ঘৃণা ছড়ানো বন্ধে জার্মানিতে ফেসবুকের তৎপরতা

১১ আগস্ট,২০১৭

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আরটিএনএন
বার্লিন: অনলাইনে ঘৃণা ছড়ানো বন্ধ করতে জার্মানিতে কর্মী নিয়োগ করছে ফেসবুক। আইনে নিষিদ্ধ এমন সব কথা শেয়ার করলে সেসবও মুছে ফেলা হবে। এসেন শহরে একটি অফিস খোলার ঘোষণা দিয়েছে এই সোশ্যাল মিডিয়া জায়ান্ট।

বিশ্বের সবচেয়ে বড় অনলাইন সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম জানিয়েছে জার্মানির এসেন শহরে স্থাপন করা এই দ্বিতীয় কেন্দ্রটি শুধুমাত্র এই বিষয়টি নিয়েই কাজ করবে। কেন্দ্রটিতে পাঁচ শতাধিক কর্মী নিয়োগ দেয়ার কথা ভাবছে প্রতিষ্ঠানটি।

আগামী কয়েক মাসের মধ্যেই এই কেন্দ্রের কাজ শুরু হবে। বার্লিনে একই ধরনের একটি কেন্দ্র আছে ফেসবুকের। সেখানেও কর্মীসংখ্যা পর্যায়ক্রমে সাতশতে নিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা জানিয়েছে ফেসবুক।

এসেনের নতুন কর্মযজ্ঞ পরিচালনা করবে কমপিটেন্স কল সেন্টার নামের একটি বেসরকারি সার্ভিস প্রোভাইডার, বার্লিনের কেন্দ্রটি পরিচালনায় আছে বার্টেলসমান গ্রুপের সার্ভিস ফার্ম আর্ভাটো।

অনলাইনে কেউ ঘৃণাসূচক কথা পোস্ট করলে তা ২৪ ঘণ্টার মধ্যে মুছে ফেলতে হবে, জার্মানিতে নতুন এই আইন মেনে নিজেদের কর্মকাণ্ডেও পরিবর্তন আনতে বাধ্য হয়েছে ফেসবুক। ফেসবুক অবশ্য স্বীকার করছে, বিভিন্ন পোস্টে ছড়িয়ে যাওয়া এ ধরনের বক্তব্য সরানোর মতো জনবল এই মুহূর্তে প্রতিষ্ঠানটির নেই। তবে খুব দ্রুতই এ কাজে হাত দেয়ার কথাও বলছে তারা।

কনটেন্ট পরীক্ষা করার জন্য এই মুহূর্তে বিশ্বজুড়ে কাজ করছেন ফেসবুকের সাড়ে চার হাজার কর্মী। তবে এ মাসের মধ্যেই এই সংখ্যা সাড়ে সাত হাজারে নিয়ে যাওয়ার কথা ভাবছে প্রতিষ্ঠানটি। এখন প্রতি মাসে আপত্তিকর প্রায় ৩ লাখের মতো পোস্ট মুছে ফেলে ফেসবুক।

ঘৃণাবাচক শব্দ স্বয়ংক্রিয়ভাবে মুছে যাবে, এমন পদ্ধতি আবিষ্কারে কাজ করে যাচ্ছে ফেসবুক। কিন্তু এক্ষেত্রে পুরোপুরি কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা বা যন্ত্রের ওপর নির্ভর করার বিষয় এখনো অনেক দূরের পথ, স্বীকার করছে ফেসবুকও।

সূত্র: ডয়চে ভেলে

মন্তব্য

মতামত দিন

প্রযুক্তি পাতার আরো খবর

এবার খোঁজ মিললো আট গ্রহের মিনি সৌরজগতের

প্রযুক্তি ডেস্কআরটিএনএনঢাকা: আমাদের সৌরজগতের মতোই আরেকটি নক্ষত্র-জগতের খোঁজ মিলেছে। সেখানেও আমাদের সৌরজগতের মতো একটি নক্ . . . বিস্তারিত

ইউটিউবে খেলনা দেখিয়ে কোটিপতি শিশু রায়ান

প্রযুক্তি ডেস্কআরটিএনএনঢাকা: ইউটিউবে চ্যানেল বানিয়ে, খেলনা দেখিয়ে কোটি টাকা আয় করেছে ছয় বছরের রায়ান। সে ইউটিউবে খেলনা দ . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com