সর্বশেষ সংবাদ: |
  • বিএনপি নেতা রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু ও ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকুর প্রার্থিতা বৈধ করবে বলে জানিয়েছেন আদালত, অ্যাটর্নি জেনারেলের মতামত নেওয়ার পর আদেশ
  • তিন আসনে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মনোনয়নপত্র বাতিলের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে দায়ের করা রিটের শুনানি চলছে
  • সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানে সংবিধান, ভোটার ও রাজনৈতিক নেতাদের কাছে দায়বদ্ধ নির্বাচন কমিশন : সিইসি

শিক্ষকদের আমরণ অনশনে হাতে হাতে স্যালাইন, ৯২ জন অসুস্থ

২৯ জুন,২০১৮

শিক্ষকদের আমরণ অনশনে হাতে হাতে স্যালাইন, ৯২ জন অসুস্থ

নিজস্ব প্রতিবেদক
আরটিএনএন
ঢাকা: জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে দেশের নন-এমপিওভুক্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোকে এমপিওভূক্তির দাবিতে শিক্ষক-কর্মচারীদের আমরণ অনশনের আজ পঞ্চম দিন।

শুক্রবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে গিয়ে দেখা যায়, অনশনরত অনেক শিক্ষক অসুস্থ হয়ে পড়েছে। স্যালাইন দিয়ে রাখা হয়েছে বেশ কয়েকজন শিক্ষককে। আমরণ অনশন চালিয়ে যাওয়া শিক্ষক-কর্মকর্তাদের মধ্যে ৯২ জন অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। ১১ জনকে হাসপাতালে ভর্তি করানোর পাশাপাশি ৬৯ জনকে দেওয়া হয়েছে স্যালাইন। শিক্ষকরা পুলিশি বাধা, গ্রেপ্তার, বৃষ্টি-বাদল, রোদ ও ভ্যাপসা গরম, রাতে মশার কামড় খেয়ে রাজপথের ফুটপাতে লাগাতার অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন।

আন্দোলনরত শিক্ষকরা বলেন, এমপিভুক্ত না হওয়ার কারণে ১০ থেকে ১২ বছর যাবৎ ১৫ লক্ষাধিক শিক্ষার্থীকে পাঠদানকারী ১ লাখ ২০ হাজার শিক্ষক কর্মচারী বিনা বেতনে মানবেতর জীবন যাপন করছে। যা অত্যন্ত কষ্টকর ও বেদনাদায়ক। তারা বলেন, এ সকল ননএমপিও শিক্ষক কর্মচারীদের  বেতন ভাতা আদায়ের লক্ষ্যে দীর্ঘ ৫ বছর অধিক সময় নিয়মতান্ত্রিক আন্দোলন সংগ্রাম পালন করতে গিয়ে আমাদের বেশ ক`জন শিক্ষক-কর্মচারী হতাহত হয়েছে। স্বীকৃতিপ্রাপ্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের এমপিওভুক্তি ঝুলে থাকায় এসব নন-এমপিও শিক্ষক পরিবাবার সরকারের দিকে এখনও তাকিয়ে আছে।

কথা হয়, নন-এমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান শিক্ষক-কর্মচারী ফেডারেশনের সভাপতি অধ্যক্ষ গোলাম মাহমুদুন্নবী ডলারের সঙ্গে। তিনি বলেন, ‘গত ডিসেম্বরে এসেছিলাম, যখন ছিল আমাদের উইন্টার ভ্যাকেশন (শীতের ছুটি)। এইবার এসেছি, আমাদের রোজার যে ছুটি, ঈদের যে ছুটি এর মধ্যে এসেছি। আমরা কিন্তু শিক্ষা কার্যক্রমকে ব্যাহত করার জন্য আসিনি। তারপরে আমরা তো নিরুপায় আসলে এখন। পিঠ দেওয়ালে ঠেকে গেছে।’

এদিকে, গত ৫ই জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী নন-এমপিওভূক্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর এমপিওভূক্তির দাবি জানান শিক্ষকনেতারা। তাদের অভিযোগ, বাজেটে এমপিওভূক্তির সুস্পষ্ট কার্যকর পদক্ষেপের কথা বলা হয় নাই। গত ২৫ জুন থেকে তারা আমরণ অনশন শুরু করেন।

সারা দেশে পাঁচ হাজার ২৪২টি স্বীকৃতিপ্রাপ্ত নন-এমপিও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে (স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা, কারিগরি) কর্মরত প্রায় ৮০ হাজার শিক্ষক-কর্মচারীকে এমপিওভুক্তির দাবিতে গত ৫ জানুয়ারি অনশন চলাকালীন প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে একান্ত সচিব মো. সাজ্জাদুল হাসান, শিক্ষা সচিব সোহরাব হোসাইনকে সঙ্গে নিয়ে উপস্থিত হন।

তিনি প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে সব নন-এমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করার প্রতিশ্রুতি দেন। তবে ২০১৮-১৯ প্রস্তাবিত বাজেটে প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী, এমপিওভুক্তি বাস্তবায়নের জন্য সুনির্দিষ্ট কোনো অর্থ বরাদ্দ রাখা হয়নি। খবরটি সারা দেশের নন-এমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীদের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ে। শিক্ষকরা আহাজারি-আর্তনাদে ও বিক্ষোভে ফেটে পড়েন, তাই আগের ঘোষণা অনুযায়ী ১০ জুন পবিত্র রমজান মাসে সারা দেশ থেকে আসা শিক্ষকরা জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে অবস্থান গ্রহণ করেন।

মন্তব্য

মতামত দিন

প্রধান খবর পাতার আরো খবর

ভিকারুননিসার শিক্ষিকা হাসনা হেনার জামিন মঞ্জুর

নিজস্ব প্রতিবেদকআরটিএনএনঢাকা: রাজধানীর ভিকারুননিসা নূন স্কুলের ছাত্রী অরিত্রি অধিকারী আত্মহত্যা মামলায় শিক্ষিকা হাসনা হে . . . বিস্তারিত

ভিকারুননিসা শিক্ষিকার মুক্তির দাবিতে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

নিজস্ব প্রতিবেদকআরটিএনএনঢাকা: ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের নবম শ্রেণির ছাত্রী অরিত্রী অধিকারীর আত্মহত্যার ঘটনায় . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com