সাংবাদিক শিমুল হত্যার আসামি মেয়র মিরুর জন্য কি আইন ভিন্ন?

১৯ জুন,২০১৭

নিজস্ব প্রতিনিধি
আরটিএনএন
সিরাজগঞ্জ: বহুল আলোচিত সাংবাদিক শিমুল হত্যা মামলার প্রধান আসামি সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর পৌর মেয়র হালিমুল হক মিরু ও কাউন্সিলর রাজ্জাককে দীর্ঘদিন পর সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। এ নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে স্থানীয় সরকার বিভাগের ভূমিকা।

স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ পরিচালক আবু নূর মো. শামসুদ্দিন বিষয়টি সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, শিমুল হত্যা মামলায় মেয়র মিরুর বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ ১৩ জুন আদালত আমলে নেন। এ সংক্রান্ত কাগজ আমাদের হাতে আসায় স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের আদেশে আজ তাকে বরখাস্ত করা হয়েছে।

তবে এ নিয়ে অনেকের প্রশ্ন- সাংবাদিক শিমুল হত্যার মেয়র মিরুর জন্য কি আইন ভিন্ন না ক্ষমতাসীন দলের হওয়ায় তাকে দীর্ঘদিন পর সাময়িক বরখাস্ত করা হলো?

কেননা, ইতোপূর্বে রাজশাহী, সিলেট, খুলনা ও হবিগঞ্জের মেয়রকে বরখাস্ত করার ক্ষেত্রে যে ধরনের তাড়াহুড়া করা মেয়র হালিমুল হক মিরু ও কাউন্সিলর রাজ্জাকের ক্ষেত্রে তেমনটি লক্ষ্য করা হয়নি।
 
প্রসঙ্গত, শাহজাদপুরে পৌর মেয়রের দুই ভাই মিন্টু ও পিন্টুর সঙ্গে স্থানীয় ছাত্রলীগ নেতা বিজয় মাহমুদের বিরোধ তৈরি হয়। বিজয়কে তুলে নিয়ে মেয়রের বাড়িতে আটকে মারধর করা হয়। ওই ঘটনায় সরকার দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে মেয়র মিরু, মিন্টু, পিন্টু ও নাসিরসহ তাদের সমর্থকদের সংঘর্ষ বাধে। গত ২ ফেব্রুয়ারি এ ঘটনায় পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে সাংবাদিক শিমুল গুলিবিদ্ধ হন। প্রথমে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বগুড়া নেওয়া হয়। পরদিন ৩ ফেব্রুয়ারি বগুড়া থেকে ঢাকার নেওয়ার পথে মারা যান তিনি।

এ ঘটনায় শিমুলের স্ত্রী নুরুনন্নাহার বেগম বাদী হয়ে মেয়র মিরু, তার ভাই মিন্টু ও উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা নাসিরসহ জ্ঞাত ১৮ ও অজ্ঞাত আরো প্রায় ২২ জনসহ ৪০ জনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করেন। ওই ঘটনার প্রায় ৫ মাস পর মেয়র মিরু ও কাউন্সিলর রাজ্জাককে বরখাস্ত করা হলো।

মন্তব্য

মতামত দিন

দেশজুড়ে পাতার আরো খবর

খন্দকার মোশাররফের গাড়িবহর যেভাবে দুর্ঘটনায়

নিজস্ব প্রতিনিধিআরটিএনএনকুমিল্লা: কুমিল্লার দাউদকান্দিতে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেনের গাড়িবহরে বা . . . বিস্তারিত

যশোরে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক ব্যবসায়ী নিহত

নিজস্ব প্রতিনিধিআরটিএনএনযশোর: যশোরের অভয়নগর উপজেলায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ শহিদুল ইসলাম (৩৪) নামের এক ব্যক্তি নিহত হ . . . বিস্তারিত

 

 

 

 

 

 



ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: ড. সরদার এম. আনিছুর রহমান,
ফোন: +৮৮০-২-৮৩১২৮৫৭, +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, ফ্যাক্স: +৮৮০-২-৮৩১১৫৮৬, নিউজ রুম মোবাইল: +৮৮০-১৬৭৪৭৫৭৮০২; ই-মেইল: rtnnimage@gmail.com