প্রশ্ন ফাঁস: শিক্ষিকা-ছাত্রের দুই বছরের কারাদণ্ড

১২ এপ্রিল,২০১৭

নিজস্ব প্রতিবেদক

আরটিএনএন

ঢাকা: রাজধানীর লালমাটিয়ায় প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগে সিফাত জেসমিন নূর নামের এক শিক্ষিকাসহ দুজনকে আটক করেছে পুলিশ। আটক অপরজনের নাম মেহেদী হাসান।


দণ্ডপ্রাপ্ত সিফাত জেসমিন নূর রাজধানীর একটি কলেজের উদ্ভিদবিজ্ঞানের শিক্ষক। আর মেহেদী হাসান রাজধানীর তেজগাঁও কলেজের শিক্ষার্থী।


পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতে তাদের দু’জনকেই দুই বছর করে কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।


লালমাটিয়া কলেজ কেন্দ্রে কর্তব্যরত ম্যাজিস্ট্রেট মো. তোফাজ্জেল হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।


প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বুধবার সকাল ১০টা থেকে লালমাটিয়া মহিলা কলেজ কেন্দ্রে উদ্ভিদবিজ্ঞান বিষয়ের উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা চলছিল। এসময় পরীক্ষাকেন্দ্র সংলগ্ন কুটুমবাড়ি রেস্তোরাঁ থেকে সিফাত জেসমিন নূর ও মেহেদী হাসানকে আটক করে সাদা পোশাকের পুলিশ।


এসময় ফাঁস হওয়া প্রশ্ন মোবাইল ফোনের ফেসবুকে সমাধান করছিলেন তারা। মেহেদী হাসানের মোবাইল থেকে ‘আর জে রাহাত’ নামের এক আইডি পাওয়া যায়। সেখানে ফেসবুকে পোস্টের বিষয়টি বের হয়ে আসে।


ম্যাজিস্ট্রেট মো. তোফাজ্জেল হোসেন জানান, বিষয়টি প্রমাণ হওয়ায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে তাদের দু’জনকে দুই বছর করে কারাদণ্ডাদেশ দেয়া হয়েছে। পরে তাদের মোহাম্মদপুর থানায় নেয়া হয়। সেখান থেকে তাদের কারাগারে পাঠানো হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

মন্তব্য

মতামত দিন

শিক্ষা পাতার আরো খবর

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর নিজস্ব ক্যাম্পাস বাধ্যতামূলক: শিক্ষামন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদকআরটিএনএনঢাকা: আমরা সরকারি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের সমমান নিশ্চিত করতে চাই। তাই বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গ . . . বিস্তারিত

দাওরায়ে হাদিসকে মাস্টার্স ডিগ্রীর সমমান দিল সরকার

নিউজ ডেস্কআরটিএনএনঢাকা: কওমি মাদ্রাসার সর্বোচ্চ স্তর দাওরায়ে হাদিসকে মাস্টার্স সমমর্যাদা ঘোষণা করেছে সরকার। এখন থেকে দাও . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান, গোলাম রসুল প্লাজা (তৃতীয় তলা), ৪০৪ দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০।
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com