এমসিকিউ থাকবে না প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষায়: মোস্তাফিজুর রহমান

০৩ এপ্রিল,২০১৮

এমসিকিউ থাকবে না প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষায়: মোস্তাফিজুর রহমান

নিজস্ব প্রতিবেদক
আরটিএনএন
ঢাকা: ‘আগামীতে দেশের প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষায় এমসিকিউ প্রশ্ন থাকবে না’ বলে  ঘোষণা দিয়েছেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী অ্যাডভোকেট মোস্তাফিজুর রহমান।

তিনি বলেন, চলতি বছরের নভেম্বরে অনুষ্ঠিত প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা (পিইসি) থেকে আর এমসিকিউ থাকছে না।

মঙ্গলবার (৩ এপ্রিল) মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে বৃত্তির ফল প্রকাশের পর তিনি এমন তথ্য জানান।

গণশিক্ষা মন্ত্রী এ সময় আরো জানান, এ বছর থেকে পঞ্চম শ্রেণির (পিইসি) ও ইবতেদায়ী পরীক্ষায় নৈব্যক্তিক প্রশ্নের পরিবর্তে সৃজনশীল প্রশ্ন অন্তর্ভুক্ত করা হবে।

মন্ত্রী বলেন, প্রশ্ন ফাঁসরোধ, শিক্ষার সুষ্ঠু পরিবেশ বিশেষ করে শিক্ষার্থীদের মেধা বিকাশের জন্য সবার মতামত নিয়ে আগামী পরীক্ষায় এমসিকিউ বাদ দেওয়া হচ্ছে।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান ফিজারের সভাপতিত্বে আয়োজিত ওই সভায় মন্ত্রণালয়, প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরসহ প্রাথমিক শিক্ষা প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

আরো পড়ুন...
এবার প্রশ্নপত্র ফাঁস হবে না: শিক্ষামন্ত্রী
ঢাকা: সোমবার ‘এইচএসসি পরীক্ষা ২০১৮’ এর শুরুর দিনে রাজধানীর সিদ্ধেশ্বরী গার্লস কলেজ পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শনে যান শিক্ষামন্ত্রী।

পরিদর্শনকালে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ।

উচ্চ মাধ্যমিক সার্টিফিকেট পরীক্ষা (এইচএসসি) ও সমমানের পরীক্ষার ২০১৮ এ প্রশ্নপত্র ফাঁস রোধে সম্ভাব্য যা যা করার দরকার, সরকারের পক্ষ থেকে তার সব ব্যবস্থাই করা হয়েছে বলে আশ্বস্ত করেছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ।

আজ সোমবার (২ এপ্রিল) পরীক্ষা শুরুর প্রথম দিন সকালে রাজধানীর সিদ্ধেশ্বরী গার্লস কলেজ পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শনে শিক্ষামন্ত্রী আরো আশা করেন, এবার প্রশ্নপত্র ফাঁস হবে না। সব পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সমাপ্ত হবে।

নিয়ম মেনে সকালে ওই কেন্দ্রে পরীক্ষা শুরুর ৩০ মিনিট আগেই পরীক্ষার্থীরা আসন গ্রহণ করতে আসে। লাইন ধরে শিক্ষার্থীরা কেন্দ্রে প্রবেশ করে। কেন্দ্র থেকে মাইকে পরীক্ষার হলে প্রবেশের নিয়ম বলা হচ্ছিল।

এ সময় কেন্দ্র পরিদর্শনে আসেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। ফটক থেকে সরে গিয়ে পরীক্ষার্থীদের ভেতরে প্রবেশের জন্য তিনি অভিভাবকদের অনুরোধ করেন। পরে তিনি সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘আমরা আশা করছি, শান্তিপূর্ণভাবে পরীক্ষা সম্পন্ন হবে। এই ক্ষেত্রে আপনাদের বলতে চাই, নানা ধরনের সমস্যা হয়তো প্রতিদিনই যুক্ত হচ্ছে। আমরা সম্ভাব্য যা হতে পারে এবং যা যা আমাদের জানার মধ্যে আছে, আপনারা আমাদের জানিয়েছেন বা অন্যান্য মাধ্যমে জানছি, এই সবকিছু মোকাবিলা করে আমরা ব্যবস্থা নিয়েছি।’

‘আগেও বলেছি, মানুষের পক্ষে যা যা করা সম্ভব, আমাদের এই বাস্তবতায় সেই অনুসারে আমরা ব্যবস্থা নিয়েছি। আমরা আশা করি, সবাই সহযোগিতা করবেন। আমাদের এই পরীক্ষাগুলো শান্তিপূর্ণ ও সুষ্ঠুভাবে অনুষ্ঠিত হবে,’ যোগ করেন শিক্ষামন্ত্রী।

এরপর সকাল ১০টা থেকে শুরু হয় প্রথম দিনের পরীক্ষা। প্রথম দিন এইচএসসিতে বাংলা (আবশ্যিক) প্রথম পত্র, সহজ বাংলা প্রথম পত্র, বাংলা ভাষা ও বাংলাদেশের সংস্কৃতি প্রথম পত্র এবং ডিআইবিএস-এ বাংলা (আবশ্যিক) প্রথম পত্রের পরীক্ষা হচ্ছে।

আর মাদ্রাসা বোর্ডের অধীনে আলিমে কোরআন মাজিদ এবং কারিগরি বোর্ডের অধীনে এইচএসসি ব্যবসায় ব্যবস্থাপনায় সকালে বাংলা-২ (নতুন সিলেবাস) ও বাংলা-২ (পুরাতন সিলেবাস) এবং বিকেলে বাংলা-১ (সৃজনশীল নতুন সিলেবাস) ও বাংলা-১ (সৃজনশীল পুরাতন সিলেবাস) পরীক্ষা হচ্ছে।

চলতি বছর আট হাজার ৯৪৩টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ১৩ লাখ ১১ হাজার ৪৫৭ পরীক্ষার্থী এ পরীক্ষায় অংশ নেবে। এর মধ্যে ছয় লাখ ৯২ হাজার ৬৭৩ জন ছেলে ও ছয় লাখ ১৮ হাজার ৭২৭ জন মেয়ে। এবার তত্ত্বীয় পরীক্ষা সোমবার থেকে শুরু হয়ে ১৩ মে এবং ব্যবহারিক পরীক্ষা ১৪ মে থেকে শুরু হয়ে ২৩ মে শেষ হবে।

২০১৭ সালে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল ১১ লাখ ৮৩ হাজার ৬৮৬ জন এবং ২০১৮ সালে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১৩ লাখ ১১ হাজার ৪৫৭ জন। ২০১৭ সালের তুলনায় ২০১৮ সালে মোট পরীক্ষার্থী বেড়েছে এক লাখ ২৭ হাজার ৭৭১ জন, বৃদ্ধির হার ১০ দশমিক ৭৯ শতাংশ। মোট শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বেড়েছে ৭৯টি এবং মোট কেন্দ্র বেড়েছে ৪৪টি।

মন্তব্য

মতামত দিন

প্রধান খবর পাতার আরো খবর

মাদ্রাসা বোর্ডের পাসের হার সবচেয়ে বেশি

নিজস্ব প্রতিবেদকআরটিএনএনঢাকা: উচ্চ মাধ্যমিক (এইচএসসি) ও সমমান পরীক্ষায় ১০ বিভাগের মধ্যে এবার মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের পাস . . . বিস্তারিত

শিক্ষকদের আমরণ অনশনে ১০৯ জন অসুস্থ, হাসপাতালে ১০

নিজস্ব প্রতিবেদকআরটিএনএনঢাকা: রাজধানীতে এমপিওভুক্তির দাবিতে বেসরকারি শিক্ষকদের আমরণ অনশন অব্যাহত রয়েছে। এর মধ্যে ১০৯ জন . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com