রুয়েট ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে নানা অপকর্মের অভিযোগ

১৫ মে,২০১৭

নিজস্ব প্রতিনিধি
আরটিএনএন
রাবি: রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের-২০১৬ সালে অনুষ্ঠিত সম্মেলনে সভাপতি প্রার্থী তানভীর আহমেদ আবিরের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজি, ছিনতাই, অবৈধ সিট দখল, শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের হুমকি-ধামকিসহ নানা অপকর্মের সাথে জড়িত বলে অভিযোগ তুলেছে স্বয়ং ছাত্রলীগের বর্তমান নেতৃবৃন্দ ও সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

এদিকে রবিবার সকালে শহীদ লে. সেলিম হলের অফিস সহকারীকে মারধর ও মেরে ফেলার হুমকি দিয়েছে বলেও অভিযোগ উঠেছে।

এ ঘটনায় রুয়েট শাখা ছাত্রলীগ তার বিরুদ্ধে সংগঠনিক ব্যবস্থা নিতে কেন্দ্রকে জানিয়েছে। তবে বিস্তর অভিযোগের কথা অস্বীকার করেছেন অভিযুক্ত আবির।

আবির রুয়েটের ইলেকট্রিক্যাল এন্ড ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ১৩ সিরিজের শিক্ষার্থী হলেও ড্রাপের কারণে প্রথম বর্ষে আছে। তার বাড়ি রাজশাহী শহরে।

রুয়েট শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি নাঈমুর রহমান নিবিড় বলেন, ‘আবিরের বিরুদ্ধে সেলিম হলের প্রাধ্যক্ষকে হুমকি, অবৈধভাবে হলের সিট দখল, কর্মচারী-দোকনীদের ধরে মারধর, নেশাজাতীয় দ্রব্যবহন, চুরি, মোটরসাইকেল-ল্যাপটপ ছিনতাইসহ নানা অপকর্মের সাথে জড়িত বলে আমাদের কাছে অভিযোগ এসেছে। আমরা অভিযোগগুলো তদন্ত করে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে কেন্দ্রকে জানাবো।’

একইভাবে অভিযোগ কথা জানান রুয়েটের যন্ত্রপ্রকৌশল বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ও সেলিম হলের আবাসিক শিক্ষার্থী সায়েম সরকার। তিনি বলেন, সে অবৈধভাবে সেলিম হলে থাকে। একইভাবে তার অনুসারীদের নিয়ে অবৈধভাবে ৩৫১-৩৫৭ পর্যন্ত ও ৩৩৩ নম্বর কক্ষ দখল করে আছে। এর ফলে অনেক অবাসিক শিক্ষার্থী সিট হওয়ার পরও হলে উঠতে পারছে না।

ভূক্তভোগী যন্ত্রকৌশল বিভাগের এক শিক্ষার্থী বলেন, ‘আমার ৩৩৩ নং কক্ষ বরাদ্দ থাকলেও আবিরের কারণে এখনো হলে উঠতে পারছি না। এ বিষয়ে প্রাধ্যক্ষ স্যারকে জানালেও কোনো পদক্ষেপ নেয়নি।’

রুয়েটের শহীদ লে. সেলিম হলের অফিস সহকারী আসিফ বলেন, ‘ছাত্রলীগ নেতা আবির সকালে এসে বলে, “তুই আমার বিরুদ্ধে স্যারের কাছে অভিযোগ করেছিস” এইকথা বলে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে এবং আমাকে সকলের সামনে গলা চেপে ধরে এবং যাওয়ার সময় সে আমাকে হুমকি দিয়ে বলে “তোর কোন বাপ আছে নিয়ে আয়, তোকে কেউ বাঁচাতে পারবে না”। এই ঘটনায় আমি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি।’

এছাড়া এই কর্মচারী বলেন, আবির সেলিম হলের শিক্ষার্থী না হয়েও অবৈধভাবে কক্ষ দখল করে আছে।

অভিযোগের ব্যাপারে জানতে চাইলে ছাত্রলীগ নেতা তানভীর আহমেদ আবির বলেন, ‘বর্তমান শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি-সম্পাদক আমাকে রাজনৈতিকভাবে হেয় করার জন্য আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে।’

সিট দখলের বিষয়ে তিনি বলেন, ‘রাজনীতি করতে গেলে সিটের প্রয়োজন হয়। আমরা বর্তমান কমিটির কাছে সিট চেয়েছিলাম, কিন্তু তারা আমাদের কোনো সহযোগিতা করছে। আমরা যদি একই রাজনীতি করে থাকি, তাহলে ক্ষমতার কারণে অন্যজনকে এইভাবে হেয় করা কি ঠিক?’

আর চুরির বিষয়ে তিনি বলেন, ‘তারা আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ দিয়েছে, কিন্তু কোনো প্রামাণ দিতে পারে নাই। এসব সাজানো গল্প ছাড়া কিছুই না।’

জানতে চাইলে শহীদ লে. সেলিম হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক জহুরুল ইসলাম বলেন, মারধরের বিষয়টি এখনো আমাকে অনুষ্ঠানিকভাবে জানায় নি। বিষয়টি জেনে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আবির তাকে কখনো হুমকি দিয়েছে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘না ঐভাবে কিছু বলে নাই। আর আমি এ বিষয়ে মিডিয়াতে কিছু বলতে চাচ্ছি না।’

মন্তব্য

মতামত দিন

প্রধান খবর পাতার আরো খবর

ছাত্ররা তার কাছে কতটা প্রিয়- ১২০ চিঠিতে তা জানালেন শিক্ষক পলিন

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএনওয়াশিংটন: লেখা তার দৃঢ় প্রত্যয় নয়, তার ব্যক্তিত্ব, তার হাতে লেখা চিঠি এবং হাতে হাতে তা বিতরণ . . . বিস্তারিত

এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষায় পাসের হার ৫০ দশমিক ৮৯

নিজস্ব প্রতিবেদকআরটিএনএনঢাকা: এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ হয়েছে। এ বছর পাসের হার ৫০ দশমিক ৮৯ ভাগ। উত্তীর্ণদের মধ্য . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান, গোলাম রসুল প্লাজা (তৃতীয় তলা), ৪০৪ দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০।
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com