নৌকার অফিস পুড়িয়ে আ.লীগে যোগদান বিএনপির তিন নেতার

২৪ জানুয়ারি,২০১৯

নৌকার অফিস পুড়িয়ে আ.লীগে যোগদান বিএনপির তিন নেতার

নিজস্ব প্রতিবেদক
আরটিএনএন
কক্সবাজার: বিগত সংসদ নির্বাচনের ভোটের প্রচারনার সময় কক্সবাজারের পেকুয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের নির্বাচনী অফিস পোড়ানোর অভিযুক্ত তিন বিএনপি নেতার নেতৃত্বে দলের ২০-২৫ জন নেতাকর্মী আওয়ামী লীগে যোগদান করেছেন।

বুধবার পেকুয়া উপজেলার টইটং উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ কর্তৃক আয়োজিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে স্থানীয় এমপি জাফর আলমের হাতে ফুল ফুলেল শুভেচ্ছা বিনিময়ের মাধ্যমে ২০/২৫ জনের বিএনপি নেতাকর্মী নিয়ে আওয়ামী লীগে যোগদান করেন তারা।

জানা গেছে, যোগদানকারীদের কয়েকজন নৌকার অফিস পোড়ানো মামলার পালাতক আসামী হলেও পেকুয়া থানা পুলিশের ওসির উপস্থিতিতে তারা আ.লীগে যোগদান করেন। কিন্ত পুলিশ তাদের গ্রেফতারের কোনো উদ্দোগ নেয় নি।

যোগদান কালী বিএনপি নেতারা হলেন, পেকুয়া মাতবর পাড়া গ্রামের আহমদ নুরের ছেলে পেকুয়া উপজেলা যুবদলের সিনিয়র সহসভাপতি একাধিক নাশকতা মামলার পলাতক আসামি মাহবুল করিম, পেকুয়া সদর ইউনিয়নের আবদুল হামিদ সিকদারপাড়া গ্রামের হাবিবুর রহমানের ছেলে পেকুয়া সদর ইউনিয়ন বিএনপির সহসভাপতি ইউপি সদস্য মোহাম্মদ ইসমাইল সিকদার এবং পেকুয়া মইয়াদিয়া গ্রামের মোস্তাক আহমদের ছেলে উপজেলা শ্রমিক দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক ইউপি সদস্য মমতাজুল ইসলাম।

এ বিষয়ে পেকুয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবুল কাশেম বলেন, বিএনপির এসব নেতা একসময় ছাত্রলীগের কর্মী ছিলেন। তারা তাদের ভুল বুঝতে পেরেছেন। তারা দলে যোগ দিলেও কোনো পদ-পদবি দেয়া হয়নি। তাদেরকে আমরা পর্যবেক্ষণে রাখব। যদি তাদের কর্মকাণ্ড ভালো হয় তাহলে দলে রাখব, না হয় তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেব।

তিনি বলেন, তিনজনের মধ্যে মাহবুব মেম্বারের নামে শুধু মামলা রয়েছে। বাকিদের নামে মামলা নেই।

পেকুয়া থানা সূত্র জানায়, গত ২২ ডিসেম্বর পেকুয়া বাজারস্থ আওয়ামী লীগের নির্বাচনী অফিসে পেট্রলবোমা মেরে জ্বালিয়ে দেয়ার অভিযোগে জামায়াত-বিএনপির ১৫২ জনের নামে পেকুয়া থানায় মামলা করেন সদর ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগের সভাপতি নাসির উদ্দিন। এ মামলার ৪নং আসামি পেকুয়া উপজেলা যুবদলের সিনিয়র সহসভাপতি মাহবুল করিম এবং ১৫নং আসামি ইসমাইল সিকদার।

মামলার বাদী নাসির উদ্দিন বলেন, পেকুয়ায় নির্বাচনী অফিসে আগুন দেয়ার ঘটনায় আমি বাদী হয়ে মামলা করেছি দলের স্বার্থে। সংবর্ধনা সভায় আমি উপস্থিত ছিলাম না। তাই আমি এ ঘটনা সম্পর্কে জানি না।

এ ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করে বারবাকিয়া ৪নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মাহমুদুল করিম বলেন, এসব অতিথি পাখি সুবিধাভোগী। মামলা থেকে রেহাই পেতে আওয়ামী লীগে যোগ দিয়েছে। এটা দলের জন্য অশুভ সংকেত।

পুলিশের সামনে পলাতক আসামি আওয়ামী লীগে যোগদানের ব্যাপারে জানতে চাইলে পেকুয়া থানা পুলিশের ওসি জাকির হোসেন ভূইয়া বলেন, পালাতক ওইসব আসামিকে ধরতে কাজ করছে পুলিশ। তারা আত্মগোপনে থাকায় ধরতে পারিনি। তবে তারা আওয়ামী লীগে যোগদানের বিষয়টি আমার জানা নেই।

মন্তব্য

মতামত দিন

দেশজুড়ে পাতার আরো খবর

বাংলাদেশে গ্যাসের মজুদ আর কতদিন থাকবে?

নিউজ ডেস্কআরটিএনএনঢাকা: বাংলাদেশে গ্যাসের সংকট দিনকে দিন প্রবল আকার ধারণ করছে। বিশেষ করে শহরাঞ্চলের অনেক বাড়িতে এখন রান . . . বিস্তারিত

বরিশাল মেডিকেলের ডাস্টবিন থেকে ২২ নবজাতক শিশুর মরদেহ উদ্ধার, দেশজুড়ে তোলপাড়

নিজস্ব প্রতিনিধিআরটিএনএনবরিশাল: বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেলের ডাস্টবিন থেকে ২২ অপরিণত শিশুর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এ নিয় . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com