শিমুলিয়া ঘাটে যানবাহনের চাপ, যাত্রীদের ভোগান্তি

১৩ জুন,২০১৮

শিমুলিয়া ঘাটে যানবাহনের চাপ, যাত্রীদের ভোগান্তি

নিজস্ব প্রতিনিধি
আরটিএনএন
মুন্সিগঞ্জ: আসন্ন ঈদকে ঘিরে মুন্সীগঞ্জে লৌহজং উপজেলার শিমুলিয়া ঘাট এলাকায় যাত্রী ও যানবাহনের চাপ বৃদ্ধি পেয়েছে। বাড়তি চাপের যানজটের সৃষ্টি হয়েছে এতে ভোগান্তিতে পড়ছে যাত্রীরা।

ঘুরমুখো মানুষের বাড়তি চাপে যানবহনের দীর্ঘলাইনের লাইনের পাশাপাশি মানুষের জট তৈরি হয়েছে। বুধবার (১৩ জুন) ভোর থেকেই প্রিয় মানুষের সাথে ঈদ আনন্দ ভাগাভাগি করতে যাওয়া মানুষ ঢাকা ছাড়তে শুরু করেছেন। মানুষের এই স্রোত শিমুলিয়া পৌছাতে থেকে সকাল ৭ টার পরে। এর পরেই যান ও জনজট তৈরি হয় ঘাটে।

বেলা ৯টার দিকে শিমুলিয়া ঘাটে ৭ শতাধিক যানবাহন পারাপারের অপেক্ষায় রয়েছে। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে যানবাহনের সাড়ি দীর্ঘ হবে বলে জানিয়েছে বিআইডব্লিউটিসি কর্তৃপক্ষ।

বিআইডব্লিউটিসি’র শিমুলিয়া ঘাট ব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) গিয়াসউদ্দিন পাটোয়ারী জানান, বুধবার ভোর থেকেই যাত্রী ও যানবাহনের চাপ বাড়তে শুরু করেছে। ঘাট এলাকায় ছোট বড় মিলিয়ে ৭ শতাধিক যানবাহন পারাপারের অপেক্ষায় রয়েছে। এর মধ্যে মটর সাইকেল ও ছোট গাড়ির সংখ্যাই বেশি রয়েছে। ২০টি ফেরি দিয়ে পারাপার করছে। এক সাথে গাড়ি আসায় একটু সময় লাগছে। সকাল থেকে প্রায় হাজারের মত মটরসাইকেল ও প্রাইভেটকার পার হয়েছে।

যাত্রীবাহী যানবাহনগুলোকে আগে প্রাধান্য দিয়ে পারাপার হতে দেয়া হচ্ছে। যাত্রীদের যানবাহনের চাপ কম থাকলে পণ্যবাহী যানবাহন যাতায়াত করছে। শিমুলিয়া কাঠালবাড়ি নৌরুটে ২০টি ফেরি চলাচল করছে ৪টি ঘাট দিয়ে।

বেনাপোলগামী এক যাত্রী মিথুন সাহা অপু জানান, সকালে স্পিড বোটে করে পার হয়েছি ২০০ টাকা নিয়েছে। বোটগুলোতে অতিরিক্ত ভাড়া ও যাত্রী নিচ্ছে।

লঞ্চ ও সিবোর্ট ঘাট এলাকায় যাত্রীদের উপচে পড়া ভিড় লক্ষ করা গেছে।

অন্যদিকে দীর্ঘ সময় ধরে গাড়িতে অপেক্ষা এবং ফেরি ছাড়তে দীর্ঘ সময় লাগায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন অনেক যাত্রী।

মন্তব্য

মতামত দিন

দেশজুড়ে পাতার আরো খবর

বাংলাদেশে গ্যাসের মজুদ আর কতদিন থাকবে?

নিউজ ডেস্কআরটিএনএনঢাকা: বাংলাদেশে গ্যাসের সংকট দিনকে দিন প্রবল আকার ধারণ করছে। বিশেষ করে শহরাঞ্চলের অনেক বাড়িতে এখন রান . . . বিস্তারিত

বরিশাল মেডিকেলের ডাস্টবিন থেকে ২২ নবজাতক শিশুর মরদেহ উদ্ধার, দেশজুড়ে তোলপাড়

নিজস্ব প্রতিনিধিআরটিএনএনবরিশাল: বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেলের ডাস্টবিন থেকে ২২ অপরিণত শিশুর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এ নিয় . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com