এটা খুব সুন্দর, ইসলামে নারীরা অনেক বেশি সম্মানিত: ধর্মান্তরিত মার্কিন নারী

১৫ জানুয়ারি,২০১৯

এটা খুব সুন্দর, ইসলামে নারীরা অনেক বেশি সম্মানিত: ধর্মান্তরিত মার্কিন নারী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আরটিএনএন
ওয়াশিংটন: ইসলাম সম্পর্কে নিজের অনুভূতি ব্যক্ত করেছেন আমেরিকান এক খ্রিস্টান নারী। ২০১৬ সালে এই ইন্টারভিউ যখন রেকর্ডিং করা হয়, তখনো তিনি একজন খ্রিস্টান ছিলেন। খ্রিস্টান থাকা সত্ত্বেও, তিনি নিজে থেকেই হিজাব পরতে পছন্দ করতেন। এর কয়েক মাস পরেই তিনি ইসলাম গ্রহণ করেন।

এই সম্পর্কে তিনি যা বলেছেন:

‘আমি আমার জীবনের অধিকাংশ সময়েই ইসলাম সম্পর্কে আগ্রহী ছিলাম এবং আমি এটি সম্পর্কে অধ্যয়ন করেছি।

আমি অনেক আগে থেকেই ইসলামের মৌলিক বিষয় সম্পর্কে জানতাম। তারপর যখন ৯/১১ ঘটনা ঘটে, তখন আমি ইসলাম সম্পর্কে অনেক অপপ্রচার দেখতে পাই এবং বিভিন্ন ঘটনার পরে আমি ইসলাম সম্পর্কে পড়াশোনা শুরু করি এবং আমি আবিষ্কার করতে পারি, আমার আগে শেখা মৌলিক বিষয়গুলি সঠিক ছিল। যদিও সেখানে অনেক কিছু ছিল যা ভুলভাবে উপস্থাপিত হয়েছিল।

উদাহরণস্বরূপ, প্রথম যে জিনিসটি আমি লক্ষ্য করেছি তা হলো- ইসলামে কোনো বাধ্যতা নেই। কেউ আপনাকে ধর্মের প্রতি বাধ্য করছে না। ঈশ্বর মানুষকে যা করতে বলেছেন, তাকে কেবল সেটাই বলা হয়।

আরেকটি জিনিস যা আমি আবিষ্কার করেছি তা হল- ইসলামের চমৎকার ভ্রাতৃত্ববোধ ও কিভাবে মুসলমানরা একে অপরের যত্ন করে। একটি মসজিদ পরিদর্শনের পর থেকে আমি অনেক আনন্দিত ছিলাম। সেখানে অনেক বোনকে পেয়েছে- যাদের কাছ থেকে অনেক জানতে পেরেছি এবং তাদের সঙ্গে অনেক সময় কাটিয়েছি।

আমি ইসলামকে ভালোবাসি কারণ এটি মানুষকে শিক্ষা দেয়- কিভাবে একে অপরের প্রতি সদয় হতে হবে এবং কিভাবে একে অপরের যত্ন নিতে হবে। খ্রিস্টধর্মে বাইবেল বলে, ‘পরস্পরের প্রতি সদয় হও’। ইসলামে এটি সুস্পষ্টরূপে বর্ণনা করেছে- কিভাবে একে অপরের প্রতি সদয় হতে হবে, কেমন আচরন করা উচিত এবং কিভাবে একে অপরকে যত্ন নিতে হয়।

ইসলাম একটি শান্তিপূর্ণ জীবনধারা। ইসলাম প্রত্যাশা করে-মানুষ তাদের পরিবারের মধ্যে, সম্প্রদায়ের মধ্যে ভালভাবে বাঁচুক এবং তারা একে অপরের যত্ন নিক। একজন খ্রিস্টান হিসেবে আমি মুসলিমদের মধ্যে দেখতে পেয়েছি- তারা খ্রিস্টধর্মের চেয়ে অনেক বেশি ঈশ্বরীয়তার সঙ্গে জড়িত।

ইসলামের আরেকটি চমৎকার বিষয় হচ্ছে ‘শূরা’র ধারণা। যখন কোনো বিষয়ে আলোচনার প্রয়োজন হয়, সেখানে নেতা উপস্থিত সবার বক্তব্য শুনেন। আমি এটিকে অত্যন্ত ফলপ্রসূ হতে দেখেছি। এটা পরিবারে চর্চা করা হয় এবং এটি সরকারে চর্চা করা হয়। এই পদ্ধতিতে সবাই মতামত দেয়, এমনকি সবচেয়ে ছোট শিশুও এবং সবকিছু মতামতের ভিত্তিতে বিবেচনা করা হয় এবং তারপর সেরাটার ওপর ভিত্তি করে একটি সিদ্ধান্তে আসা হয়। যখন একটি সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়, মানুষকে এই সিদ্ধান্ত অনুসরণ করার জন্য উত্সাহিত করা হয়।

ইসলামে নারীকে কিভাবে দেখা হয়? এমন প্রশ্নের জবাবে বলেন, আমি মনে করি, এটা খুব সুন্দর। আমি বিশ্বাস করি, ইসলামে নারীরা অনেক বেশি সম্মানিত।

আমি হিজাব পরতে ভালোবাসি। এটি আমাকে বিশেষ অনুভূতি দেয়, আমি নিজেকে সুরক্ষিত মনে করি। আমি মনে করি যে আমার সবকিছু অন্যকে দেখানোর দরকার নেই। এটি আমাকে গোপনীয় থাকতে সাহায্য করে।’

অ্যাবাউট ইসলাম অবলম্বনে।

মন্তব্য

মতামত দিন

মূল প্রতিবেদন পাতার আরো খবর

ফ্যাশন শিল্পে হিজাবের প্রাধান্য বেড়েই চলছে, আকার ৪৮৮ বিলিয়ন ডলার

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএনকায়রো: বাংলাদেশি নাজমা খান যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমান ১১ বছর বয়সে। তিনি ২০১৩ সালে যুক্তরাষ্ট্রে যা . . . বিস্তারিত

ব্যবহারে মুগ্ধ হয়ে তুর্কি যুবককে বিয়ে, অতঃপর জাপানি নারীর ইসলাম গ্রহণ

আন্তর্জাতিক ডেস্কআরটিএনএনটোকিও: জাপানের মুসলমান জনগোষ্ঠী এখনো অপেক্ষাকৃত ক্ষুদ্র এবং অধিকাংশ জাপানিই কেবল ইসলামের মৌলিক . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com