সর্বশেষ সংবাদ: |
  • ব্রিটিশ হাইকমিশনারকে আমাদের উদ্বেগের বিষয়গুলো জানিয়েছি: ড. কামাল
  • দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন নিয়ে সুজনের সংশয়, বিতর্কিত নির্বাচন হলে দেশের তরুণরাই বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হবে : বদিউল আলম মজুমদার
  • জিয়া অরফানেজ মামলায় রায়ের বিরুদ্ধে খালেদা জিয়ার আপিল, সাজা স্থগিত ও জামিন চাওয়া হয়েছে, নির্বাচনে বাধা নেই : ব্যারিস্টার কায়সার কামাল
  • বিকল্পধারার চেয়ারম্যান ডা. বদরুদ্দোজা চৌধুরীর সঙ্গে ভারতীয় হাইকমিশনার হর্ষবর্ধন শ্রিংলার বৈঠক চলছে
  • তারেক রহমানের ভিডিও কনফারেন্স বিএনপির অভ্যন্তরীণ বিষয়

টেকসই উন্নয়নের জন্য নৈতিক শিক্ষার কোনো বিকল্প নেই: এইউবি ভিসি

২৬ অক্টোবর,২০১৮

টেকসই উন্নয়নের জন্য নৈতিক শিক্ষার কোনো বিকল্প নেই: এইউবি ভিসি

নিজস্ব প্রতিবেদক
আরটিএনএন
ঢাকা: এশিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ (এইউবি) এর ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. আবুল হাসান মুহাম্মদ সাদেক বলেছেন, নীতি-নৈতিকতা ও মূল্যবোধ ছাড়া কোনোভাবেই টেকসই উন্নয়ন সম্ভব নয়। তাই টেকসই উন্নয়নের জন্য নৈতিক শিক্ষার কোনো বিকল্প নেই।

শুক্রবার (২৬ অক্টোবর) বিকেলে এশিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশের উদ্যোগে রাজধানীর হোটেল লা মেরিডিয়ানে ‘টেকসই উন্নয়নে নৈতিক মূল্যবোধ’শীর্ষক দু’দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রফেসর সাদেক বলেন, মানুষ ও অন্যান্য প্রাণীর মধ্যে বড় পার্থক্য হলো মানুষ নৈতিকতাসম্পন্ন জীব, অন্য প্রাণী তা নয়। ন্যায় আর সত্যের পথ অনুসরণ করে অন্যের ক্ষতি না করে যতটুকু সম্ভব উপকার করা, অপরের কল্যাণ করা প্রতিটি নৈতিকতাসম্পন্ন মানুষের কাজ। প্রতিটি ধর্মেই তাই নৈতিকতার কথা বলা হয়েছে অত্যন্ত গুরুত্ব সহকারে। কারণ নৈতিকতাবিহীন মানুষ ধর্মীয় কাজ করে কী করবেন? শুধু শারীরিক প্র্যাকটিস? নৈতিকতার মধ্যেই লুকিয়ে আছে সততা, মহত্ত্ব, ন্যায়পরায়ণতা, আদর্শবাদিতা। লোভলালসা, সীমাহীন উচ্চাভিলাষ, বিবেচনাহীন জৈবিক কামনা মানুষকে অসৎ পথে পরিচালিত করে। এতে সমাজ ও দেশ ধ্বংসের দিকে এগিয়ে যায়।

তিনি আরো বলেন, আমরা দেশের বড় বড় সিটির দিকে তাকালেই দেখতে পাই সুবিশাল অট্টালিকা, মনে হয় যেন দেশ এগোচ্ছে হু-হু করে। কিন্তু সামাজিক মূল্যবোধ যে অবক্ষয়ের দিকে দ্রুত ধাবিত হচ্ছে, তা যদিও চোখে দেখা যায় না কিন্তু অনুভব করা যায়। আর তার ফলে যা হয়, আমরা তা প্রত্যক্ষও করছি ব্যক্তি ও সমাজজীবনে; কিন্তু বিষয়টিকে গুরুত্ব দিচ্ছি কম। সমাজের রন্ধ্রে রন্ধ্রে দুর্নীতি- এটি নৈতিকতার অবক্ষয়েরই প্রমাণ। দেশের বৈষয়িক উন্নতির সঙ্গে নৈতিকতার অধঃপতন নিয়ে সমাজবিজ্ঞানীরা চিন্তিত হয়ে পড়েছেন। কয়েক যুগ আগে যেসব অপরাধের কথা চিন্তা করা যেত না, এখন সে ধরনের অপরাধ সমাজে সংঘটিত হচ্ছে দেদার। নৈতিকতার অভাবে আর্থ-সামাজিক সকল খাতেই সংকট তৈরি হচ্ছে। এক্ষেত্রে তিনি বিভিন্ন বড় বড় প্রকল্পের অর্থ তসরুপের বিষয়টি তুলে ধরে নৈতিকতা ও মূল্যবোধের উপর গুরুত্বারোপ করেন।

প্রফেসর সাদেক বলেন, আমাদের এই বিশ্ববিদ্যালয় এমন এক বিশ্ববিদ্যালয় যেখানে আধুনিক যুগোপযোগী শিক্ষা দেয়ার পাশাপাশি শিক্ষার্থীদেরকে নৈতিকতা সম্পন্ন সুনাগরিক হিসেবে গড়ে তোলার সকল উপকরণই রয়েছে। এই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা কারিকুলাম ও মান ইতোমধ্যেই বিদেশি শিক্ষার্থীদেরও আকৃষ্ট করতে সক্ষম হয়েছে।

মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. চে মুসা চে ওমর এ ধরেনর একটি আন্তর্জাতিক সম্মলেনের আয়োজন করায় এইউবি কর্তৃপক্ষের ভূয়সী প্রশংসা করেন। তিনিও সমাজের টেকসই উন্নয়নের জন্য নৈতিকতা ও মূল্যবোধের উপর গুরুত্বারোপ করেন।

এছাড়াও সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে দেওয়া বক্তৃতায় অন্যান্য অতিথিরা উন্নয়নের প্রধান অন্তরায় জঙ্গিবাদ ও দুর্নীতি প্রতিরোধে নৈতিক মূল্যবোধ চর্চার ওপরও গুরুত্বারোপ করেন।

অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. চে মুসা চে ওমর, ভারতের আলীগড় মুসলিম বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ ইসমাঈল, শিলং বিশ্ববিদ্যালয়ের ড. সুমনা পাল প্রমুখ। এছাড়াও অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন ড. মুহাম্মদ ওবায়দুল্লাহ। সবশেষে অতিথিদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন এবং সম্মেলনে অংশগ্রহণের জন্য শিক্ষক, গবেষক ও বুদ্ধিজীবীদের ধন্যবাদ জানান আইইউবি ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান ড. মোহাম্মদ জাফর সাদেক।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ‘এথিকস এন্ড মোরালিটি ফর সাসটেনেবল ডেভেলপমেন্ট: দ্যা পারসপেক্টিভ’ শিরোনামে নিবন্ধ উপস্থাপন করেন অনুষ্ঠানের সভাপতি এশিয়ান ইউনির্ভার্সিটির উপাচার্য ড. আবুল হাসান মোহাম্মদ সাদেক।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, নৈতিকভাবে সমৃদ্ধ একজন মানুষ কখনো হত্যা, সন্ত্রাস ও দুর্নীতিতে জড়াতে পারে না। আর তাই বাংলাদেশ সরকার তার চলমান উন্নয়নমূলক কর্মসূচিকে অবিরাম রাখার জন্য দুর্নীতি ও সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানাই।

বাংলাদেশে বর্তমানে যে উন্নয়নের ধারা সূচিত হয়েছে তা অব্যাহত রাখতে হলে শিক্ষাব্যবস্থায় নৈতিক মূল্যবোধ সৃষ্টির ওপর গুরুত্ব দিতে হবে বলেও উল্লেখ করেন বক্তারা।

মন্তব্য

মতামত দিন

প্রধান খবর পাতার আরো খবর

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘ঘ’ ইউনিটের পুনঃভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ

নিজস্ব প্রতিবেদকআরটিএনএনঢাবি: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ২০১৮-২০১৯ শিক্ষাবর্ষে সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘ঘ’ (GHA) . . . বিস্তারিত

পাবিপ্রবি বন্ধ ঘোষণা, শিক্ষার্থীদের হল ত্যাগের নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিনিধিআরটিএনএনপাবনা: পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (পাবিপ্রবি) শিক্ষার্থীদের নানা দাবি আদায়ে দিনভর . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com