ব্যাটিং বিপর্যয়ে বাংলাদেশ

০৪ নভেম্বর,২০১৮

ব্যাটিং বিপর্যয়ে বাংলাদেশ

খেলা ডেস্ক
আরটিএনএন
সিলেট: সিলেটে সিরিজের প্রথম টেস্টে সফরকারী জিম্বাবুয়েকে প্রথম ইনিংস ২৮২ রানে বেঁধে ফেলে বাংলাদেশ। এরপর ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুতেই চরম বিপর্যয় ঘটে স্বাগতিকদের।

শুরুতেই ৫ উইকেট হারিয়ে বেশ বিপদেই রয়েছেন টাইগাররা।

রবিবার সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত বাংলাদেশ ২৮ ওভারে মাত্র ৭৪ রান তুলেছে, উইকেট হারিয়েছে পাঁচটি।

দলীয় ৮ রানের মাথায় প্রথমে ইমরুল কায়েস (৫) সাজঘরে ফেরেন। অল্প কিছুক্ষণের মধ্যে আরেক ওপেনার লিটন দাসও (৯) আউট হয়ে যান। তরুণ নাজমুল হোসেন শান্তও বেশিক্ষণ থাকতে পারেননি, ৫ রান করেই প্যাভিলিয়নের পথে রওনা হন। শূন্যরানে সাজঘরে ফেরেন অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহও।

এর আগে বাঁ-হাতি স্পিনার তাইজুল ইসলামের ৬ উইকেট শিকারে সিলেটের অভিষেক টেস্টে জিম্বাবুয়েকে প্রথম ইনিংসে ২৮২ রানেই অলআউট করে দেয় স্বাগতিক বাংলাদেশ।

প্রথম দিন শেষে জিম্বাবুয়ে করেছিলো ৫ উইকেটে ২৩৬ রান। দ্বিতীয় দিন বাকী ৫ উইকেটে আরও ৪৬ রান যোগ করতে পারে সফরকারীরা। দলের পক্ষে সিন উইলিয়ামস ৮৮, পিটার মুর অপরাজিত ৬৩ ও অধিনায়ক হ্যামিল্টন মাসাকাদজা ৫২ রান করেন।

বাংলাদেশের তাইজুল ১০৮ রানের বিনিময়ে ৬ উইকেট নেন। এছাড়া নাজমুল ইসলাম ২টি, আবু জায়েদ-মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ ১টি করে উইকেট নেন।

আগের দিনও প্রথম দুটি উইকেট নিয়েছিলেন তাজুল। মোট আট উইকেট নিয়ে জিম্বাবুয়ের ব্যাটিংয়ের সবচেয়ে বড় আতঙ্ক হয়েছিলেন তিনি।

অবশ্য ম্যাচে টস জিতে ব্যাটিংয়ে নামা জিম্বাবুয়ে শুরুতেই চাপে পড়ে যায়। পরে অবশ্য শন উইলিয়ামসের ব্যাট হাতের দৃঢ়তায় কিছুটা ঘুরে দাঁড়ায় তারা। কিন্তু শতকের কাছাকাছি গিয়ে মাহমুদউল্লাহর শিকার হয়ে সাজঘরে ফেরেন তিনি। চার উইকেট হারিয়ে দল যখন কিছুটা চাপে, তখন প্রতিরোধ গড়েছিলেন উইলিয়ামস। সাজঘরে ফেরার আগে তিনি ১৭৩ বলে ৮৮ রান করেন।

এর আগে ব্রায়ান চারি ব্যক্তিগত ১৩ রানে সাজঘরে ফেরেন। তাঁকে সরাসরি বোল্ড করেন স্পিনার তাইজুল ইসলাম। বেশিক্ষণ উইকেটে থাকতে পারেননি অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান ব্রেন্ডন টেইলরও। ব্যক্তিগত ৬ রানে আউট হন তিনি। তিনিও তাইজুলের শিকার। মাসাকাদজা সাজঘরে ফেরার আগে করেন ৫২ রান। সিকান্দার রাজা করেন ১৯ রান।

আর রেজিস চাকাভা ২৮ ও মাসাকাদজা ৪ রান করে সাজঘরে ফিরেন। তবে পিটার মোর শেষ পর্যন্ত অপরাজিত থেকে দলের ইনিংসটাতে তিন শতকের কাছাকাছি নিতে সবচেয়ে বড় অবদান রাখেন। তিনি হার না মানা ৬৩ রান করেন।

মন্তব্য

মতামত দিন

ক্রিকেট পাতার আরো খবর

রাজশাহীকে বড় ব্যবধানে হারিয়ে যাত্রা শুরু ঢাকার

ক্রীড়া প্রতিবেদকআরটিএনএনঢাকা: তিনবারের চ্যাম্পিয়ন ঢাকা ডায়নামাইটস বড় জয়ে শুরু করেছে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) ষষ . . . বিস্তারিত

২০১৮ সালে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের আলোচিত যত ঘটনা

স্পোর্টস ডেস্কআরটিএনএনঢাকা: ২০১৮ সাল বাংলাদেশের ক্রিকেটে ভাল ও মন্দের মিশ্রণ লক্ষ্য করা গিয়েছে। এবছরই বাংলাদেশের ক্রিকে . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com