সর্বশেষ সংবাদ: |
  • বিএনপি নেতা রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু ও ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকুর প্রার্থিতা বৈধ করবে বলে জানিয়েছেন আদালত, অ্যাটর্নি জেনারেলের মতামত নেওয়ার পর আদেশ
  • তিন আসনে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মনোনয়নপত্র বাতিলের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে দায়ের করা রিটের শুনানি চলছে
  • সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানে সংবিধান, ভোটার ও রাজনৈতিক নেতাদের কাছে দায়বদ্ধ নির্বাচন কমিশন : সিইসি

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীকে স্থায়ী বহিষ্কার

১২ মার্চ,২০১৮

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীকে স্থায়ী বহিষ্কার

নিজস্ব প্রতিনিধি
আরটিএনএন
জবি: জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) ফার্মেসি বিভাগের ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের ১২তম ব্যাচের আল ইকরাম অর্ণব নামের এক শিক্ষার্থীকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। অন্য শিক্ষার্থীদের মারপিটের ঘটনায় তাকে বহিষ্কার করেছে।

সোমবার বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব কথা জানানো হয়। এছাড়া তার বিরুদ্ধে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রত্যেকটি মারামারির ঘটনায় সম্পৃক্ততার অভিযোগের সত্যতা পাওয়ায় যায়।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় আইন ২০০৫-এর ১১ (১০) ধারায় প্রদত্ত ক্ষমতাবলে সিন্ডিকেটের অনুমোদন সাপেক্ষে স্থায়ীভাবে তাকে এই বহিষ্কার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে আনীত প্রধান অভিযোগ, গত ৭ মার্চ বিশ্ববিদ্যালয়ের বাসে বসাকে কেন্দ্র করে বাসে অবস্থানরত শিক্ষার্থীদের বেধড়ক মারপিট করে অর্ণব এবং ঘটনা পর্যবেক্ষণে যাওয়া শিক্ষকদের সাথে ও খারাপ আচরণ করে সে।’

এছাড়া গত ৭ ফেব্রুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয়ের মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের ১১তম ব্যাচের শিক্ষার্থী মোঃ মাকসুদর রহমান শিহাবকে ছুরিকাঘাত করে অর্ণব।

জবি’র রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের আবেগঘন পুনর্মিলনী উদযাপন
‘এসো মিলি প্রাণের টানে, তোমার আমার শিকড় যেখানে’ প্রতিপ্রাদ্য বিষয়কে সামনে রেখে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের ২০০২-২০০৩ ব্যাচের আবেগঘন পুনর্মিলনী উদযাপন করা হয়েছে। এসময় শিক্ষার্থীরা নেচে-গেয়ে পুরো ক্যাম্পাস মাতিয়ে তোলে।

শুক্রবার দিনব্যাপী জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ১০ চিত্তরঞ্জন সাহা স্টীটের দেড়শ বছরের পুরাতন ঐতিহাসিক ক্যাম্পাসে বাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের আবেগঘন এই পুনর্মিলনী উদযাপন করা হয়। এসময় দীর্ঘদিন পরে একে অন্যের সাথে সাক্ষাৎ পেয়ে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন।

পুনর্মিলনীর শুরুতে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের লোগো ও রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের ২০০২-২০০৩ ব্যাচের পুনর্মিলনী লেখা কমলা রঙ্গের গেঞ্জি পড়ে র‌্যালি বের করা হয়। এসময় র্যা লিটি উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের সামাজিক বিজ্ঞান ফ্যাকাল্টির সাবেক ডীন ও রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সাবেক চেয়ারম্যান প্রফেসর নজরুল ইসলাম। এসময় উপস্থিত ছিলেন লোকপ্রশাসন বিভাগের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. আসমা বিনতে ইকবাল প্রমুখ।

র‌্যালিটি রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের কাঁঠালতলার সামনে থেকে শুরু হয়ে ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ শেষে বাহাদুর শাহ পার্কের চারপাশ প্রদক্ষিণ করে আবার ক্যাম্পাসে ফিরে এসে মুক্তিযুদ্ধ প্রস্তুতি ভাস্কর্যের সামণে এসে শেষ হয়। র‌্যালিতে সাবেক শিক্ষার্থীরা ব্যান্ডপার্টির বাদ্যযন্ত্রের তালে তালে নেচে গেয়ে উচ্ছাস প্রকাশ করে।

র‌্যালি শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মিলনায়নে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এসময় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের সামাজিক বিজ্ঞান ফ্যাকাল্টির সাবেক ডীন ও রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সাবেক চেয়ারম্যান প্রফেসর নজরুল ইসলাম। এসময় বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত উপস্থিত ছিলেন লোকপ্রশাসন বিভাগের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. আসমা বিনতে ইকবাল, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সাবেক শিক্ষক ফেরদৌস আরা, ড. উম্মে আসমা, মুন্সী শরিফুজ্জামান, শিরিন সুলতানা ও সুলতানা নাজনীন প্রমুখ। এর আগে শিক্ষকদের ক্রেস্ট দিয়ে শিক্ষার্থীরা বরণ করে নেয়।

আলোচনা সভাটি ইব্রাহিম খলিলের পবিত্র কোরআন তেলওয়াতের মাধ্যেমে শুরু হয়। এসময় শুভেচ্ছা বক্তব্যের মাধ্যেমে আলোচনা সভার শুভ উদ্বোধন করেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সামাজিক বিজ্ঞান ফ্যাকাল্টির সাবেক ডীন ও রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সাবেক চেয়ারম্যান প্রফেসর নজরুল ইসলাম। এসময় তিনিসহ অতিথিবৃন্দ পুনর্মিলনীর কেক কাটেন ।

আলোচনা সভায় সাবেক শিক্ষার্থী সোহেল জিন্নাহর সঞ্চালনায় শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন লোকপ্রশাসন বিভাগের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. আসমা বিনতে ইকবাল, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সাবেক শিক্ষক ফেরদৌস আরা, ড. উম্মে আসমা, মুন্সী শরিফুজ্জামান, শিরিন সুলতানা, সুলতানা নাজনীন ও জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ সভাপতি তরিকুল ইসলাম প্রমুখ।

সাবেক শিক্ষার্থীদের মধ্যে স্মৃতিচারণ করেন একুশে টিভির প্রতিবেদক ও সংবাদ উপস্থাপক প্রণব কুমার চক্রবর্তী, মিরপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান জুয়েল আকতার, মুক্তিযুদ্ধের শহীদ স্মৃতি পুরস্কার-২০১৭ প্রাপ্ত সাংবাদিক মোঃ কামাল হোসেন, পূনর্মিলনী উদযাপন কমিটির আহবায়ক বসিরা বাসু, যুগ্ম আহবায়ক ও জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক নেতা রিয়াজ রহমান প্রমুখ।

এসময় মুক্তিযুদ্ধের শহীদ স্মৃতি পুরস্কার প্রাপ্ত সাংবাদিক মোঃ কামাল হোসেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের প্রতি ২০০২-২০০৩ ব্যাচের শিক্ষার্থীদের সমাবর্তন প্রদানের দাবি জানান।

এসময় পূনর্মিলনী উদযাপন কমিটির এমরান হোসেন সুমন, রফিুকুল ইসলাম সিকদার, অপূর্ব বিশ্বাস, সাইফুল ইসলাম দেওয়ান, আব্দুল্লাহ আল মামুন, পুলিশ সার্জেন্ট হাসান আল মামুনসহ শতাধিক সাবেক শিক্ষার্থী ও তাদের আত্মীয়-স্বজন উপস্থিত ছিলেন। এসময় গেঞ্জির প্রদানের পৃষ্ঠপোষক অন্যতম নিজাম উদ্দিন খান উপস্থিত থাকলেও অপর পৃষ্ঠপোষক সোমেন সাহা তার মায়ের অসুস্থ্যতার কারণে উপস্থিত থাকতে না পারায় দুঃখ প্রকাশ করেছেন। এছাড়া অপর পৃষ্ঠপোষক নাজিউর রহমান মঞ্জু বিদেশে থাকায় উপস্থিত হতে পারেনি।

সবশেষে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান ড. অরুণ কুমার গোস্বামী আরেকটি কেক কেটে সবার সাফল্য কামনা করে সমাপনী বক্তব্যের মাধ্যমে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের ২০০২-২০০৩ ব্যাচের আবেগঘন পুনর্মিলনী আনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করেন।

মন্তব্য

মতামত দিন

শিক্ষাঙ্গন পাতার আরো খবর

ভিকারুননিসায় কান্নার রোল, দিনভর বিক্ষোভ বিকেলে ঘটনা তদন্তে হাইকোর্টের নির্দেশনা 

নিজস্ব প্রতিবেদকআরটিএনএনঢাকা: ভিকারুননিসা নূন স্কুলের ছাত্রী অরিত্রী অধিকারীর (১৫) আত্মহত্যার ঘটনায় তদন্ত এবং এমন অ . . . বিস্তারিত

নকল করায় বাবাকে অপমান করলেন প্রিন্সিপাল, সইতে না পেরে ভিকারুন্নেসার ছাত্রীর আত্মহত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদকআরটিএনএনঢাকা: রোববার ক্লাসের পরীক্ষায় মোবাইলে নকল করায় নবম শ্রেণীর এক ছাত্রীর বাবা-মাকে ডেকে অপমান করেছি . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com