‘ফার্স্ট লেডি’ পদ নিয়ে ট্রাম্পের বর্তমান ও সাবেক দুই স্ত্রীর বিবাদ

১০ অক্টোবর,২০১৭

ডোনাল্ড ট্রাম্পের সাবেক স্ত্রী ইভানা ও বর্তমান স্ত্রী মেলানিয়া

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আরটিএনএন
ওয়াশিংটন: মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ‘ফার্স্ট লেডি’ পদ নিয়ে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বর্তমান ও সাবেক স্ত্রীদের মধ্য বিবাদ শুরু হয়েছে।

সোমবার ট্রাম্পের প্রথম স্ত্রী ইভানা ট্রাম্প হোয়াইট হাউসে তার প্রবেশাধিকার নিয়ে গর্ববোধ করেন। এমনকি নিজেকে প্রকৃত ফার্স্ট লেডি বলে উল্লেখ করেন। তার এই কথায় ক্ষেপেছেন বর্তমান স্ত্রী ও ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্প।


সোমবার ‘গুডমর্নিং আমেরিকা’ নামের একটি টেলিভিশন অনুষ্ঠানে দেয়া সাক্ষাৎকারে নিজেকে ফার্স্ট লেডি দাবি করে ইভানা বলেন, ‘প্রতি ১৪ দিন পর পর তার সঙ্গে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের কথা হয়।’

নিজের আত্মজীবনীমূলক বই ‘রেইজিং ট্রাম্প’ প্রচারের জন্য ওই সাক্ষাৎকার অনুষ্ঠানে গিয়েছিলেন তিনি।  বইটিতে তিনি উল্লেখ করেছেন ট্রাম্প পরিবারের কথা, ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রথম পক্ষের সন্তান ইভাঙ্কা, ডোনাল্ড জুনিয়র, এরিক ট্রাম্পের অজানা কথা, কিভাবে তাদের বড় করেছেন, সেসব কথা। সাক্ষাৎকারে একপর্যায়ে ইভানা বলেন, ‘আমি মূলত ট্রাম্পের প্রথম স্ত্রী। তাই আমিই ফার্স্ট লেডি।’

ইভানা আরো বলেন, ‘আমি চাইলেই হোয়াইট হাউসের সঙ্গে সরাসরি যোগাযোগ করতে পারি, তবে আমি তা করছি না। কারণ, সেখানে মেলানিয়া আছে এবং সে ভুল বুঝতে পারে। আসলে আমি কোনো ঈর্ষার সম্পর্ক চাই না।’

মেলানিয়ার প্রতি সহানুভূতি দেখিয়ে ইভানা বলেন, ‘আমি মনে করি, ওয়াশিংটন ডিসিতে থাকা তার জন্য থাকা খুবই কষ্টের।’

এদিকে ইভানার এমন মন্তব্য ক্ষেপেছেন ট্রাম্পের বর্তমান স্ত্রী। মেলানিয়া ট্রাম্পের কার্যালয় থেকে তার একজন মুখপাত্র তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন। স্টিফেন গ্রিশাম নামের ওই মুখপাত্র এক বিবৃতিতে জানান, মনোযোগ কাড়তে চাইছেন ইভানা। তার নতুন বইয়ের বিক্রি বাড়াতে এসব মন্তব্য করেছেন।

মুখপাত্রের বিবৃতিতে আরও বলা হয়, মিসেস ট্রাম্প ব্যারন ও ডোনাল্ড ট্রাম্পকে নিয়ে হোয়াইট হাউসকে আপন করে নিয়েছেন। তিনি ওয়াশিংটনে থাকতে খুবই ভালোবাসেন। মার্কিন ফার্স্ট লেডি বিশেষণ তাকে সম্মানিত করে। তিনি তার পদের গুরুত্ব বজায় রাখতে চান এবং শিশুদের সহায়তায় কাজ করতে চান, বইয়ের বিক্রির জন্য নয়।

সূত্র: ফক্স নিউজ

মন্তব্য

মতামত দিন

মূল প্রতিবেদন পাতার আরো খবর

নভেম্বরে ১০৭টি ধর্ষণ, ৪২ নারী-শিশু হত্যা

নিউজ ডেস্কআরটিএনএনঢাকা: চলতি বছরের নভেম্বরে ১০৭টি ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ। কেন্দ্রীয় লিগ্যা . . . বিস্তারিত

দেহব্যবসার শিকার হচ্ছে রোহিঙ্গা নারীরা

নিউজ ডেস্কআরটিএনএনঢাকা: মায়ানমার থেকে পালিয়েছে যে ছয় লক্ষেরও বেশি রোহিঙ্গা, তারা নিরাপদ আশ্রয়ের জন্য বাংলাদেশে এলেও . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান, গোলাম রসুল প্লাজা (তৃতীয় তলা), ৪০৪ দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০।
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com