শীঘ্রই ফুটবলকে বিদায় রোনালদিনহোর

০৭ ডিসেম্বর,২০১৭

শীঘ্রই ফুটবলকে বিদায় রোনালদিনহোর

খেলা ডেস্ক
আরটিএনএন
ঢাকা: ২০১৮ সালে পেশাদার ফুটবল থেকে অবসর নেওয়ার কথা জানিয়েছেন ব্রাজিলিয়ান যাদুকর রোনালদিনহো। দুই বছর ধরে খেলার জন্য কোনও ঠিকানা খুঁজে না পেয়ে আপাতত বার্সেলোনার অ্যাম্বাসেডরের দায়িত্বে আছেন ব্রাজিলিয়ান তারকা। এবার তার সময় এসে গেছে ফুটবলকে বিদায় বলার।

ফ্লুমিনেন্স ছাড়ার পর দুই বছর কেটে গেছে, কোনও ক্লাবের জার্সিতে আর দেখা যায়নি রোনালদিনহোকে। এবার তিনি ফুটবলের বাইরের কিছু নিয়ে সময় কাটাতে চান। ১৯৯৮ সালে গ্রেমিওতে যেই ক্যারিয়ারের শুরু, তার সমাপ্তি টানার সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছেন তিনি।

২০০৪ ও ২০০৫ সালের ফিফা বর্ষসেরা খেলোয়াড় বলেছেন, সময় এসে গেছে। আগামী বছর ফুটবলকে আনুষ্ঠানিকভাবে বিদায় বলতে যাচ্ছি আমি।

২০০২ সালে ব্রাজিলের সঙ্গে বিশ্বকাপ জেতা রোনালদো তার ফুটবলোত্তর পরিকল্পনা জানালেন পরের বাক্যে, ফুটবল থেকে অবসর নেওয়ার পর আমি আমার সঙ্গীতধর্মী প্রকল্প নিয়ে কাজ করব, আমার ফুটবল স্কুলও আছে। এটা আমার জন্য নতুন কিছু হবে, কিন্তু আমাকে মানিয়ে নিতে হবে।

আমি আসছি বার্সায়: রোনালদিনহো
ঢাকা: প্রিয় দলে ফেরার সুযোগে আনন্দিত রোনালদিনহো টুইট করেছেন ‘আমি আসছি’। শুক্রবার নতুন ভূমিকা নিয়ে চুক্তি সই করেছেন রোনালদিনহো ও ক্লাব প্রেসিডেন্ট জোসেপ মারিয়া বার্তেমিউ।

২০০৩ সালে ক্লাবের ট্রান্সফার ফির রেকর্ড গড়েই ন্যু ক্যাম্পে রোনালদিনহোকে এনেছিল বার্সেলোনা। কাতালান ক্লাবটির সে সময়কার প্রেসিডেন্ট হুয়ান লাপোর্তা সমর্থকদের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন ডেভিড বেকহামকে নিয়ে আসার, কিন্তু টাকার খেলায় পারেননি রিয়াল মাদ্রিদের সঙ্গে।

পরবর্তী পছন্দ হিসেবে প্যারিস সেন্ত জার্মেই থেকে ৩০ মিলিয়ন ইউরো ট্রান্সফার ফি দিয়ে ব্রাজিলিয়ান এই প্লেমেকারকে দলে আনে বার্সেলোনা। মনে রাখবেন, ১৪ বছর আগের দলবদলের বাজারে কিন্তু খেয়াল খুশি মতো পেট্রো ডলার উড়ত না। বেকহামকে না পেলেও যাকে পেয়েছিলেন লাপোর্তা, তাতে যে বাণিজ্যতে লাভের মুখই দেখেছিলেন এই নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই।

বার্সেলোনায় ৫ মৌসুমে ২০৭টি ম্যাচ আর ৯৪টি গোল। এতে আসলে কিছুই বোঝানো যাবে না নীল-মেরুনে রোনালদিনহোর অবদান। ক্রুইফের ড্রিম টিমের পর রোনালদিনহোর নৈপুণ্যেই ১৪ বছর পর চ্যাম্পিয়নস লিগ জিতেছিল বার্সেলোনা। রিয়ালের মাঠে রিয়ালকে হারানোর পর সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে ‘স্ট্যান্ডিং ওভেশন’ পাওয়া। বার্সেলোনায় থাকতেই পর পর দুই বছর ফিফা বর্ষসেরা ফুটবলার এবং ওয়ার্ল্ড সকার ম্যাগাজিনের বর্ষসেরা হওয়া।

২০০৫ সালে ব্যালন ডি’অর এবং ওজ ডি’অর পাওয়া। সব মিলিয়ে বার্সেলোনাকে রোনালদিনহো নিয়ে গিয়েছিলেন নতুন উচ্চতায়। রোনালদিনহোর ছায়া তলেই উত্থান লিওনেল মেসির। যদিও ফুর্তিবাজ জীবনের ফাঁদে বার্সেলোনায় শেষটা সুখের হয়নি এই ফুটবল কিংবদন্তির। ২২ মিলিয়ন ইউরোর কিছু বেশি দামে তিন বছরের জন্য তাঁকে এসি মিলানে বিক্রি করে দেয় বার্সেলোনা।

ইতালি থেকে ব্রাজিলেই ফিরে যান রোনালদিনহো, বার্সা ছাড়ার পর ক্যারিয়ার গ্রাফটাও হয় নিম্নমুখী। এভাবেই ক্রমে দূরত্ব বাড়ে বার্সেলোনার সঙ্গে। তবে সেটাই ঘোচাতে আগ্রহী ক্লাব কর্তৃপক্ষ। রোনালদিনহোকে ক্লাবের দূত নিযুক্ত করতে যাচ্ছে বার্সেলোনা, এই নিয়ে দুই পক্ষই একমত হয়েছে। সামনের বছর গুলোতে রোনালদিনহো বিভিন্ন অনুষ্ঠানে ক্লাবের প্রতিনিধিত্ব করবেন, বিভিন্ন কোচিং ক্লিনিক, ট্রেনিং সেশনে শেখাবেন এবং বার্সেলোনা ক্লাবের ব্র্যান্ডভ্যালুকে আরো বাড়াবেন।

বার্সেলোনা ফাউন্ডেশন ও ইউনিসেফের বিভিন্ন প্রকল্পেও সাহায্যের হাত বাড়াবেন রোনালদিনহো। প্রদর্শনী ম্যাচ খেলবেন বার্সেলোনা লেজেন্ডস দলের হয়েও।

মন্তব্য

মতামত দিন

ফুটবল পাতার আরো খবর

অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হয়ে এএফসি’র দ্বিতীয় পর্বে বাংলাদেশ

খেলা ডেস্কআরটিএনএনঢাকা: ভিয়েতনামকে ২-০ গোলে হারিয়ে আসরে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হয়েছে লাল সবুজের বাংলাদেশি মেয়েরা। দুই বছর আগ . . . বিস্তারিত

আমিরাতকে সাত গোলে হারালো বাংলাদেশ

খেলা ডেস্কআরটিএনএনআবুধাবি: সংযুক্ত আরব আমিরাতকে ৭-০ গোলে হারিয়েছে বাংলাদেশের কিশোরীরা। আনুচিং মগিনির হ্যাটট্রিকে প্রথমার . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com