রাজশাহীতে রুয়েট ও রাবি শিক্ষার্থীদের মহাসড়ক অবরোধ, বিক্ষোভ-সমাবেশ

০৫ আগস্ট,২০১৮

রাজশাহীতে রুয়েট ও রাবি শিক্ষার্থীদের মহাসড়ক অবরোধ, বিক্ষোভ-সমাবেশ

নিজস্ব প্রতিনিধি
আরটিএনএন
রাজশাহী: নিরাপদ বাংলাদেশসহ ছয় দফা দাবিতে রাজশাহী-ঢাকা মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ-সমাবেশ করেছেন রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (রুয়েট) এবং রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। রবিবার বেলা সাড়ে ১১টা থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ফটকে মহাসড়ক অবরোধ করে এ কর্মসূচি শুরু করেন শিক্ষার্থীরা। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা সেখানে অবস্থান করছেন।

সমাবেশ থেকে তারা চলমান পরিস্থিতির সুষ্ঠু তদন্ত ও সুষ্ঠু বিচার, ধর্ষকদের সর্বোচ্চ শাস্তি বাস্তবায়ন, খুনিদের সর্বোচ্চ শাস্তির বাস্তবায়ন, বাকস্বাধীনতা, গণমাধ্যমের স্বচ্ছতা এবং আন্দোলন-পরবর্তী সব শিক্ষার্থীর নিরাপত্তা নিশ্চিত করার আহ্বান জানান।

প্রত্যক্ষদর্শীদের বর্ণনায় জানা যায়, পূর্বঘোষণা অনুযায়ী রবিবার সকাল সাড়ে ১০টায় রুয়েটের প্রধান গেটের ভেতরে এসে শিক্ষার্থীরা জড়ো হতে থাকেন। এরপর মানববন্ধনের জন্য সেখান থেকে শিক্ষার্থীরা মহাসড়কে যেতে চাইলে পুলিশ তাদের নিষেধ করে। পরে শিক্ষার্থীরা পুলিশ প্রশাসনের কাছ থেকে সময় চেয়ে মহাসড়কে এসে মানববন্ধন শুরু করেন। মানববন্ধন শেষে বেলা সাড়ে ১১টায় শিক্ষার্থীরা রাজশাহী-ঢাকা মহাসড়ক অবরোধ করে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন।

এ সময় শিক্ষার্থীদের হাতে ‘আমার বাংলাদেশে আমি লজ্জিত’, ‘হ্যাঁ, আমি মেয়ে কিন্তু তার আগে আমি একজন মানুষ’, ‘সুবোধ তুই পালাস নে আমরা তোর সাথে আছি’, ‘ধর্ষকদের ফাঁসি চাই’ এসব লেখাসংবলিত বিভিন্ন প্ল্যাকার্ড দেখা যায়।

এ সময় সরকারের উদ্দেশে শিক্ষার্থীরা বলেন, ‘যেখানে শিক্ষার্থীরা নিরাপত্তার জন্য রাস্তায় নেমেছে, সেখানে শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা করা হচ্ছে। আপনাদের উচিত ছিল তাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা, কিন্তু আপনারা সেটা না করে উল্টো তাদের ওপর হামলা চালাচ্ছেন। আজকের এসব শিক্ষার্থী আগামীতে প্রশাসন বা দেশের নেতৃত্ব দেবে। আজ আপনারা যে পথ দেখাবেন, তারা আগামীতে সেই পথেই চলবে। কিন্তু আপনারা যে পথ দেখাচ্ছেন, সেটা সঠিক পথ নয়।’

কর্মসূচি চলাকালে শিক্ষার্থীরা অ্যাম্বুলেন্স চলাচলের জন্য একটা জরুরি লেন চালু রাখেন। এ ছাড়া বিভিন্ন পরিবহনের লাইসেন্সও পরীক্ষা করছিলেন তারা।

এদিকে, নয় দফা দাবিতে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) মানববন্ধন করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। রবিবার দুপুর ১২টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে সাধারণ শিক্ষার্থীদের ব্যানারে এ কর্মসূচি পালিত হয়। এরপর দুপুর ১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের রবীন্দ্র ভবনের সামনে মিডিয়া চত্বর থেকে ‘নিপীড়নের বিরুদ্ধে শিক্ষকবৃন্দ’ ব্যানারে ‘অহিংস পদযাত্রা’ বের করেন শিক্ষকরা। পদযাত্রাটি ক্যাম্পাস ঘুরে পুনরায় সেখানে ফিরে আসে।

মন্তব্য

মতামত দিন

শিক্ষাঙ্গন পাতার আরো খবর

বাংলাদেশে কোচিং নির্ভরতা কেন এ পর্যায়?

ডেস্ক নিউজআরটিএনএনঢাকা: যেহেতু আমরা দুজনেই কর্মজীবী, সেজন্য আমরা বাচ্চাদের বাসায় সময় দিতে পারি না। যদি সময় দিতে পারতা . . . বিস্তারিত

নবাগতদের র‌্যাগিং: বঙ্গবন্ধু প্রযুক্তি’র ৬ শিক্ষার্থী আজীবন বহিষ্কার, মামলা

নিজস্ব প্রতিনিধিআরটিএনএনগোপালগঞ্জ: নবাগত দুই  শিক্ষার্থীকে র‌্যাগিংয়ের ঘটনায় গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু বিজ্ঞান ও প . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com