বঙ্গবন্ধুকে নিয়েও কটাক্ষ করতে দ্বিধা করেননি প্রধান বিচারপতি: মোশাররফ

১১ আগস্ট,২০১৭

নিজস্ব প্রতিনিধি
আরটিএনএন
মাদারিপুর: স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী (এলজিআরডি) ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, প্রধান বিচারপতি ষোড়শ সংশোধনীর রায়ে ব্যাপকভাবে অসাংবিধানিক ও অনৈতিক কথাবার্তার অবতারণা করেছেন। এমনকি তিনি বঙ্গবন্ধুকে নিয়েও কটাক্ষ করতে দ্বিধা করেননি।

শুক্রবার দুপুরে দিকে মাদারীপুরের শিবচরে শেখ হাসিনা সড়ক, শেখ কামাল সেতুসহ বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডের উদ্বোধনী ও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী নিয়ে মাননীয় প্রধান বিচারপতি যে রায় দিয়েছেন, তাতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে কটাক্ষ করার ধৃষ্টতা দেখিয়েছেন।’

খন্দকার মোশাররফ বলেন, আমরা অত্যন্ত বিনয়ের সঙ্গে বলতে চাই, যে সমস্ত অনাকাঙ্ক্ষিত বিষয় রায়ে উল্লেখ আছে, তা পুনঃবিবেচনা করার অনুরোধ করছি।

তিনি আরো বলেন, জনগণের মনে আঘাত দিয়ে, উপযাজক হয়ে বিচার ব্যবস্থা চালু রাখা সম্ভব নয়। যে দেশে বিচার ব্যবস্থায় আস্থার সংকট দেখা দেয়, সে দেশে প্রলংয়কারী ভয়াবহ অবস্থার সৃষ্টি হয়।'

অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন মাদারীপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য নূর ই আলম চৌধুরী লিটন, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতরের প্রধান প্রকৌশলী শ্যামা প্রসাদ অধিকারী, ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ, জেলা পরিষদ প্রশাসক মিয়াজউদ্দিন খান, মাদারীপুরের এলজিইআরডির নির্বাহী প্রকৌশলী মলয় কুমার চক্রবর্তী, শিবচর উপজেলা চেয়ারম্যান রেজাউল করিম তালকুদার প্রমুখ।

মন্তব্য

মতামত দিন

দেশজুড়ে পাতার আরো খবর

শয়নকক্ষ থেকে নকলা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিনিধিআরটিএনএনশেরপুর: শেরপুরের নকলা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক মাহবুব আলী চৌধুরী ও . . . বিস্তারিত

ছ’মাসের অন্তঃসত্ত্বা হাসিনা সাত দিন ধরে হাঁটছেন

নিউজ ডেস্কআরটিএনএনঢাকা: একটি বাঁশের লাঠি ধরে খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে হাঁটছিলেন হাসিনা বেগম। তিনি ছ’মাসের অন্তঃসত্বা। ট . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান, গোলাম রসুল প্লাজা (তৃতীয় তলা), ৪০৪ দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০।
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com