গরু চুরির অপবাদে গৃহবধূর বাড়িতে হামলা, গাছে বেঁধে নির্যাতন

১৭ জুলাই,২০১৭

নিজস্ব প্রতিনিধি
আরটিএনএন
চুয়াডাঙ্গা: গরু চুরির অপবাদে কাজলি খাতুন ওরফে হেয়া (৪২) নামের এক গৃহবধূকে গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার চিৎলা গ্রামে। সেই সঙ্গে ওই গৃহবধূর বাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করেছে একই এলাকার বাসিন্দা সিরাজুল ও তার লোকজন।

সোমবার দুপুরে এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে আটজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এর আগে কাজলি খাতুন বাদী হয়ে নয়জনের নাম উল্লেখ করে থানায় মামলা করেন।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন একই গ্রামের আহাদ আলী শেখের ছেলে আইয়ুব আলী (৫২), তার স্ত্রী মাহিরন নেছা (৪৫), ছেলে রাজু ওরফে উকিল (১৮), আবুলের ছেলে বাচ্চু (৩৫), সেকেন্দার আলীর ছেলে হাসান (২০), নয়েশ আলীর ছেলে সাহেব আলী (২০), বাবুলের ছেলে সেতু (২০) ও কাজিরুলের ছেলে ফয়সাল (২০)।

দামুড়হুদা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু জিহাদ মো. ফকরুল আলম খান বলেন, গত বুধবার রাতে উপজেলার চিৎলা গ্রামের সিরাজুল ইসলামের গোয়ালঘর থেকে দুটি হালের বলদ চুরি হয়।

বৃহস্পতিবার সকালে প্রতিবেশী তরল আলী গরু চুরি করেছে বলে অভিযোগ তুলে বাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর ও লুটপাট করে সিরাজুল ও তার লোকজন।

এ সময় তরল আলীর স্ত্রী কাজলি খাতুন স্থানীয় জুড়ানপুর বাজার থেকে বাড়ি ফেরার পথে তাকে ধরে বাড়ির পাশের বেল গাছের সঙ্গে বেঁধে ঘণ্টাব্যাপী নির্যাতন চালায় সিরাজুল ইসলামের লোকজন।

পরে এলাকার লোকজন কাজলিকে উদ্ধার করে স্থানীয় ক্লিনিকে ভর্তি করে। এ খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে সোমবার সকালে চুয়াডাঙ্গা পুলিশ সুপার নিজাম উদ্দীন ও সহকারী পুলিশ সুপার কলিমুল্লাহ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

এরপর পুলিশের সহযোগিতায় কাজলি খাতুন বাদী হয়ে নয়জনের নাম উল্লেখ করে থানায় মামলা করলে আটজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। বিকেলে তাদের চুয়াডাঙ্গা আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে বলেও জানান ওসি আবু জিহাদ মো. ফকরুল আলম খান।

মন্তব্য

মতামত দিন

দেশজুড়ে পাতার আরো খবর

নারায়ণগঞ্জের ঘটনায় ৩ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন

নিজস্ব প্রতিনিধিআরটিএনএননারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জের ঘটনায় জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ৩ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। আজ . . . বিস্তারিত

কেউ এগিয়ে এলো না ছেলেটিকে বাঁচাতে!

নিজেস্ব প্রতিনিধিআরটিএনএনচট্টগ্রাম: খেলতে খুব ভালোবাসেন কিশোর আদনান। আর সেই খেলাই কাল হয়ে দাড়ালো তার। জীবন দিতে হলো . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com