ক্যারিয়ারের শেষ ৪০০ মিটারের রিলেতে দৌড় শেষ করতে পারেননি উসাইন

১৩ আগস্ট,২০১৭

খেলা ডেস্ক
আরটিএনএন
ঢাকা: হ্যামস্ট্রিং চোটে ক্যারিয়ারের শেষ ৪০০ মিটারের রিলেতে দৌড় শেষ করতে পারেননি উসাইন বোল্ট। ইভেন্টে স্বর্ণ জিতে নিয়েছে ব্রিটেন। খবর বিবিসি ও সিএনএনের।

এর আগে ক্যারিয়ারের শেষ ১০০ মিটার রেসেও জিততে পারেননি উসাইন বোল্ট। সর্বকালের সেরা খেতাব পাওয়া এই জ্যামাইকান দৌড়বিদকে হারিয়ে বিশ্ব অ্যাথলেটিক্স চ্যাম্পিয়নশিপের ১০০ মিটারের স্বর্ণ জয় করে নেন দীর্ঘ ক্যারিয়ারে বারবার বিতর্কের মুখে পড়া মার্কিন দৌড়বিদ জাস্টিন গ্যাটলিন।

শেষ রেসে তৃতীয় অবস্থানে থেকে ব্রোঞ্জ জিতেছেন বোল্ট।

কিন্তু তার যে কিংবদন্তী পরিচয়, এই পরাজয়ে তাতে কি কোন কমতি হবে?

বিবিসির সাবেক ক্রীড়া সম্পাদক মিহির বোস বলছেন, ইতিহাস যখন লেখা হবে, তখন দেখা যাবে বোল্টের তুলনা করা হয়েছে মোহাম্মদ আলীর সঙ্গে।

বক্সিং রিং এ মোহাম্মদ আলী শেষ পাঁচটি ম্যাচ জিততে পারেননি।

কিন্তু তাতে তার অর্জন কমে যায়নি।

বরং মানুষ মনে রাখবে কতদিন কত বছর ধরে উসাইন বোল্ট অজেয় ছিলেন।

অ্যাথলেটিক্সে যখন অনেক বিতর্ক, বিভক্তি এবং অনেক গণ্ডগোল, তখন মানুষ জানত যাই হোক না বোল্ট যদি মাঠে থাকে তাহলে অ্যাথলেটিক্স ঠিক আছে।

মিহির বোস বলছেন, সর্বকালের সেরা অ্যাথলেট হিসেবে স্বীকৃতি পাওয়া উসাইন বোল্টের আরেকটি বড় অর্জন হলো পুরো পৃথিবীর মানুষের আস্থা অর্জন করা।

দর্শকেরা জানত এবং বিশ্বাস করত, এই অ্যাথলেট খেলছে, জিতছে ড্রাগ নিয়ে না, সে জিতছে দুর্দান্ত খেলে।

খেলা এবং নিজস্ব স্টাইল মিলে উসাইন বোল্টের বিদায়ে অ্যাথলেটিক্স গ্ল্যামার হারাবে বলে মনে করেন বোস।

মন্তব্য

মতামত দিন

অন্যান্য পাতার আরো খবর

মুসলিম নারী খেলোয়াড়দের অনুপ্রেরণা হিজাবি জাহরা

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএনদুবাই: সংযুক্ত আরব আমিরাতের স্কেটিং ফিগার জাহরা লারি ২০১৮ সালের শীতকালীন অলিম্পিকের জন্য চূড়ান . . . বিস্তারিত

তাসের বিশ্বকাপ: ‘ব্রিজ খেলতে দেখলে পরিবার বলতো জুয়া খেলছি’

নিউজ ডেস্কআরটিএনএনঢাকা: বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে তাস খেলাকে সহজভাবে নেয় না অনেক পরিবার। কিন্তু এটা যে জুয়া খেলা নয়, এই . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান, গোলাম রসুল প্লাজা (তৃতীয় তলা), ৪০৪ দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০।
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com