সাপাহারে ১০ রোহিঙ্গা আটক, উখিয়া সীমান্তে অপেক্ষায় আরো ৭০০

১৩ নভেম্বর,২০১৭

সাপাহারে আটক পাঁচ শিশুসহ ১০ রোহিঙ্গা

আরটিএনএন: নওগাঁর জেলার সাপাহারে সোমবার সকালে পাঁচ শিশুসহ ১০ রোহিঙ্গাকে আটক করেছে বিজিবি। এছাড়া কক্সবাজারের উখিয়া সীমান্তে রোববার রাতে প্রায় ৭০০ জন এবং শনিবার সন্ধ্যা থেকে প্রায় দেড় হাজারের মতো রোহিঙ্গা বাংলাদেশে প্রবেশের জন্য অবস্থান করছিল।

আমাদের নওগাঁ প্রতিনিধি জানান, নওগাঁর সাপাহার উপজেলার মধুইল বাজার এলাকা থেকে সোমবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে পাঁচ শিশুসহ ১০ রোহিঙ্গাকে আটক করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) সদস্যরা।

এ বিষয়ে নওগাঁর ১৪ বিজিবির অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মোহাম্মদ খিজির খান জানান, সোমবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে সাপাহার সীমান্ত এলাকার মধুইল বাজার থেকে একটি যাত্রীবাহী বাস নওগাঁর উদ্দেশে ছেড়ে যাচ্ছিল। এ সময় ওই ১০ রোহিঙ্গা তড়িঘড়ি করে বাসে উঠে পড়ে।

স্থানীয় লোকজনের কাছে বিষয়টি সন্দেহজনক মনে হলে তাঁরা ওই রোহিঙ্গাদের আটকে রেখে সাপাহার বিজিবিকে খবর দেন। পরে বিজিবি সদস্যরা গিয়ে রোহিঙ্গাদের আটক করে স্থানীয় ক্যাম্পে নিয়ে যান।

বিজিবির এই কর্মকর্তা আরো জানান, বর্তমানে ওই রোহিঙ্গাদের খঞ্জনপুর কোম্পানি ক্যাম্পে রেখে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তারা আসলে কোথা থেকে এসেছে, তা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। এই রোহিঙ্গারা বাংলাদেশ থেকে ভারতে যাচ্ছিল নাকি ভারত থেকে তাদের পুশইন করা হয়েছে, তাও জানা যায়নি। বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার পর আটক রোহিঙ্গাদের কক্সবাজার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে পাঠানো হবে বলে জানান তিনি।

এদিকে আমাদের কক্সবাজার প্রতিনিধি জানিয়েছেন, কক্সবাজারের উখিয়ার আঞ্জুমানপাড়া সীমান্তের শূন্যরেখায় রোববার রাতে প্রায় ৭০০ রোহিঙ্গা অবস্থান করছিল। শনিবার সন্ধ্যা থেকে সেখানে দেড় হাজারের মতো রোহিঙ্গা অবস্থান করছিল। যাচাই-বাছাই শেষে তাদের মধ্যে ৮০০ জনকে রোববার উখিয়ার বালুখালীর বিভিন্ন রোহিঙ্গা শিবিরে পাঠায় বিজিবি।

উখিয়ার সীমান্তের দায়িত্বে থাকা কক্সবাজার ৩৪ বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্নেল মঞ্জুরুল হাসান খান বলেন, শূন্যরেখায় অবস্থান করা রোহিঙ্গাদের কারও কাছে অস্ত্র, বিস্ফোরক, মাদকসহ অবৈধ মালামাল রয়েছে কি না, তা যাচাই শেষে ৮০০ জনকে ঢুকতে দিয়েছেন তাঁরা। ইউএনএইচসিআর, আইওএম, রেড ক্রিসেন্টসহ বিভিন্ন সংস্থা ওই রোহিঙ্গাদের কাছ থেকে তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহ করে। পরে প্রত্যেককে তল্লাশি করে বিজিবি।

যারা এখনো শূন্যরেখায় অবস্থান করছে, তাদের বিষয়ে সোমবার সিদ্ধান্ত নেওয়ার কথা রয়েছে হবে। তবে শূন্যরেখায় থাকা রোহিঙ্গাদের মানবিক সহায়তা দেওয়া হচ্ছে।

এদিকে জাতিসংঘের তথ্য অনুযায়ী, গত ২৫ আগস্ট থেকে ৯ নভেম্বর পর্যন্ত মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্য থেকে পালিয়ে বাংলাদেশে ঢুকেছে ৬ লাখ ১৩ হাজার রোহিঙ্গা।

এছাড়া টেকনাফের নাফ নদীতে রোববারো রোহিঙ্গাদের ১১টি ভেলা ভাসতে দেখা যায়। উপজেলার শাহপরীর দ্বীপ ও নয়াপাড়া এলাকায় নদীর তীরের বেশ কিছুটা দূরে এসব ভেলায় প্রায় ৫০০ রোহিঙ্গা ভাসছিল। তবে, রোববার সন্ধ্যা পর্যন্ত কোনো ভেলা তীরে ভেড়েনি।

এর আগে গত বুধবার থেকে রোববার পর্যন্ত পাঁচ দিনে মোট ১৬টি ভেলায় নাফ নদী পেরিয়ে ৮৩৬ রোহিঙ্গা টেকনাফে ঢুকেছে।

টেকনাফ ২ বিজিবির উপ-অধিনায়ক মেজর শরীফুল ইসলাম জোমাদ্দার বলেন, নৌকা চলাচল বন্ধ থাকায় দিনের বেলায় ভেলা ভাসিয়ে রোহিঙ্গারা টেকনাফে আসছে।

শাহপরীর দ্বীপের স্থানীয় বাসিন্দারা বলছেন, দিনে রোহিঙ্গা আসা প্রায় বন্ধ থাকলেও রাতে নৌকায় করে রোহিঙ্গারা আসছে। ওই ১১টি ভেলায় থাকা রোহিঙ্গারা রাতে সীমান্তের কোনো না কোনো এলাকা দিয়ে ঠিকই টেকনাফে ঢুকবে।

উখিয়ার পালংখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গফুর উদ্দিন চৌধুরী গতকাল সন্ধ্যায় প্রথম আলোকে বলেন, মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে এখন রোহিঙ্গাদের ওপর তেমন কোনো হামলা হচ্ছে না। এর পরও সেখান থেকে রোহিঙ্গাদের পালিয়ে আসার পেছনে কিছু বিদেশি সংস্থা এবং এনজিওর ইন্ধন থাকতে পারে বলে তিনি মনে করেন। এ ছাড়া যেসব রোহিঙ্গা আগে বাংলাদেশে এসেছে, তারা ফোন করে স্বজনদের এখানে আসতে বলছে। এর কারণ হিসেবে তিনি বলেন, বাংলাদেশে এলে ত্রাণ পাওয়া যাচ্ছে। নিরাপত্তা নিয়েও সমস্যা নেই।

এ বিষয়ে উখিয়ার বালুখালী রোহিঙ্গা শিবিরের সভাপতি মো. হারুন বলেন, রাখাইনের রোহিঙ্গা গ্রামগুলোতে এখন তীব্র খাদ্যসংকট চলছে। এ ছাড়া ভয়ভীতি তো রয়েছেই। এ কারণে পালিয়ে আসতে বাধ্য হচ্ছে রোহিঙ্গারা।

মন্তব্য

মতামত দিন

দেশজুড়ে পাতার আরো খবর

নাটোর চিনিকল ও নর্থ বেঙ্গল সুগার মিলসে চিনি উৎপাদন শুরু

নিজস্ব প্রতিনিধিআরটিএনএননাটোর: নাটোর চিনিকল ও নর্থ বেঙ্গল সুগার মিলসে চলতি ২০১৭-১৮ মৌসুমের উৎপাদন শুরু হয়েছে। শুক্রবার ব . . . বিস্তারিত

রাজশাহীতে মোটরসাইকেলকে ধাক্কা দিয়ে বাস পুকুরে, স্বামী-স্ত্রীসহ নিহত ৩

নিজস্ব প্রতিনিধিআরটিএনএনরাজশাহী: রাজশাহীর পবা উপজেলায় যাত্রীবাহী বাসের ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহী স্বামী-স্ত্রীসহ তিনজন নি . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান, গোলাম রসুল প্লাজা (তৃতীয় তলা), ৪০৪ দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০।
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com