বিপিএলের মাঠের প্রস্তুতি শুরু

০২ জানুয়ারি,২০১৯

বিপিএলের মাঠের প্রস্তুতি শুরু

খেলা ডেস্ক
আরটিএনএন
ঢাকা: বিসিবির দেয়া সূচি অনুসারে বিপিএলের ষষ্ঠ আসরের মাত্র ৩ দিন বাকি। সব কিছু ঠিক থাকলে শনিবার মাঠে গড়াবে দেশের ঘরোয়া ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় এ আসর। গত বছর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের কারণে বিপিএল এক দফা পিছিয়েছে।

নতুন বছরে প্রথম দিনই শুরু হয়ে গেছে বিপিএলের মাঠের লড়াইয়ের প্রস্তুতি। গতকাল মিরপুর শেরেবাংলা একাডেমির মাঠে অনুষ্ঠানিকভাবে অনুশীলনে আসে তিনটি দল। এর মধ্যে সিলেট সিক্সার্স ও রাজশাহী কিংসের ক্রিকেটাররা পূর্ণাঙ্গ অনুশীলন করে। কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের ছিল ঐচ্ছিক অনুশীলন। কুমিল্লার দুই সেরা ক্রিকেটার তামিম ইকবাল ও এনামুল হক বিজয়ই মাঠে ঘাম ঝরিয়েছেন।

এর মধ্যে বিজয় নিজেদের দল নিয়ে বলেন, ‘আসলে খুবই ভালো দল হয়েছে। অভিজ্ঞ দল বলা যায়। তামিম ভাই আছে, ইমরুল ভাই আছে, বিদেশি ক্রিকেটারদের মধ্যে শোয়েব মালিক, স্মিথ আছে, আফ্রিদির মতো খেলোয়াড় থাকায় আমার মনে হয় দল হিসেবে কুমিল্লা খুবই দারুণ আর খুবই বন্ধুত্বপূর্ণ। যেটি আসলে এ ধরনের ফ্র্যাঞ্চাইজি লীগের জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ। এটি আমাদের মধ্যে আছে। আমাদের কোচ বলেন, ম্যানেজমেন্ট বলেন সবাই আলাদাভাবে অনেক সাহায্য করে। সবমিলিয়ে বলতে পারি যে, অনেক গোছালো এবং ভালো একটি দল।’

দিনের শুরু দুপুর ১২টা থেকে অনুশীলন করেছে সিলেট সিক্সার্স। এরপর রাজশাহী কিংসের অনুশীলন দুপুর ৩টায় শুরু হয়। রাজশাহীতে শেষ পর্যন্ত খেলার সুযোগ পেয়েছেন দেশের এক সময়ের সেরা তারকা ক্রিকেটার শাহরিয়ার নাফীস। বিপিএলের নিলামে তিনি প্রথমে দলই পাননি।

যে কারণে এই ক্রিকেটার মুখিয়ে আছেন নিজের যোগ্যতার প্রতি এমন অবহেলার জবাব দিতে। তিনি বলেন, ‘সত্যি কথা বলতে কি দল পাওয়া বা না পাওয়ার ব্যাপারটি সব সময় তো ক্রিকেটারদের হাতে থাকে না। তবে আমি চেষ্টা করি ব্যক্তিগতভাবে যখনই যে দলের হয়ে খেলি তখনই সেরাটা দেয়ার। আমি রাজশাহী কিংস কর্তৃপক্ষের কাছে কৃতজ্ঞ যে আমাকে তারা বিবেচনা করেছেন এবং ড্রাফটের পরে আমাকে সুযোগ দিয়েছেন। আমি চেষ্টা করবো আমার সামর্থ্য এবং অভিজ্ঞতা সব দিয়ে সার্বিকভাবে খেলা এবং যতটুকু সম্ভব ভালো অবদান রাখতে।’

দীর্ঘদিন থেকেই জাতীয় দলের বাইরে রয়েছেন শাহরিয়ার নাফীস। তবে বিপিএলকে তার ফিরে আসার লক্ষ্য বানিয়ে খেলতে চান না। তার উদ্দেশ্য দলের জন্য অবদান রাখা। এ নিয়ে তিনি বলেন, ‘আমি একটা বিষয় সব সময় ফলো করা বা মেনে চলার চেষ্টা করি, তা হচ্ছে যে দলের খেলি সেই দলের জন্য পারফরম্যান্স দিতে চেষ্টা করি।

অন্য কোনো চিন্তা বা বিপিএলের মাধ্যমে জাতীয় দলে খেলা- ওই ধরনের পরিকল্পনা বা ভিশন আমার মধ্যে নেই, তবে চেষ্টা করবো ভালো পারফরমেন্স করতে। কারণ একজন ক্রিকেটার সিলেকশনের প্রথম শর্তই হলো তার পারফরমেন্স। আমি যদি নিয়মিত পারফর্ম করি এবং ভবিষ্যতে যদি বাংলাদেশ দলের প্রয়োজন হয় তবে আমি যেন প্রস্তুত থাকতে পারি।’

মন্তব্য

মতামত দিন

ক্রিকেট পাতার আরো খবর

নিউজিল্যান্ড-বাংলাদেশ ক্রিকেট: সাকিবকে ছাড়া খেলা বাংলাদেশের জন্য কতটা কঠিন?

খেলা ডেস্কআরটিএনএনঢাকা: বাংলাদেশ ও নিউজিল্যান্ড আগামীকাল বুধবার তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচে মুখোমুখি হচ্ছে। . . . বিস্তারিত

বিপিএল ফাইনাল: টসে জিতে ফিল্ডিংয়ে ঢাকা ডায়নামাইটস

নিজস্ব প্রতিবেদকআরটিএনএনঢাকা: মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) ফাইনালে শিরোপার লড়াইয়ে মাঠে . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com