঁজ মিললো আট গ্রহের মিনি সৌরজগতের

প্রযুক্তি ডেস্কআরটিএনএনঢাকা: আমাদের সৌরজগতের মতোই আরেকটি নক্ষত্র-জগতের খোঁজ মিলেছে। সেখানেও আমাদের সৌরজগতের মতো একটি নক্ . . . বিস্তারিত

ইউটিউবে খেলনা দেখিয়ে কোটিপতি শিশু রায়ান

প্রযুক্তি ডেস্কআরটিএনএনঢাকা: ইউটিউবে চ্যানেল বানিয়ে, খেলনা দেখিয়ে কোটি টাকা আয় করেছে ছয় বছরের রায়ান। সে ইউটিউবে খেলনা দ . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com